১৩ নভেম্বর ২০১৯
১০ হাজার টাকা পর্যন্ত সার্ভিস চার্জ আদায় করা যাবে না

আমানত বাড়াতে হিসাব সংরক্ষণ চার্জ কমাল বাংলাদেশ ব্যাংক

-

নানা সার্ভিস চার্জের আড়ালে গ্রাহকের পকেট থেকে বাড়তি টাকা আদায় করার অভিযোগ উঠেছে কিছু ব্যাংকের বিরুদ্ধে। ব্যাংকে টাকা রেখে হিসাব সংরক্ষণ চার্জ পরিশোধেই চলে যাচ্ছে মুনাফার বড় একটি অংশ। এতে ব্যাংকিং খাতে কাক্সিক্ষত হারে আমানত বাড়ছে না। এমন পরিস্থিতিতে ব্যাংকিং চ্যানেলে আমানত বৃদ্ধি করতে হিসাব সংরক্ষণ ব্যয় কমিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এ জন্য বেঁধে দেয়া হয়েছে বিভিন্ন অঙ্কের আমানতের হিসাবের সার্ভিস চার্জ। এখন থেকে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত গড় আমানতকারীর অ্যাকাউন্ট থেকে হিসাব সংরক্ষণের জন্য কোনো সার্ভিস চার্জ আদায় করা যাবে না। এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে ব্যাংকগুলোর জন্য এক সার্কুলার জারি করা হয়েছে। এটি গতকালই সব তফসিলি ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীকে অবহিত করা হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, গ্রাহকের অ্যাকাউন্ট থেকে নানা সার্ভিস চার্জের নামে কেটে নেয়া হয় অর্থ। গ্রাহকের অজান্তেই ছয় মাস পর পর এ অর্থ কেটে নেয়া হয়। কোনো কোনো ব্যাংক সার্ভিস চার্জ আগে কেটে নিয়ে মোবাইলে খুদে বার্তার মাধ্যমে গ্রাহককে অবহিত করে। এ ক্ষেত্রে গ্রাহকের করার তেমন কিছুই থাকে না। একজন গ্রাহক বলেন, তার হিসাবে ১০ হাজার টাকা ছিল। বছর চারেক পরে দেখা গেল তার হিসাবে মূল টাকা কমে যাচ্ছে। পরে ব্যাংকে যোগাযোগ করে দেখা গেল অ্যাকাউন্ট পরিচালনার চার্জ বাবদ প্রতি বছরই একটি নির্ধারিত পরিমাণ ফি কেটে নেয়া হয়েছে। এতে যে পরিমাণ মুনাফা পাওয়া গেছে তার চেয়ে বেশি পরিমাণ চার্জ কেটে নেয়া হয়েছে। এর ফলে চার বছর পর তা মুনাফা পাওয়া তো দূরে থাক আসলই ফেরত পাওয়া কষ্টকর হয়ে পড়ে।

গ্রাহকের অ্যাকাউন্ট থেকে ব্যাংকের বেপরোয়া সার্ভিস চার্জ আদায়ের অভিযোগ নানা সময় বাংলাদেশ ব্যাংকের কাছে আসে। গ্রাহকের অ্যাকাউন্ট থেকে যাতে অতিরিক্ত সার্ভিস চার্জ আদায় করতে না পারে সে জন্য ব্যাংকগুলোর জন্য সার্ভিস চার্জ আদায়ের সীমা বেঁধে দিয়েছিল বাংলাদেশ ব্যাংক; কিন্তু তার পরেও কিছু কিছু ব্যাংকের বিরুদ্ধে নানা সার্ভিস চার্জের নামে অতিরিক্ত চার্জ আদায়ের অভিযোগ ওঠে।

এমন পরিস্থিতিতে বিশেষ করে আমানতকারীর অ্যাকাউন্ট থেকে বাড়তি সার্ভিস চার্জ আদায় করতে না পারে সে জন্য গতকাল এ বিষয়ে এক সার্কুলার জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগের মহাব্যবস্থাপক মো: রেজাউল ইসলাম স্বাক্ষরিত ওই সার্কুলারে বলা হয়েছে, ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত গড় আমানতকারীর অ্যাকাউন্ট থেকে কোনো সার্ভিস চার্জ আদায় করা যাবে না। আগে এ সীমা ছিল পাঁচ হাজার টাকা। আর ছয় মাস অন্তর ১০ হাজার এক টাকা থেকে ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত গড় আমানতের স্থিতির ক্ষেত্রে ১০০ টাকা, দুই লাখ টাকা পর্যন্ত সর্বোচ্চ ২০০ টাকা, ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত আড়াই শ’ টাকা এবং ১০ লাখ টাকার অধিক আমানতের ক্ষেত্রে ৩০০ টাকা হিসাব সংরক্ষণ ফি আদায় করা যাবে। এ ছাড়া চলতি হিসাব পরিচালনা ফি ছয় মাসে ৩০০ টাকা আদায় করা যাবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, সার্ভিস চার্জ কমানোর ফলে আমানতকারীরা উৎসাহিত হবেন, এতে আমানত আরো বেড়ে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে।


আরো সংবাদ

ছেলের নাম রেখে কর্মস্থলে ফিরছিলেন আল আমিন প্রথম বিশ্বযুদ্ধের বীর নরসিংদীর মিয়া চাঁনের স্বীকৃতি চায় পরিবার বিটিআরসি-অপারেটর দ্বন্দ্বে গ্রাহক সেবায় ভোগান্তি বিপুল আর্থিক ক্ষতিতে কোম্পানিগুলো আ’লীগ স্বাধীনতার প্রতিনিধিত্ব করে না : মওদুদ ভেজালবিরোধী অভিযান আরো জোরদার হবে : শিল্প প্রতিমন্ত্রী জাতীয় শ্রমিক লীগের নতুন নেতাদের সংবর্ধনা সিপাহি বিপ্লব না হলে আ’লীগের পুনঃজন্ম হতো না : লেবার পার্টি অনির্বাচিত সরকারের বিদায় হওয়া দরকার : আমীর খসরু কাউন্সিলর মঞ্জু অস্ত্র ও মাদক মামলায় রিমান্ড শেষে কারাগারে ৩ আইন কর্মকর্তার নিয়োগ প্রশ্নে রুল সংসদে রাঙ্গাকে তুলোধোনা বহিষ্কার দাবি

সকল