২৫ মে ২০১৯

ঋণ খেলাপিরা রাষ্ট্রীয় আনুগত্য পেয়ে অর্থনীতির ক্ষতি করছে : মেনন

ঋণ খেলাপিরা রাষ্ট্রীয় আনুগত্য পেয়ে অর্থনীতির ক্ষতি করছে : মেনন - সংগৃহীত

সরকারের অন্যতম শরিক ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি সাবেক মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেছেন, রাষ্ট্র যদি খেলাপি নীতি অনুসরণ করে তাহলে ঋণ খেলাপিরা সুবিধা নিবেই। বড় বড় ঋণ খেলাপিরা রাষ্ট্রীয় আনুগত্য পেয়ে অর্থনীতির ক্ষতি করছে।

রোববার লেনিনের ১৪৯ তম জন্ম বাষির্কীর এক আলোচনা সভায় ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি কমরেড রাশেদ খান মেনন একথা বলেন। জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত ওয়ার্কার্স পার্টি ঢাকা মহানগর কমিটির আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন নগর কমিটির সভাপতি আবুল হোসাইন। আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক ড. সুশান্ত দাস, অধ্যাপক ড. শফিকুজ্জামান প্রমুখ। অনুষ্ঠানের শুরুতেই কমরেড লেনিন এর উপর রচিত কবিতা আবৃত্তি করেন কমরেড মোস্তফা আলমগীর রতন। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন নগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক কমরেড কিশোর রায়।

মেনন আরো বলেন, রাষ্ট্রকে খেলাপি সংস্কৃতি থেকে মুক্ত হতে হবে। তাহলে ঋণ খেলাপিরা ঋণ নিয়ে পার পেতে পারবে না। ঋণ খেলাপি সংস্কৃতির কারণে প্রকৃত বিনিয়োগকারীরা ক্ষতিগ্রস্থ হয়। কৃষি উৎপাদনের জন্য কৃষকরা ক্ষুদ্র ঋণ নিয়ে বিপাকে পড়েন। কৃষকদের খেলাপি ঋণ আদায়ে সরকার কঠোরতম অবস্থান গ্রহণ করে থাকে এবং কৃষকদের নামে সার্টিফিকেট মামলা দায়ের করে, এতে করে অনেক কৃষক সর্বশান্ত হয়ে পড়ে। খেলাপি ঋণের ব্যাপারে সরকারকে সর্বক্ষেত্রে স্বচ্ছ ও কঠোর অবস্থান গ্রহণ করতে হবে।

মেনন বলেন, ‘কমরেড লেনিন এর অনুসৃত পথ ধরে ইউরোপের দূর্বলতম পুঁজিবাদী দেশ রাশিয়া রাজনীতি, অর্থনীতি ও সংস্কৃতির ক্ষেত্রে যে নজির স্থাপন করেছিলেন তা আজও সকলের কাছে স্মরণীয় হয়ে রয়েছে।’

তিনি বলেন, লেনিন আজও বিশ্ববাসীর কাছে প্রাসঙ্গিক, কারণ লেনিন রাজনীতি ও অর্থনীতির যে পথ অনুসরন করেছিল সেই পথেই মানুষের উপর মানুষের শোষণ, নিপীড়ন ও বৈষম্য দূর করা সম্ভব।

বর্তমান উদারনৈতিক পুঁজিবাদী বিশ্ব ব্যবস্থায় মানুষকে শোষণের দাসত্বের মধ্যে ফেলে দিয়েছে। এখান থেকে মানুষকে মুক্ত করতে হলে লেনিন এর কাছ থেকে আমাদের শিক্ষা গ্রহণ করতে হবে। লেনিন কোন গোড়ামিবাদে বিশ্বাসি ছিলেন না, তিনি ছিলেন সৃজনশীল রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব। লেনিন বিশ্বের শোষিত, নিপীড়িত ও বঞ্চিত মানুষের নেতা। তিনি পুঁজিবাদী শোষণ ও বৈষ্যমের বিরুদ্ধে লড়াই করে বিশ্বে প্রথম সমাজতান্ত্রিক বিপ্লব সংঘটিত করেন। যা আজও বিশ্বের দেশে দেশে অনুসরণ করে চলেছে।


আরো সংবাদ

ফুলতলা উপজেলা সমিতির ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত ছাত্র জমিয়ত বাংলাদেশের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত সমাজে জ্ঞানের গুরুত্ব কমে গেছে : সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী শেখ হাসিনা স্বপ্ন দেখেন এবং তা বাস্তবায়ন করেন : পানিসম্পদ উপমন্ত্রী ৭টি অবকাশকালীন বেঞ্চ গঠন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি জিনাত আরা ভ্যাকেশন জজ অধ্যাপক হারুন সভাপতি ডা: সালাম মহাসচিব দেশে যে কবরের শান্তি বিরাজ করছে : বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি দেশে অঘোষিত বাকশাল চলছে : চরমোনাই পীর প্রধানমন্ত্রী আজ গাজীপুরের কোনাবাড়ী ও চন্দ্রা ফ্লাইওভার উদ্বোধন করবেন রাজধানীতে হিযবুত তাহরীর নেতা গ্রেফতার শ্রমিকদের বোনাসের দাবি যাতে উপেক্ষিত না হয়

সকল




Instagram Web Viewer
agario agario - agario
hd film izle pvc zemin kaplama hd film izle Instagram Web Viewer instagram takipçi satın al Bursa evden eve taşımacılık gebze evden eve nakliyat Canlı Radyo Dinle Yatırımlık arsa Tesettürspor Ankara evden eve nakliyat İstanbul ilaçlama İstanbul böcek ilaçlama paykasa