২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ইস্তাম্বুলের আবাসিক এলাকায় ভেঙে পড়ল সামরিক কপ্টার

বিধ্বস্ত হেলিকপ্টারের ধ্বংসাবশেষ সরাচ্ছেন উদ্ধারকর্মীরা - ছবি : সংগৃহীত

ইস্তাম্বুলের চেকমেকয় জেলার পাশে একটি আবাসিক এলাকায় সোমবার একটি সামরিক হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়েছে। এতে চারজন সেনা সদস্য নিহত হয়েছে। স্থানীয় গভর্নর সূত্রে এ খবর জানা গেছে।

এক বিবৃতিতে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, দুর্ঘটনায় ইউএইচ-ওয়ান টাইপের একটি হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়। তবে এখনো পর্যন্ত দুর্ঘটনার কারণ জানা যায়নি। এ ব্যাপারে ইতোমধ্যে তদন্ত শুরু করা হয়েছে।

ইস্তাম্বুলের গভর্নর আলি ইয়ারলিকায়া জানিয়েছিলেন, এ ঘটনায় আহতদের চিকিৎসার জন্য দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। কিন্তু পরে হাসপাতাল সূত্রে জানানো হয়, আহতদের সবাই মারা গেছেন। ইতোমধ্যেই উদ্ধারকর্মীরা বিধ্বস্ত হেলিকপ্টারের বিভিন্ন অংশ সরিয়ে ফেলার কাজে যুক্ত হয়েছে।

তুরস্কের সংবাদমাধ্যম জানায়, স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ছয়টা ৫১ মিনিটে সুলতানগাজি সড়কের পাশে পার্কভার্দে হাউজিং কমপ্লেক্সে হেলিকপ্টারটি বিধ্বস্ত হয়।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান এ দুর্ঘটনায় এক শোকবার্তা প্রকাশ করেন। এতে তিনি বলেন, জাতির এ ক্ষতিতে আমরা গভীর দুঃখ বোধ করছি। তুর্কি পার্লামেন্টের স্পিকার বিনালি ইলদিরিমও টুইটারে শোক প্রকাশ করেন।

গত নভেম্বরে স্যাঙ্ক্যাটপি শহরে একই ধরনের আরেকটি হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়েছিল। সে সময়ও চারজন সেনাসদস্য নিহত হয়েছিল এবং একজন আহত হয়েছিল।

এর আগে ২০০২-১১ সালের মধ্যে তুরস্কে চারটি ইউএইচ-ওয়ান হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়েছিল। এর মধ্যে ২০০৬ সালে উত্তরাঞ্চলীয় রাজ্য এরজিনক্যানে এবং ২০১১ সালে আঙ্কারায় ঘটা দুই দুর্ঘটনায় মোট ১০ জন সেনা কর্মকর্তা নিহত হন।

১৯৭৬ সালে ইউএইচ-ওয়ান হেলিকপ্টার উৎপাদন বন্ধ করে দেয়া হয়। বিভিন্ন দেশের সেনাবাহিনীই মূলত এ হেলিকপ্টারগুলো ব্যবহার করে থাকে। বিশেষ করে প্রশিক্ষণ, উদ্ধারকার্য ও মালামাল পরিবহণে এসব হেলিকপ্টার বেশি ব্যবহৃত হয়।

সূত্র : ডেইলি সাবাহ

আরো পড়ুন : নিজস্ব প্রযুক্তিতে মাল্টি-পারপাস হেলিকপ্টার বানালো তুরস্ক

দ্য ডেইলি সাবাহ ও আনাদোলু ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১:৪৯

নিজস্ব প্রযুক্তিতে মাল্টি-পারপাস হেলিকপ্টার বানিয়েছে তুরস্ক। নিজেদের তৈরি মাল্টি-পারপাস হেলিকপ্টার-৬২৫ প্রথমবারের মতো আকাশে উড়েছে। সম্প্রতি দেশটির রাজধানী আঙ্কারায় এই উড্ডয়ন পরীক্ষা চালানো হয়।

মাল্টি-পারপাস হেলিকপ্টারটির নকশা প্রণয়ন ও উৎপাদনে রয়েছে টার্কিশ এয়ারক্রাফ্ট ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশন (টিএআই)। এই হেলিকপ্টারের নকশা প্রণয়ন এবং উৎপাদনে অবদান রাখায় সংশ্লিষ্ট সবাইকে অভিনন্দন জানিয়েছেন টার্কিশ ডিফেন্স ইন্ডাস্ট্রিজ (এসএসবি) প্রেসিডেন্ট ইসমাইল দেমির।

এসএসবি নিজেদের টুইটারে এক ঘোষণা বলেছে, ‘আমরা প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম সেপ্টেম্বরেই টি-৬২৫ হেলিকপ্টারের পরীক্ষামূলক উড্ডয়ন সম্পন্ন হবে। সে অনুযায়ী ৬ সেপ্টেম্বর এই উড্ডয়ন সম্পন্ন হলো। গুরুত্বপূর্ণ এই অর্জনের জন্য এয়ারক্রাফ্ট ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশনকে ধন্যবাদ জানাই।’

আনুষ্ঠানিক প্রথম উড্ডয়নের আগে গত ২ সেপ্টেম্বর টি-৬২৫ মাল্টিরোল হেলিকপ্টারের সব পরীক্ষা-নিরীক্ষা সম্পন্ন করা হয় বলে জানিয়েছিল এসএসবি। আগামী ২০২১ সাল থেকে টি-৬২৫ মাল্টিরোল হেলিকপ্টারের ব্যাপক উৎপাদন শুরু হবে বলে জানিয়েছে টিএআই।

সব ধরনের প্রতিকূল আবহাওয়ায় বহুমুখী অভিযানের চাহিদা মেটাতে পারে টি-৬২৫ মাল্টি-পারপাস হেলিকপ্টার। গত ২০১৩ সালে টিএআই এবং এসএসবি দেশীয় হেলিকপ্টার তৈরির এই প্রকল্প হাতে নেয়।


আরো সংবাদ

Hacklink

ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme