২৫ আগস্ট ২০১৯
আজ পবিত্র শবেবরাত

পুণ্যার্জনের অনুপম উপলক্ষ

-

হিজরি বর্ষপঞ্জির শাবান মাসের ১৪ তারিখ দিবাগত রাতটি বিশেষ করে আমাদের এই উপমহাদেশে ‘শবেবরাত’ হিসেবে পালিত হয়ে থাকে। আজ দিন শেষে এই রজনী আবার পুণ্য অর্জনের বিরাট সুযোগ নিয়ে সমুপস্থিত হচ্ছে। পবিত্র এ রাতটি বিশ্বের মুসলমানেরা বিভিন্ন নামে পালন করে থাকেন।
হজরত আলী রা:-এর বর্ণিত একটি হাদিসে উল্লেখ করা হয়েছে, নবী করিম সা: বলেছেনÑ যখন শাবানের পঞ্চদশ রজনীর আগমন ঘটে, তখন তাতে কিয়াম অর্থাৎ ইবাদত করো, আর দিনে রোজা রাখো। নিঃসন্দেহে আল্লাহ তায়ালা সূর্যাস্তের পর থেকে প্রথম আসমানে বিশেষ জ্যোতি বর্ষণ করেন এবং বলেন, ‘আমার কাছে ক্ষমা প্রার্থনাকারী কেউ আছো কি? তাকে ক্ষমা করে দেবো। কেউ আছো কি জীবিকা প্রার্থনাকারী? তাকে জীবিকা দান করব। কেউ কি আছো বিপদগ্রস্ত? তাকে আমি বিপদ থেকে মুক্তি প্রদান করব। কেউ এমন আছো কি? কেউ কি এমন আছো?’ এভাবে, সূর্য উদয় হওয়া পর্যন্ত আল্লাহ তায়ালা তাঁর বান্দাদের আহ্বান জানাতে থাকেন।
কোনো কোনো আলেমের অভিমত, কুরআনুল কারিমে বরকতময় রজনী বা ‘লাইলাতুল মুবারাকাহ’ হিসেবে শবেবরাতের উল্লেখ রয়েছে। হাদিস শরিফে শবেবরাতকে ‘লাইলাতুন নিসফি মিন শাবান’; অর্থাৎ শাবান মাসের মধ্যরজনী হিসেবে অভিহিত করা হয়েছে। সূরা দুখানে আল্লাহ বলছেন, ‘আমরা এই কুরআনকে এক মহিমামণ্ডিত রাতে অবতীর্ণ করেছি। আমরা অবশ্যই সতর্ককারী। আমারই নির্দেশক্রমে ওই রাতে প্রতিটি প্রজ্ঞাপূর্ণ বিষয়ে ফয়সালা করা হয়। আর নিশ্চিতভাবে আমিই প্রেরণকারী।’ এই আয়াতকে সাধারণত শবেকদর সংশ্লিষ্ট মনে করা হয়। তবে যারা আয়াতটির অর্থকে সম্প্রসারিত করে শবেবরাতকে বুঝিয়ে থাকেন, তাদের বক্তব্য হলো, ‘মধ্য শাবানের এই রাতে পুরো কুরআন মজিদ বাইতুল মামুর থেকে দুনিয়ার আসমানে এসেছিল। তারপর লাইলাতুল কদরের রাতে এর প্রথমাংশ নাজিল হয়েছিল। শবেকদর বা লাইলাতুল কদরে আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের নির্দেশে প্রত্যেক প্রজ্ঞাময় বিষয় নির্ধারিত হয়।’ এভাবে এ দু’টি পবিত্র রজনীকে সম্পর্কিত করা হয়েছে।
শবেবরাতের উল্লেখ দেখা যায় ইমাম তিরমিজি বর্ণিত হাদিসেও। এতে বলা হয়েছে, এক রাতে মহানবী সা:-এর স্ত্রী হজরত আয়েশা রা: ঘুম থেকে জেগে গেলেন। কিন্তু নবী করিম সা:কে বিছানায় দেখতে পেলেন না। বিবি আয়েশা রা: তাই তাঁকে খুঁজতে বের হলেন। তিনি মহানবী সা:কে দেখতে পান গোরস্থানে। মুহাম্মদ সা: বললেন, ১৫ শাবান রাতে সর্বনি¤œ আকাশে আল্লাহ তায়ালা অবতরণ করেন এবং (আরবের) কালব গোত্রের ছাগলের গায়ের পশমের চেয়েও অধিকসংখ্যক মানুষকে তাদের কৃতকর্মের জন্য মাফ করে দেন।’ উল্লেখ্য, তখন কালব গোত্রটি ছাগল পালনের জন্য সুপরিচিত ছিল এবং তাদের মালিকানায় থাকত অসংখ্য ছাগল। ইমাম তিরমিজি জানিয়েছেন, হজরত আবু বকর রা:ও একই ধরনের হাদিস বর্ণনা করেছেন।
শবেবরাত সম্পর্কে কিছু ভ্রান্ত বিশ্বাস রয়েছে, কিছু ভুল আমলও অনেকে করে থাকেন এ উপলক্ষে। এসব থেকে বিরত থেকে সহি নিয়তে ও নিয়মে ইবাদত-বন্দেগির মধ্য দিয়ে শবেবরাত অতিবাহিত করাই মুমিন হিসেবে আমাদের সবার কর্তব্য। আলোকসজ্জা, আতশবাজি, গোরস্থানে আগরবাতি, বিশেষ আইটেমের খাবার উপভোগ, ইত্যাদি অর্থহীন ও অপচয়মূলক কাজ বর্জন করাই কল্যাণকর। শবেবরাত উপলক্ষে নামাজ-রোজার পাশাপাশি কায়মনোবাক্যে গাফুরুর রাহিমের কাছে নিজ নিজ গুনাহর জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করতে হবে। বিভিন্ন হাদিস থেকে জানা যায়, শিরক, পরশ্রীকাতরতা, মাতাপিতার অবাধ্যতা, আত্মীয়তার সম্পর্কছেদ, ব্যভিচার, মদপান বা নেশা করা প্রভৃতি কাজ করলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির দোয়া কবুল হবে না এ রাতেও। তাই বিশেষ করে, এসব জঘন্য অপকর্ম সম্পর্কে সাবধান থাকতে হবে।


আরো সংবাদ

সকল

জামালপুরের ডিসির নারী কেলেঙ্কারির ভিডিও ভাইরাল, ডিসির অস্বীকার (২৮৪৭৭)কাশ্মিরে ব্যাপক বিক্ষোভ, সংঘর্ষ (১৫২৬৫)কিশোরীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুললেন নোবেল (১৪৮৭৭)কাশ্মির প্রশ্নে ট্রাম্পের অবস্থান নিয়ে ধাঁধায় ভারত! (১৪৩৫০)৭০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে খারাপ ভারতের অর্থনীতি (১২৩৭৩)নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৮ : দুঘর্টনার নেপথ্যে মোটর সাইকেল! (১১৪৭১)নিজের দেশেই বিদেশী ঘোষিত হলেন বিএসএফ অফিসার মিজান (১১০৪৫)সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় ৪ বাংলাদেশী নিহত (১০৫১৬)কাশ্মির সীমান্তে পাক বাহিনীর গুলিতে ভারতীয় সেনা নিহত (৯৫০৯)চুয়াডাঙ্গায় মধ্যরাতে কিশোরীকে অপহরণচেষ্টা, মামাকে হত্যা, গণপিটুনিতে ঘাতক নিহত (৯৩৯৩)



mp3 indir bedava internet