২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮

আলোচিত রাশেদ সীমান্ত

-

গত ঈদুল ফিতরে প্রচারিত হয় একক নাটক ‘যেই লাউ সেই কদু’। আল হাজেনের পরিচালনায় নাটকটি ছিল বৈশাখী টেলিভিশনের ইনহাউজ প্রোডাকশন। অন্যান্যের সঙ্গে বৈশাখী টিভিতে কর্মরত অনেকেই অভিনয় করেন এ নাটকে। নাটকটি বেশ প্রশংসিত হয়। টিআরপি জরিপেও একটা ভালো অবস্থান করে নেয় এ নাটক। যে কারণে ঈদুল আজহাতেও এ নাটকের একটি সিকুয়াল নির্মাণ করে বৈশাখী টেলিভিশন কর্তৃপক্ষ। নাম দেয়া হয় ‘যেই লাউ সেই কদু-২’। এ নাটকটিও বেশ দর্শকনন্দিত হয়। এক সপ্তাহে ইউটিউবে কমেডিনির্ভর এ নাটকের ভিউয়ার্স সংখ্যা পাঁচ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। আর প্রথম পর্বের ভিউয়ার্স সংখ্যা এখন ২২ লাখ। নাটক দু’টির কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেন বৈশাখী টেলিভিশনের মার্কেটিং ইনচার্জ রাশেদ সীমান্ত। তার বিপরীতে ছিলেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী অহনা। শত শত নাটকের অভিনেত্রী অহনার সঙ্গে রাশেদ সীমান্তকে দেখে মনেই হয়নি তিনি একেবারেই নতুন। তার প্রাণবন্ত অভিনয় দারুণভাবে উপভোগ করে দর্শক। ঈদুল আজহায় বৈশাখী টেলিভিশনে প্রচারিত জনপ্রিয়তার শীর্ষে থাকা সাত দিনের ধারাবাহিক ‘বউয়ের দোয়া পরিবহন’ নাটকেও অভিনয়ও করেন রাশেদ সীমান্ত । অন্যান্যের সঙ্গে এ নাটকে রাশেদ সীমান্তের অভিনয় দারুণভাবে প্রশংসিত হয়। ইউটিউবে তাকে নিয়ে দর্শকদের শত শত কমেন্ট তাই প্রমাণ করে।


তিন নাটকের অভিনেতা রাশেদ সীমান্তের অভিনয় ক্যারিয়ার মাত্র তিন মাসের। এরই মধ্যে অনেকের চেনা জানা একজন হয়ে গেছেন। রাইজিং স্টার বলতে যা বোঝায় এখন তিনি তা-ই। যেখানেই যাচ্ছেন সেখানেই প্রশংসিত হচ্ছেন। অনেক নির্মাতাই তাকে নিয়ে নাটক নির্মাণের আগ্রহ প্রকাশ করছেন।


আরো সংবাদ