২০ আগস্ট ২০১৯

এই সরকার রাতে সন্তান হত্যা করেছে : রব

এই সরকার রাতে সন্তান হত্যা করেছে : রব - সংগৃহীত

এই সরকার সন্তান জন্ম নেওয়ার আগের রাতেই সন্তানকে হত্যা করেছে, ভোটের আগের রাতেই ভোট ডাকাতি করে ১০ কোটি ভোটারকে অধিকার বাঞ্চিত করেছে। কিন্তু দুঃখের বিষয় কেউ এর প্রতিবাদ করেনি। মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে গণতন্ত্রের মানসপুত্র হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর ছেলে পরলোকগত রাশেদ সোহরাওয়ার্দীর মৃত্যুতে আয়োজিত স্মরণসভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জেএসডি সভাপতি আসম আব্দুর রব এই মন্তব্য করেন।

গণফোরাম সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টুর সঞ্চলনায় স্বরণসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন গণফোরাম সভাপতি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেন। এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ডা. মঈন খান, ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন, গণফোরামের কার্যকর সভাপতি সুব্রত চৌধুরী, গণফোরাম নেতা মোকাব্বের হোসেন প্রমূখ।

আ স ম আব্দুর রব বলেন, বাংলাদেশে আর কখনো গনতন্ত্র ফিরে আসবে কিনা তা নিয়ে আমার সন্দেহ আছে। কিন্তু মিথ্যা মামলা নিয়ে সারাদেশে আমাদের লক্ষাধিক সন্তান কারাগারে আটক আছেন। আমাদের দায়িত্ব তাদের মুক্ত করা। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার আটক নেতাকর্মীদের যে সহজে মুক্ত হতে দিবেন না সে বিষয়ে কারো সন্দেহ নেই। তাদের মুক্ত করতে হলে রাজপথে কঠোর আন্দোলন করতে হবে। এ সময় ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেনকে উদ্দেশ্য করে আসম রব বলেন, আপনিতো একজন আইনজীবি আপনার ভালো জানার কথা খালেদা জিয়ার মামলা সংক্রান্ত বিষয়ের সিদ্ধান্ত কোথা থেকে নির্ধারিত হয়। তার মামলার জামিন পাওয়া না পাওয়া আদালত থেকে নির্ধারিত হয়না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

ঐক্যফ্রন্টের এই নেতা বলেন, ঘরে বসে রাজনীতি করা যায়, রাজনীতি করা আর আন্দোলন করা এক কথা নয়। আন্দোলন করতে হলে ত্যাগ করতে হয়। তিনি বলেন, এই সরকার সন্তান জন্ম নেওয়ার আগের রাতেই সন্তানকে হত্যা করেছে, ভোটের আগের রাতেই ভোট ডাকাতি করে ১০ কোটি ভোটারকে অধিকার বাঞ্চিত করেছে। কিন্তু দুঃখের বিষয় কেউ এর প্রতিবাদ করেনি।

জনগনের উদ্দেশ্যে এই নেতা বলেন, এই সরকার আপনাদের ঘাঁড় ধাক্কা দিয়ে বের করে দিয়েছে। আপনাদের ভোটের অধিকার থেকে বঞ্চিত করেছে। আপনারা ১০ কোটি ভোটার এর প্রতিবাদ করুন। এর প্রতিবাদ করার দায়িত্ব শুধু ড. কামাল হোসেনের আর এক্যফ্রন্টের না। এর প্রতিবাদ করার দায়িত্ব আপনাদের ১০ কোটি মানুষের। আমি আশা করবো জনগন তাদের ভোটর অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে রাজপথে নামবেন। আমরা আপনাদের পাশে থাকবো।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ডা. মঈন খান বলেন, রাশেদ সোহরাওয়ার্দী ছিলেন একজন উদার গনতন্ত্রমনা মানুষ। আজ আমরা এমন এক সময় তার স্বরণসভায় কথা বলছি যে, যেসময়টাতে এদেশে গনতন্ত্রকে গনতন্ত্রকে গলাটিপে হত্যা করা হয়েছে। আমরা রাশেদ সোহরাওয়ার্দীর মত একজন উদার গনতান্ত্রমনা রাজনীতিবীদকে শ্রদ্ধার সাথে স্বরণ করছি।


আরো সংবাদ

স্ত্রীর ছলচাতুরীতে ফতুর প্রবাসী স্বামী (৩৬৭২৪)পুলিশ হেফাজতে বাসর রাত কাটলেও ভেঙ্গে গেল বিয়ে (২৩৯০৭)ইমরানকে ‘পেছন থেকে ছুরি মেরেছেন’ মোদি (২১৩৩১)ভারতের পরমাণু অস্ত্রভাণ্ডার এখন ফ্যাসিস্ট মোদির হাতে : ইমরান খানের হুঁশিয়ারি (১৭৪৫৮)সন্ধ্যায় বাবার কিনে দেয়া মোটর সাইকেল সকালে কেড়ে নিল ছেলের প্রাণ (১৪৯৫২)নুরকে ‘খালেদা জিয়ার মতো পরিণতির’ হুমকি (১৩৯০০)স্বামীর সাথে ঘুরতে বেরিয়ে ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ, ধর্ষক আটক (১২৫৭৯)সীমান্তে ফের পাল্টাপাল্টি গুলি, দুই ভারতীয় সেনাসহ নিহত ৪ (১১৩১৮)ব্যাগে টাকা আছে ভেবে শারমিনকে হত্যা করে রিকশা চালক রাজু উড়াও (১০৯৫০)গ্রীনল্যান্ড বিক্রির প্রস্তাব হাস্যকর : ড্যানিশ প্রধানমন্ত্রী (১০৫২৩)



bedava internet