১৫ নভেম্বর ২০১৮

শক্তি প্রদর্শনে কাতালানের স্বাধীনতাকামীরা

শক্তি প্রদর্শনে কাতালানের স্বাধীনতাকামীরা - সংগৃহীত

কাতালান স্বাধীনতাকামীরা মঙ্গলবার ওই অঞ্চলের জাতীয় দিবস উপলক্ষে তাদের শক্তি ও একতা প্রদর্শন করেছে। স্পেন থেকে বিচ্ছিন্ন হওয়ার ব্যর্থ চেষ্টার প্রায় এক বছর পর তারা এই শক্তি প্রদর্শন করে।

আয়োজকরা জানিয়েছে, ‘কাতালান রিপাবলিক’ উপলক্ষে বার্সেলোনা সমাবেশে অন্তত ৪ লাখ ৬০ হাজার মানুষ যোগ দেয়। যদিও এই সংখ্যা গত বছরের চেয়ে কম। গত বছর বিচ্ছিন্নতার পক্ষে অনুষ্ঠিত এই মিছিলে ১০ লাখ লোক অংশ নেয়।

১৭১৪ সালে স্পেনের রাজা পঞ্চম ফিলিপের বাহিনীর কাছে বার্সেলোনার পরাজয় ও অঞ্চলটির স্বাধীনতা হারানোর ঘটনা স্মরণ করে দিনটিতে আঞ্চলিক ছুটি পালিত হয়। এই দিনেই র‌্যালি অনুষ্ঠিত হবে। ২০১২ সাল থেকে এই ছুটির দিনটিকে বিচ্ছিন্নতাবাদীরা স্বাধীনতার আন্দোলন হিসেবে বেছে নিয়েছে।

এ বছরে র‌্যালির মাধ্যমে বিচ্ছিন্নতাবাদী গোষ্ঠীটির শক্তি সম্পর্কে জানান দেয়। এক বছর আগে অঞ্চলটির পূর্ণ স্বাধীনতার বিষয়ে একটি গণভোটের আয়োজন করা হয়। এরপর কাতালান পার্লামেন্ট একতরফাভাবে ২৭ অক্টোবর স্বাধীনতা ঘোষণা করে।

অটোনোমাস ইউনিভার্সিটি অব বার্সেলোনার রাজনীতির অধ্যাপক ওরিওল বার্তোমেয়াস বলেন, ‘নিজেদের একটি সুসংগঠিত রাজনৈতিক বাহিনী হিসেবে প্রমাণ করতে বিচ্ছিন্নতাবাদীরা রাস্তায় তাদের শক্তি প্রদর্শন করবে।’

কাতালানের প্রেসিডেন্ট কুইম টোরা বলেন, এই র‌্যালি ‘গণজাগরণের’-এর সূচনা করবে।

তিনি আরো বলেন, গত বছর বাতিল করে দেয়া গণভোটের বার্ষিকী উপলক্ষেও বিক্ষোভ, মিছিল ও সমাবেশ করার পরিকল্পনা আমাদের রয়েছে।

সোমবার সন্ধ্যায় টোরা টেলিভিশনে দেয়া এক ভাষণে বলেন, ‘আমাদের সরকার একটি স্বতন্ত্র প্রজাতন্ত্র বাস্তবায়নে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’
তিনি বলেন, ‘আমাদের জাতি স্বাধীন হতে চায়।’


আরো সংবাদ