২২ আগস্ট ২০১৯

দায়িত্ব গ্রহণের ৩ দিনের মাথায় শহীদ জিয়ার নাম মুছে ফেলার দাবি ইবি ছাত্রলীগের

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) দীর্ঘ ৮ মাস ছাত্রলীগের কার্যক্রম স্থগিত থাকার পর রোববার দুই সদস্য বিশিষ্ট কমিটির অনুমোদন দিয়েছে কেন্দ্রীয় সংসদ। দায়িত্ব গ্রহণের ৩ দিনের মাথায় শহীদ জিয়াউর রহমানের নাম থেকে শহীদ মুছে ফেলার দাবি জানিয়েছে শাখা ছাত্রলীগ। বুধবার দুপুর আড়াইটায় এই দাবিসহ পাঁচ দফা দাবিতে ভিসি অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারীর কাছে স্মারকলিপি প্রদান করে তারা।

স্মারকলিপি প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন প্রোভিসি অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা, বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি রবিউল ইসলাম পলাশ, সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল ইসলাম রাকিবসহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা।

পাঁচ দফা দাবিসমূহ হলো- ‘শহীদ জিয়াউর রহমান হলের নাম থেকে শহীদ শব্দটি বাদ দেয়া, ক্যাম্পাসে ছাত্রশিবিরের রাজনীতি নিষিদ্ধ করা, ক্যাম্পাসকে মাদকমুক্ত করা, একজন দক্ষ মনোবিজ্ঞানী নিয়োগ দেয়া ও মানসম্মত সুইমিং পুল নির্মাণ করা’।

এদিকে জিয়াউর রহমানের নাম থেকে শহীদ শব্দ মুছে ফেলার দাবিকে অযৌক্তিক ও হিংসাত্মক আখ্যা দিয়ে নিন্দা ও ক্ষোভ জানিছে বিএনপিপন্থী শিক্ষক সংগঠন জিয়া পরিষদ ও শাখা ছাত্রদল।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় জিয়া পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক ড. এম. এয়াকুব আলী বলেন, ‘এটি প্রতিহিংসার রাজনীতির লক্ষণ। জাতির জন্য এটা কখনোই শোভনীয় নয়। শহীদ প্রেসিডেন্ট শহীদ হয়েছেন কিনা সেটা ছাত্রলীগ থেকে জানার বিষয় না। জিয়াউর রহমানের জানাজায় দশ লক্ষ লোক উপস্থিত হয়ে তাকে শহীদ হিসেবে মেনে নিয়েছে। তাই ছাত্রলীগের মত ছাত্রসংগঠনের কাছ থেকে এমন অযৌক্তিক দাবি আশা করা যায় না।’


আরো সংবাদ




mp3 indir bedava internet