২৫ আগস্ট ২০১৯

পোল্যান্ডে বন্য শুয়োর নিধনের প্রতিবাদে হাজার হাজার মানুষের বিক্ষোভ

-

পোল্যান্ডে বন্য শুয়োর নিধনের প্রতিবাদ জানিয়ে বুধবার ওয়ারশতে হাজার হাজার বিক্ষোভকারী সমাবেশ করেছে। তারা এই নিধন বন্ধের আহ্বান জানিয়েছেন।

কর্তৃপক্ষের দাবি, রোগ ছড়িয়ে পড়ার কারণে তারা বন্য শুয়োর নিধন করছে।

এদিকে এ নিধনের ফলে শুয়োরের মাংস নির্ভর শিল্প ঝুঁকির মুখে পড়েছে। খবর বার্তা সংস্থা এএফপি’র।

এছাড়া, পরিবেশবিদ ও বিজ্ঞানীরা সতর্ক করে বলেছেন যে বন্য শুয়োর নিধনের কারণে পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হতে পারে। এমনকি এর ফলে অসাবধানবসত আফ্রিকান সোয়াইন ফিভার (এএসএফ) ছড়িয়ে পড়তে পারে, যা শুয়োরের জন্য প্রাণঘাতী।

রোগটি ২০১৪ সালে প্রথম পোল্যান্ডে দেখা যায়। বেলারুশ থেকে পোল্যান্ডে আসা রোগাক্রান্ত একটি বন্য শুয়োর থেকে রোগটি ছড়িয়ে পড়ে।

পরিবেশ ও কৃষি মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে পোল্যান্ডের পিজেডএল হান্টিং ইউনিয়ন জানিয়েছে, তারা গত বছরের এপ্রিল মাস থেকে এ পর্যন্ত ১ লাখ ৬৮ হাজার বন্য শুয়োর হত্যা করেছে। ২০১৮ সাল থেকে ২০১৯ সালের মধ্যে ১ লাখ ৮৫ হাজার বন্যা শুয়োর হত্যার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

এখন পরিবেশ মন্ত্রণালয় পিজেডএলকে জানুয়ারির শেষ তিন সপ্তাহে গণহারে শুয়োর নিধনের নির্দেশ দিয়েছে। সরকারের এই সিদ্ধান্তের কারণে এই বিক্ষোভ শুরু হয়।

বুধবার সন্ধ্যায় বিক্ষোভকারীরা পোল্যান্ডের পার্লামেন্টের সামনে সমাবেশ করেছে। এ সময় তাদের হাতে, ‘বন্য শুয়োর নিধন চলছে!’, ‘বন্য শুয়োর দীর্ঘজীবী হোক!’ ও ‘মন্ত্রীদের গুলি করা উচিত!’ লেখা প্ল্যাকার্ড ছিল।

আগামী দিনগুলোতে পোল্যান্ডের বিভিন্ন শহরে আরো বেশি বিক্ষোভকারীর জমায়েত হওয়ার পরিকল্পনা করছে।

এদিকে পোল্যান্ডের বিজ্ঞানীরা অবিলম্বে এই বন্য শুয়োর নিধন বন্ধে দেশটির ডানপন্থী প্রধানমন্ত্রী মাতেউসজ মোরাউইকির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

ওয়ার্ল্ড ওয়াইল্ডলাইফ ফান্ড (ডব্লিউডব্লিউএল) পোল্যান্ড শাখার এর বায়োডাইভার্সিটি বিশেষজ্ঞ পিওত্র শিয়েইলেওস্কি বলেন, ‘বন্য শুয়োর জীববৈচিত্র্যের জন্যে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ প্রজাতি। তারা ক্ষতিকর পোকামাকড় খায় এবং নেকড়েবাঘের প্রধান খাদ্য।’

তিনি সতর্ক করে বলেছেন, জীববৈচিত্র্য থেকে বন্য শুয়োর হারিয়ে গেলে নেকড়েরা হরিণ শিকার শুরু করতে পারে। এমনকি তারা গবাদিপশুর উপরও হামলা চালাতে পারে।


আরো সংবাদ

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সরকার ব্যর্থ : মির্জা ফখরুল টঙ্গীতে দুই মাদক কারবারি আটক নারী নির্যাতন আইনের অপব্যবহারে হয়রানির শিকার হচ্ছে পুরুষরা আগরতলা বিমানবন্দরের জন্য জমি দিলে সাবভৌমত্ব বিপন্ন হবে : ইসলামী ঐক্যজোট পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যে জাতি হতাশ ও বিস্মিত সুশীল ফোরাম পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যে জাতি হতাশ ও বিস্মিত সুশীল ফোরাম ডেমরায় ডেঙ্গু প্রতিরোধে শিল্প কলকারখানায় সচেতনতামূলক অভিযান ভারতীয় দূতাবাস ঘেরাও করবে খেলাফত আন্দোলন দেশ বাঁচাও সংগ্রামের বিকল্প নেই গোপালগঞ্জ জেলা সমিতির উদ্যোগে ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ’ শীর্ষক আলোচনা সভা কাশ্মির ইস্যু ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয় নয় : মুসলিম লীগ

সকল

ভারতের হামলার মুখে কতটুকু প্রস্তুত পাকিস্তান? (২৭৭২২)জামালপুরের ডিসির নারী কেলেঙ্কারির ভিডিও ভাইরাল, ডিসির অস্বীকার (২৭৪২৮)কিশোরীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুললেন নোবেল (১৯৩২৬)‘কাশ্মিরি গাজা’য় নজিরবিহীন প্রতিরোধ (১৯০১৯)ভারত কেন আগে পরমাণু হামলা চালাতে চায়? (১৮৭০০)সেনাবাহিনীর গাড়িতে গুলি, পাল্টা গুলিতে সন্ত্রাসী নিহত (১৮৩৫৪)কাশ্মির সীমান্তে পাক বাহিনীর গুলিতে ভারতীয় সেনা নিহত (১৩৭৫২)দাম্পত্য জীবনে কোনো কলহ না হওয়ায় স্বামীকে তালাক দিতে চান স্ত্রী (১২৫৫৯)প্রিয়াঙ্কাকে সরাতে পাকিস্তানের চিঠির জবাব দিয়েছে জাতিসংঘ (৮৩৮৪)রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমারকে যে বার্তা দিল চীন (৭৭২৬)



mp3 indir bedava internet