২১ আগস্ট ২০১৯

কী সাজা হতে পারে মারিয়ার?

রাশিয়া
মারিয়া বিউটিনা - ছবি : বিবিসি

যুক্তরাষ্ট্রের কলম্বিয়ায় ডিস্ট্রিক্ট আদালতের বিচারক ডিবোরাহ রবিনসন রুশ নাগরিক মারিয়া বিউটিনার জামিন আবেদন নাকচ করে দিয়েছেন। খবর তাস’র।

এর আগে মার্কিন বিচার বিভাগ থেকে বলা হয়েছে, ২৯ বছর বয়সী বিউটিনা যুক্তরাষ্ট্রে অ্যাটর্নি জেনারেলের পূর্বানুমতি ছাড়া কাজ করায় তাকে রুশ এজেন্ট হিসেবে ষড়যন্ত্র ও গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে গত ১৫ জুলাই ওয়াশিংটনে গ্রেফতার করা হয়।

অভিযোগ প্রমাণিত হলে বিউটিনার সর্বোচ্চ ১৫ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে।

এদিকে বিউটিনার আইনজীবী রবার্ট নিল ড্রিসকোল এসব অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেন।

রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাজাকারোভা বুধবার রুশ নাগরিকের ওপর ওয়াশিংটনের এই আচরণকে ‘অস্বাভাবিক’ উল্লেখ করে বলেন, মস্কো তাকে রক্ষায় সব ধরনের চেষ্টা চালাবে।

তিনি বলেন, আপাতদৃষ্টিতে মনে হচ্ছে এফবিআই অপরাধ নির্মূলের কাজ না করে রাজনৈতিক যোগসাজশে কাজ করছে। আমরা রুশ নাগরিকদের রক্ষায় বৈধ সব ধরনের পদক্ষেপ নিবো।

রাশিয়ান সরকারের গুপ্তচর ও ষড়যন্ত্রে জড়িত সন্দেহে এক রুশ নাগরিককে গ্রেফতার করেছে যুক্তরাষ্ট্র। তিনি বিভিন্ন রাজনৈতিক গ্রুপে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে।

ওয়াশিংটনে বসবাসরত মারিয়াকে গত রোববার আটক করা হলেও তাকে বুধবার সেখানকার একটি আদালতে হাজির করানো হয়।

তার বিরুদ্ধে অভিযোগে বলা হয়েছে, মারিয়া বিউটিনা রিপাবলিকান পার্টির সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রেখে অস্ত্র কেনার অধিকারের পক্ষে কাজ করছিলেন।

তবে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ ২০১৬ সালের নির্বাচনে রুশ হস্তক্ষেপ নিয়ে দেশটির বিশেষ কৌঁসুলি রবার্ট মুলারের তদন্তের সঙ্গে সম্পর্কিত না।

মারিয়া বিউটিনা ক্রেমলিনের উচ্চ পর্যায়ের নির্দেশনা অনুসারে কাজ করেন বলে মার্কিন কর্মকর্তারা দাবি করেছেন।

মারিয়ার আইনজীবী রবার্ট ড্রিসকল দাবি করেন, তার মক্কেল কোনো গোয়েন্দা না। সে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ের একজন শিক্ষার্থী। ব্যবসায় ক্যারিয়ার গড়তে সে তার শিক্ষাগত যোগ্যতা কাজে লাগাতে চেয়েছিল। অভিযোগে তার নামে বাড়িয়ে বলা হয়েছে। কোনো নীতিকে অবমূল্যায়ন করা কিংবা প্রভাব বিস্তার করতে তিনি কাজ করেছেন বলে কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

তিনি বলেন, তার মক্কেল এ ব্যাপারে সরকারি কর্মকর্তাদের সহায়তা করে যাচ্ছেন।

আরো পড়ুন :
গুপ্তচরের ওপর গ্যাস হামলা ব্রিটেন আগুন নিয়ে খেলছে : রাশিয়া
বিবিসি, ০৭ এপ্রিল ২০১৮
রাশিয়া হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছে, সাবেক গোয়েন্দা কর্মকর্তা সের্গেই স্ক্রিপালের ওপর রাসায়নিক হামলার মিথ্যা অভিযোগ তুলে ব্রিটেন মূলত আগুন নিয়ে খেলা শুরু করেছে। মিথ্যা এই অভিযোগের জন্য ব্রিটেনকে দুঃখ পেতে হবে বলেও সতর্ক করেছে মস্কো।

জাতিসঙ্ঘ নিরাপত্তা পরিষদে বৃহস্পতিবার এক বৈঠকে রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত ভাসেলি নেবেনজিয়ার তরফ থেকে এই হুঁশিয়ারি আসে। তিনি বলেন, ভিত্তিহীন অভিযোগ তুলে রাশিয়াকে ‘কলঙ্কিত’ করাই ব্রিটেনের উদ্দেশ্য।

