২৬ মে ২০১৯

রেমিটেন্স এসেছে দেড় শ’ কোটি ডলার

রেমিটেন্স এসেছে দেড় শ’ কোটি ডলার - ছবি : সংগৃহীত

প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্স প্রবাহ বেড়েছে। সদ্য বিদায়ী মে মাসে প্রবাসীরা ব্যাংকিং চ্যানেলে ১৪৮ কোটি ২৮ লাখ ৫০ হাজার ডলার রেমিটেন্স পাঠিয়েছেন, যা একক মাস হিসাবে গত ৫ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ এবং ২০১৭ সালের মে মাসে পাঠানো রেমিটেন্সের চেয়ে ২১ কোটি ৫২ লাখ ৪০ হাজার ডলার বেশি। গত বছর মে মাসে প্রবাসীরা রেমিটেন্স পাঠিয়েছিলেন ১২৬ কোটি ৭৬ লাখ ডলার। এদিকে, এই বছরের এপ্রিল মাসে প্রবাসীরা ব্যাংকিং চ্যানেলে ১৩৩ কোটি ১৩ লাখ ৩০ হাজার ডলার রেমিটেন্স পাঠিয়েছেন। বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদনে এ তথ্য তুলে ধরা হয়েছে।
২০১৭-১৮ অর্থবছরের ১১ মাসে (জুলাই-মে) প্রবাসীরা পাঠিয়েছেন এক হাজার ৩৫৭ কোটি ৫১ লাখ ডলার। গত অর্থবছরের পুরো সময়ে রেমিটেন্স আসে এক হাজার ১৫৫ কোটি ৪৮ লাখ ৪০ হাজার ডলার।
বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদন অনুযায়ী প্রবাসীরা মে মাসে বেসরকারি ব্যাংকিং চ্যানেল ব্যবহার করে ১০৯ কোটি ৭৫ লাখ ৭০ হাজার ডলার রেমিটেন্স পাঠিয়েছেন।
রাষ্ট্রায়ত্ত ছয়টি বাণিজ্যিক ব্যাংক- অগ্রণী, জনতা, রূপালী, সোনালী, ব্যাসিক ও বিডিবিএল-এর মাধ্যমে এসেছে ৩৫ কোটি ৯৬ লাখ ডলার এবং রাষ্ট্রায়ত্ত বিশেষায়িত ব্যাংক, বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের মাধ্যমে এসেছে এক কোটি ২২ লাখ ৭০ হাজার ডলার।
রাষ্ট্রায়ত্ত বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর মধ্যে অগ্রণী ব্যাংকের মাধ্যমে ১৪ কোটি ৩২ লাখ ৩০ হাজার, জনতা ব্যাংকের মাধ্যমে ৮ কোটি ৬৭ লাখ ৫০ হাজার ডলার, রূপালী ব্যাংকের মাধ্যমে এক কোটি ৮৮ লাখ ৩০ হাজার ডলার, সোনালী ব্যাংকের মাধ্যমে এক কোটি ৫ লাখ ৭০ হাজার ডলার ও বেসিক ব্যাংকের মাধ্যমে ২ লাখ ২০ হাজার ডলার রেমিটেন্স এসছে।
এছাড়া, প্রবাসীরা বিদেশি বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এক কোটি ৩৪ লাখ ১০ হাজার ডলার রেমিটেন্স পাঠিয়েছেন।
প্রবাসীরা ২০১৭-১৮ অর্থবছরের জুলাইয়ে পাঠিয়েছেন ১১৫ কোটি ৫৫ লাখ ডলার। আগস্টে পাঠান ১৪১ কোটি ৮৬ লাখ ডলার। সেপ্টেম্বরে ৮৫ কোটি ৬৮ লাখ ডলার, অক্টোবরে ১১৫ কোটি ৯০ লাখ ডলার ও নভেম্বর মাসে ১২১ কোটি ৪৭ লাখ ডলার রেমিটেন্স পাঠিয়েছেন।
গত মে মাসে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে রেমিটেন্স এসেছে ৩৫ কোটি ৯৬ লাখ ডলার। বিশেষায়িত দু’টি ব্যাংকের মাধ্যমে রেমিটেন্স এসেছে এক কোটি ২২ লাখ ডলার। এছাড়া বেসরকারি ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে ১০৯ কোটি ৭৫ লাখ ডলার এবং বিদেশি ব্যাংকগুলোর মাধ্যমে এক কোটি ৩৪ লাখ ডলার এসেছে।
বেসরকারি বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর মধ্যে ইসলামী ব্যাংকের মাধ্যমে এসেছে ২৮ কোটি ৪২ লাখ ৫০ হাজার মার্কিন ডলার, ডাচ-বাংলা ব্যাংকের মাধ্যমে এসেছে ৮ কোটি ৭৯ লাখ ৮০ হাজার ডলার।


আরো সংবাদ

মীরবাগ সোসাইটির ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত জাতীয় কবি হিসেবে নজরুলের সাংবিধানিক স্বীকৃতি দাবি ন্যাপের নজরুলের জীবন-দর্শন এখনো ছড়াতে পারিনি জাকাত আন্দোলনে রূপ নেবে যদি সবাই একটু একটু এগিয়ে আসি কবি নজরুলের সমাধিতে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা সোনারগাঁওয়ে ব্যাংক এশিয়ার এজেন্ট শাখা থেকে ৭ লক্ষাধিক টাকা চুরি জুডিশিয়াল সার্ভিসের ইফতারে প্রধান বিচারপতি ও আইনমন্ত্রী ধর্মীয় শিক্ষার অভাবে অপরাধ বাড়ছে : কামরুল ইসলাম এমপি ৩৩তম বিসিএস ট্যাক্সেশন ফোরাম : জাহিদুল সভাপতি সাজ্জাদুল সম্পাদক নিহত ১২ বাংলাদেশী শান্তিরক্ষীকে সম্মান জানিয়েছে জাতিসঙ্ঘ রমজানে এ পর্যন্ত কোনো ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেনি : ডিএমপি কমিশনার

সকল




Instagram Web Viewer
agario agario - agario
hd film izle pvc zemin kaplama hd film izle Instagram Web Viewer instagram takipçi satın al Bursa evden eve taşımacılık gebze evden eve nakliyat Canlı Radyo Dinle Yatırımlık arsa Tesettürspor Ankara evden eve nakliyat İstanbul ilaçlama İstanbul böcek ilaçlama paykasa