২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

জবিতে ছিনতাইয়ের অভিযোগ

-

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) ক্যাম্পাসের ভিতরে সোহরাওয়ার্দী কলেজের এক শিক্ষার্থীকে মেরে তার মোবাইল ও ম্যানিব্যাগ ছিনতাইয়ের অভিযোগ উঠেছে। গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবনের দিকে এ ঘটনা ঘটে। ছিনতাইয়ের স্বীকার সোহরাওয়ার্দি কলেজের ডিগ্রি ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী।
জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আকাশের সাথে দেখা করতে আসেন সোহরাওয়ার্দী কলেজের ছাত্র আলিফ। এ সময় জিয়ন, তূর্য ও শোভনসহ কয়েকজন ছাত্রলীগ কর্মী মিলে তাকে বেধড়ক মারধর করতে করতে বিশ্ববিদ্যালয় কলা ভবনের দিকে নিয়ে যায়। এসময় তার সাথে থাকা মোবাইল ও মানিব্যাগ রেখে দেয় ছিনতাইকারীরা। পরবর্তীতে গুরুতর অবস্থায় আলিফকে পুরান ঢাকার সুমনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
ছিনতাইয়ের স্বীকার আলিফ বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে আমি আমার ছোট ভাই আকাশের সাথে দেখা করতে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে আসি। বিশ্ববিদ্যালয়ের শান্ত চত্বরে আসলে সেখান থেকে ছাত্রলীগ কর্মী জিয়ন,তুর্য ও শোভন তাকে কলা ভবনের দিকে ডেকে নিয়ে যায়। সেখানে আলিফকে চোখ বেধে ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের অন্ধকার গলিতে নিয়ে মারধর করে তারা তার মোবাইল ও ম্যানিব্যাগ রেখে দেয়। পরবর্তীতে গুরুতর অবস্থায় আলিফকে পুরান ঢাকার সুমনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
কোতোয়ালী থানার ওসি মশিউর রহমান বলেন,এমন কোন ঘটনা আমার জানা নেই। আর এ ঘটনায় কোনো মামলা হয়নি।
ক্যাম্পাসে নিরাপত্তার বিষয়ে প্রক্টর নূর মোহাম্মদ বলেন, এ বিষয়ে আমার জানা নেই। ঘটনা জেনে এ বিষয়ে আগামী রোববার ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 


আরো সংবাদ