পক্ষত্যাগী রুশ গুপ্তচর সের্গেই স্ক্রিপাল ও তার মেয়ে ইউলিয়াকে যুক্তরাজ্যের সলসবেরির উইল্টশায়ারে বিষাক্ত নার্ভ এজেন্ট দিয়ে হত্যাচেষ্টার ঘটনায় রাশিয়াকে দায়ী করে আসছে ব্রিটেন। তবে মস্কো বরাবরই সে অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে। এ নিয়ে পাল্টাপাল্টি কূটনীতিক বহিষ্কারের ঘটনাও ঘটেছে। সামগ্রিক পরিস্থিতি নিয়ে রাশিয়ার ডাকা এই বৈঠকে জাতিসঙ্ঘে যুক্তরাজ্যের প্রতিনিধি কারেন পিয়ার্স বৈঠকে বলেন, তার দেশ যেসব পদক্ষেপ নিয়েছে তা যেকোনো বিচারেই সঠিক বিবেচিত হবে। স্ক্রিপালকে হত্যাচেষ্টার ঘটনায় মস্কো যৌথ তদন্তের যে প্রস্তাব দিয়েছিল, তা ‘নাশকতাকারীকেই আগুনের তদন্তভার’ দেয়ার মত বলে মন্তব্য করেন পিয়ার্স।

গত ৪ মার্চ ইংল্যান্ডের সলসবেরিতে নার্ভ এজেন্টের প্রভাবে অসুস্থ হয়ে পড়া সের্গেই স্ক্রিপাল ও তার মেয়ে এখন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ইউলিয়ার অবস্থার উন্নতি হলেও ৬৬ বছর বয়সী সের্গেইয়ের অবস্থা গুরুতর। জাতিসঙ্ঘে নিযুক্ত রুশ রাষ্ট্রদূত ভ্যাসিলি নেবেনজিয়া বৃহস্পতিবার জাতিসঙ্ঘ নিরাপত্তা পরিষদে বৈঠকে বলেন, ‘আমরা ব্রিটিশ বন্ধুদেরকে বলেছি যে, আপনারা আগুন নিয়ে খেলছেন এবং এজন্য আপনাদেরকে দুঃখ পেতে হবে।’

গত মাসে ডবল স্পাই স্ক্রিপালের ওপর ব্রিটেনের সলসবারি শহরে রাসায়নিক হামলা হয়েছে বলে খবর প্রচার করেছে ব্রিটেন। ঘটনার জন্য রাশিয়াকে দায়ী করে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে নানা তৎপরতা চালাচ্ছে লন্ডন। এ বিষয়ে আলোচনার জন্য রাশিয়া গতকালের এই বিশেষ অধিবেশন ডাকার অনুরোধ করে। তবে রাশিয়া এ অভিযোগ সবসময় নাকচ করে আসছে।


আরো সংবাদ

ভয়াবহ গ্রেনেড হামলার ১৫তম বার্ষির্কী সীমান্তে পাকিস্তানি সেনাদের গুলিতে ৬ ভারতীয় সেনা নিহত শেখ হাসিনাকে আমন্ত্রণ মোদির বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে গ্রেনেড হামলার ১৫তম বার্ষিকী আজ বিএনপির লক্ষ্য সপ্তম কাউন্সিল নেতাকর্মীদের হতাশার বৃত্ত থেকে বের করে আনার চেষ্টা বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকসহ আরো ৫ জনের মৃত্যু দ্রুত অপরাধীদের শাস্তি নিশ্চিত না হওয়ায় ধর্ষণ বেড়েছে : হাইকোর্ট অরক্ষিত কমলাপুর রেলস্টেশন : খুনের বিষয় জানেন না ডিজি ট্রেনে আসমাকে হত্যার আগে ধর্ষণ করা হয় ডেঙ্গু নিয়ে চ্যালেঞ্জের মুখে মন্ত্রী-এমপিরা রিফাত হত্যা মিন্নিকে কেন জামিন দেয়া হবে না : হাইকোর্টের রুল এসপিকে ব্যাখ্যা দেয়ার ও তদন্ত কর্মকর্তাকে হাজির হওয়ার নির্দেশ একনেক সভায় প্রধানমন্ত্রীর জিজ্ঞাসা এক প্রকল্পের টাকা নষ্ট করা ইঞ্জিনিয়ার আরেক প্রকল্পে কিভাবে থাকে

সকল

স্ত্রীর ছলচাতুরীতে ফতুর প্রবাসী স্বামী (৩৬৭২৪)পুলিশ হেফাজতে বাসর রাত কাটলেও ভেঙ্গে গেল বিয়ে (২৩৯০৭)ইমরানকে ‘পেছন থেকে ছুরি মেরেছেন’ মোদি (২১৩৩৩)ভারতের পরমাণু অস্ত্রভাণ্ডার এখন ফ্যাসিস্ট মোদির হাতে : ইমরান খানের হুঁশিয়ারি (১৭৪৬২)সন্ধ্যায় বাবার কিনে দেয়া মোটর সাইকেল সকালে কেড়ে নিল ছেলের প্রাণ (১৪৯৫২)নুরকে ‘খালেদা জিয়ার মতো পরিণতির’ হুমকি (১৩৯০০)স্বামীর সাথে ঘুরতে বেরিয়ে ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ, ধর্ষক আটক (১২৫৮১)সীমান্তে ফের পাল্টাপাল্টি গুলি, দুই ভারতীয় সেনাসহ নিহত ৪ (১১৩১৮)ব্যাগে টাকা আছে ভেবে শারমিনকে হত্যা করে রিকশা চালক রাজু উড়াও (১০৯৫০)গ্রীনল্যান্ড বিক্রির প্রস্তাব হাস্যকর : ড্যানিশ প্রধানমন্ত্রী (১০৫২৯)



bedava internet