১৮ নভেম্বর ২০১৮

শিক্ষার্থীদের বুঝিয়ে ক্লাসে ফিরিয়ে নিতে নির্দেশ দিতে পারে শিক্ষা মন্ত্রণালয়

শিক্ষার্থীদের বুঝিয়ে ক্লাসে ফিরিয়ে নিতে নির্দেশ দিতে পারে শিক্ষা মন্ত্রণালয় - ছবি : সংগৃহীত

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে কলেজের প্রিন্সিপাল ও ভাইস প্রিন্সিপাল এবং স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও সহকারি প্রধান শিক্ষকদের সাথে বৈঠক করতে যাচ্ছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। আজ রোববার বিকেল তিনটা থেকে এ বৈঠক শুরু হয়েছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়নে। প্রথমে বিকেল ৩টা থেকে কলেজের ও পরে বিকেল ৫টা থেকে স্কুলের প্রধানদের সাথে এ বৈঠক শুরু হবে। এ বৈঠকে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব ও মহাপরিচালকসহ সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত রয়েছেন।

স্কুল ও কলেজের প্রধানদের সঙ্গে বৈঠকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানদের করণীয় সম্পর্কে দিক নির্দেশনা দেয়া হবে। করনীয় সম্পর্কে মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, আজ-কালের মধ্যে প্রতিষ্ঠান প্রধানরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানে বৈঠক করবেন। পরে অভিভাবকদের সাথেও প্রতিষ্ঠান প্রধানরা অনুরূপ বৈঠক করবেন। এ সব বৈঠকে, শিক্ষার্থীদের এখন ক্লাসে ফেরার আহবান জানানো হবে।

প্রতিষ্ঠান প্রধানদের সাথে বৈঠকে শিক্ষার্থীদের বুঝিয়ে ক্লাসে ফিরিয়ে নিতে নির্দেশ দেয়া হবে বলে মন্ত্রণালয়ের সর্বোচ্চ পর্যায়ের সূত্র নয়া দিগন্তকে জানান। অভিভাবকদের সাথেও বৈঠকে করতে বলা হবে। অভিভাবকদের তাদের সন্তানদের এ ব্যাপারে সতর্ক করতে বলা হবে। এর পরও নির্দেশ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে প্রাতিষ্ঠানিক ব্যবস্থা নেয়ার বিষয়টিকে দ্বিতীয় ও তৃতীয় পদক্ষেপ হিসেবে বিবেচনা করতে নির্দেশ দেয়া হবে।
এদিকে, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ আজ রোববার দুপুরে সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে শিক্ষা বিষয়ক সাংবাদিকদের সংগঠন ‘এডুকেশন রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশেন অব বাংলাদেশের (ইআরএবি)’-র নেতৃবৃন্দের সাথে আলাপকালে বলেন, শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফিরে যেতে হবে। ছাত্রদের দাবিগুলো যৌক্তিক। সরকার ছাত্রদের সব দাবি মেনে নিয়েছে। শিক্ষামন্ত্রী জানান, আজ (রোববার) বিকেলে কলেজ-স্কুল প্রধানদের সাথে বৈঠক ডাকা হয়েছে। বৈঠকে শিক্ষার্থীদের বুঝিয়ে ক্লাসে ফিরিয়ে নিতে প্রতিষ্ঠান প্রধানদের নির্দেশ দেয়া হবে। নতুন প্রজন্ম আমাদের চোখ খুলে দিয়েছে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ছাত্র-ছাত্রীদের আন্দোলন সবার কাছে গ্রহণযোগ্যতা পেয়েছে। কিন্তু হঠাৎ করে তাদের আন্দোলন চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে। অন্য কেউ তাদের ব্যবহার করছে। এমন পরিস্থিতিতে ছাত্ররা বিরূপ কোনো পরিস্থিতির সম্মুখীন হলে তারা দাবির জায়গা থেকে সরে যাবে। তিনি আরো বলেন, সরকার ছাত্রদের সব দাবি মেনে নিয়েছে। কিছু বাস্তবায়নও করেছে। বাকি কিছু দাবি বাস্তবায়ন করতে সময় লাগবে। শিক্ষার্থীর কাছে আহ্বান জানাই, তারা যেন নিয়মিত ক্লাসে ফিরে যায়।

ইআরএবি’-র সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান খান এবং সাধারন সম্পাদক সাব্বির নেওয়াজের নেতৃত্বে সংগঠনটির নির্বাহি কমিটির অধিকাংশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। ইআরএবি’-র নেতৃবৃন্দ পরে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ সাহরাব হোসাইনের সাথেও সাক্ষাৎ করেন। পৃথক দু’টি সাক্ষাৎকালে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরে শিক্ষার সাংবাদিকদের জন্য একটি মিডিয়া সেন্টার চালুর ব্যাপারে মত-বিনিময় করেন। মন্ত্রী ও সচিব এ ব্যাপারে সর্বাত্মক সহযোগিতা ও সমর্থন জানান। এ ব্যাপারে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহনে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর(মাউশ) মহা-পরিচালক অধ্যাপক মাহবুবুর রহমানকে নির্দেশ দেন।


আরো সংবাদ