২০ আগস্ট ২০১৮

আগামী সপ্তাহে নবম ওয়েজবোর্ডের মহার্ঘ্য ভাতার প্রজ্ঞাপন : তথ্যমন্ত্রী

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু - সংগ্রহ

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, নবম ওয়েজবোর্ডের অন্তর্বর্তীকালীন মহার্ঘ্য ভাতা প্রদানের প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। আগামী সপ্তাহে এ সংক্রান্ত সরকারি প্রজ্ঞাপনও জারি হয়ে যাবে। তিনি শনিবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি’র (ডিআরইউ) ২৩তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও ইফতার-মাহফিল উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রীর তথ্য-উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন। তথ্যমন্ত্রী রিপোর্টারদের উদ্দেশে বলেন, ‘আপনারা নিজের বিবেকের কাছে ¯^চ্ছ থেকে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করুন।’

বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (বাসস) ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ ও দৈনিক সমকাল পত্রিকার সম্পাদক গোলাম সারওয়ারসহ সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।
এরআগে ডিআরইউ’র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আজ সকালে রাজধানীতে একটি শোভাযাত্রা বের করা হয়।

এদিকে মাদক বিরোধী অভিযান সম্পর্কে তথ্যমন্ত্রী বলেছেন, ‘জঙ্গিদমন ও মাদকবিরোধী অভিযান ‘জিরো টলারেন্স’ নীতিতেই পরিচালিত হবে। কারণ মানুষ বাঁচাতে দানবের বিরুদ্ধে এ অভিযান। আর দানবাধিকারের জন্য মায়াকান্নার রাজনীতির দিন শেষ।’

তিনি শনিবার বিকেলে ঢাকায় পল্টনের মুক্তি ভবন মিলনায়তনে ন্যাপ (মোজাফফর) এর প্রয়াত সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ নজরুল মজিদ বেলাল স্মরণে ১৪ দল আয়োজিত সভায় একথা বলেন।

সমাজকল্যাণমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, সিপিবি সভাপতি মোজাহিদুল ইসলাম সেলিম, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য মোজাফফর হোসেন পল্টু, বাংলাদেশের সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া প্রমুখ সভায় বক্তব্য রাখেন।

হাসানুল হক ইনু বলেন, ‘শেখ হাসিনার সরকার কখনো বিচার বহির্ভূত হত্যাকান্ডের অনুমতি দেয় না। একাত্তরের গণহত্যা, বঙ্গবন্ধু হত্যা, ২১শে আগস্টের গ্রেনেড হামলাকারীদের মধ্যে ¯^ীকৃত খুনিদেরও বিনাবিচারে হত্যা করা হয়নি, বহুবছর পরে হলেও শেখ হাসিনার সরকারই তাদের বিচারের আওতায় এনেছে।’

‘অপরদিকে জিয়াউর রহমান ও খালেদা জিয়া হচ্ছে বিনা বিচারে হত্যাকান্ডের হোতা এবং বিএনপি হচ্ছে সকল বিচার বহির্ভূত হত্যাকারীদের আশ্রয়দাতা’ উল্লেখ করে ইনু বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু হত্যাকারীদের দায়মুক্তির আইন করে তাদের পুরস্কৃত করেছিল জিয়া, ক্লিনহার্ট অপারেশনে আশিজনের অধিক মানুষ হত্যার দায়মুক্তির আইন করেছিল খালেদা জিয়া। তারা ২১ শে আগস্টের গ্রেনেড হামলা ও সা¤প্রতিককালে আগুনসন্ত্রাসে একশ’রও বেশি মানুষ পুড়িয়ে হত্যার অপরাধীদেরও বাঁচানোর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত।’

তথ্যমন্ত্রী এসময় ন্যাপ (মোজাফফর) এর প্রয়াত সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ নজরুল মজিদ বেলালকে জঙ্গি ও মাদক দমনের সাহসী সৈনিক হিসেবে বর্ণনা করে বলেন, ‘জঙ্গি ও মাদক দমনে সফলতার মাধ্যমেই অধ্যক্ষ বেলালের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে হবে।’


আরো সংবাদ