১৪ ডিসেম্বর ২০১৯

দিন বদলের স্লোগান দিয়ে পেঁয়াজ ছাড়া রান্না আবিষ্কার করতে হচ্ছে : নুর

২০০৮ সালে সরকার ক্ষমতায় আসার জন্য যে নির্বাচনী ইশতেহার দিয়েছিল, তারা এমন দিন বদলের সনদ দিয়েছে এখন মানুষকে বলতে হয় যে না খেয়ে থাকতে। এখন মানুষকে পেঁয়াজ ছাড়া তরকারি রান্নার পদ্ধতি আবিষ্কার করতে হচ্ছে। যেখানে মানুষ শত সহস্র বছর ধরে এ পেঁয়াজ খেয়ে আসছে বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ভিপি নুরুল হক নুর।

রোববার দুপুরে রাজধানীর শাহবাগ মোড়ে সাধারণ ছাত্র অধিকার প‌রিষদ আয়োজিত 'পেঁয়াজ ও চালসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের লাগামহীন মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিলে' তিনি এ মন্তব্য করেন।

বক্ত‌ব্যে ভি‌পি নুর ব‌লেন, সরকার বলেছিল ১০ টাকায় চাল খাওয়াবে ৫ টাকায় লবণ খাওয়াবে। যারা দিন বদলের স্লোগান দিয়েছিল, আজকে সেখানে চালের দাম ৫০ টাকা আর পেঁয়াজের দাম ৩০০ টাকা। এই হচ্ছে তাদের দিনবদলের সনদ। আজকে গণতন্ত্রের নামে দেশে স্বৈরতন্ত্র চলছে, আজকে প্রতিবাদে আসতে পারছেনা কারণ চাবি মেরে দেয়া হয়েছে।

সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদ আয়োজিত সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিলের শুরুতে শাহবাগ থেকে টিএসসি হয়ে একটি মিছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে পুনরায় শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে এসে মিলিত হন। পরে সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতৃবৃন্দের বক্তব্যের মাধ্যমে কর্মসূচি সমাপ্ত হয়।

সমা‌বে‌শে আ‌রো বক্তব্য রা‌খেন, সংগঠ‌নের আহব্বায়ক হাসান আল মামুন, যুগ্ম আহব্বায়ক মো. ফারুক, মাহফুজুর রহমান, আতাউল্লাহ, আবু হা‌নিফ, সম্রাট প্রমুখ।

নুর ব‌লেন, আজকে তারা এতটা অদক্ষ কথাবার্তা বলছে, প্রতিটি কাজে তারা ব্যর্থতার পরিচয় দিচ্ছে। যার কার‌ণে আজকে দেশ অনিশ্চিত গন্তব্যের দিকে আগাচ্ছে। আজকে যখন জিডিপির কথা বলা হচ্ছে তখন আমরা দেখি প্রায় চার কোটির মত যুবক বেকার। আর যখন রেমিটেন্স নিয়ে গর্ব করা হয় তখন আমরা দেখি প্রবাসী ভাই ও বোনেরা কি অমানবিক জীবন যাপন করে এবং দেশে ফেরার জন্য এক প্রকার আকুতি থাকে। তারা আজ নির্যাতিত-নিপীড়িত হয়ে দেশে ফিরেছে।

‌তি‌নি ব‌লেন, কিছুদিন আগে আপনারা পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কথা শুনেছেন ৫৩ জন নারীর লাশ নাকি দেশে সংখ্যায় নগণ্য খুব বেশি নয়।

আজকে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি তাতে কোন রাজনৈতিক দলকে দেখিনাই রাজপথে নামতে। আজকে রাজনৈতিক দলগুলো ব্যর্থতার পরিচয় দিচ্ছে। সমাজের মানুষের পাশে দাঁড়াতে তারা ব্যর্থ হচ্ছে।

নুর ব‌লেন, আপনারা জা‌নেন ৩১ ডিসেম্বর একটি নির্বাচনের মাধ্যমে কিভাবে অকার্যকর সংসদ করে বাংলাদেশের গণতন্ত্রকে কবর দেয়া হয়েছে। আজকে প্রকৃত গণতন্ত্র এবং জবাবদিহিতা মূলক একটি সরকার না থাকায় দুর্বৃত্তায়নের দুষ্ট চক্রে ঘুরপাক খাচ্ছে।

গতকাল রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে একজন শিক্ষার্থীকে মেরে রক্তাক্ত করা হয়েছে এবং হাত ভেঙ্গে দেয়া হয়েছে। তার কিন্তু বিচার হবে না। এদেশে বিচার ক্ষমতাসীনদের পকেটে বন্দি। আজকে সরকারের কন্সার্নস ছাড়া কোন প্রতিষ্ঠান কাজ করতে পারছে না। আজকে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রতিবাদ করার কারণে নাটকীয় যে ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট করছে এই যন্ত্র দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে। অধিকাংশ মানুষ ‌মে‌নেজড হয়ে গেছে। কেউ টাকা পয়সায় আর কেউ বা ব্যবসা-বাণিজ্যের লাইসেন্স এর মাধ্যমে।


আরো সংবাদ

দুই মন্ত্রীর ভারত সফর বাতিল নিয়ে আনন্দবাজার পত্রিকার বিশ্লেষণ (১২৩৬৫)দৃশ্যমান হচ্ছে বিশ্বের সর্ববৃহৎ ক্রিকেট স্টেডিয়ামের (১১৭৫৭)আসাম রণক্ষেত্র, নিহত ৫, আক্রান্ত নেতা-মন্ত্রীর বাড়ি (১১৪২২)গৌহাটিতে বাংলাদেশ হাইকমিশনের গাড়িবহরে হামলা (১০২৯৩)সানিয়ার বোনকে বিয়ে করলেন আজহারের ছেলে (১০২০৩)ভারত সফর বাতিল করেছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী! (৯৮০৯)বিজিবির হাতে আটক হওয়ার পর যা বললেন ভারতের নাগরিক ক্ষিতিশ (৮১১৯)দৈনিক সংগ্রাম কার্যালয়ে হামলা, সম্পাদক পুলিশ হেফাজতে (৭৭৫৩)পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ভারত সফরও বাতিল (৭১৬৬)ব্যতিক্রমী সেঞ্চুরি করলেন বুমবুম আফ্রিদি (৭০২১)



hacklink Paykwik Paykasa
Paykwik