১৮ আগস্ট ২০১৯

ফারহানা হোসেনের বারো গলি তেরো জাত

ফারহানা হোসেনের বারো গলি তেরো জাত - ছবি : সংগৃহীত

কবি ফারহানা হোসেনের বারো গলি তেরো জাত উপন্যাস অমর একুশে বইমেলায় প্রকাশিত হয়েছে।এটি লেখিকার প্রথম উপন্যাস। এ উপন্যাসে সাধারণ মানুষের জীবনের প্রতিচ্ছায়া উঠে এসেছে। লেখিকার আগেও দুটি বই নিষুপ্ত নিষাদউত্তরী হাওয়া নামে কাব্য প্রকাশিত হয়েছে।

উপন্যাস সম্পর্কে ফারহানা হোসেন বলেন, জীবনের অলিতে গলিতে নয়নতারার মতো ফুটে থাকে যে অসংখ্য জীবন তারই বয়ান এই বারো গলি তের জাত। মাত্র একটি দিনের বিবৃতিতে যেন ক্যানভাসে আঁকা হলো অনেকগুলো রঙের অনেকগুলো চরিত্র। কিছুটা খেই হারিয়ে ফেলতে হয়। আবার ঘুরে ফিরে একই গলিতে বসতবাটি বলে প্রত্যেকেই পারস্পরিক সম্পর্কে সংযুক্ত। সেই সংযোগের সূত্র ধরে এগিয়ে চলে গোটা একটা দিনের কাহিনী যা শেষমেশ বাঁক নিয়েছে এক চমক। যেখানে কাহিনীর ঝোপঝাড়ে হাঁটতে হাঁটতে হঠাৎ করে শেষদৃশ্যে পাঠক থমকে যাবেন।

উপন্যাসটি জাগৃতি প্রকাশনী প্রকাশ করেছে। প্রচ্ছদ করেছেন ধ্রুব এষ। বইটি একুশে বইমেলার স্টল- ২২৫, ২২৬, ২২৭ পাওয়া যাচ্ছে। বইটির মূল্য ১৫০ টাকা।

ফারহানা হোসেনের জন্ম ৩১ অক্টোবর। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০০১ সালে "আন্তর্জাতিক সম্পর্ক " বিভাগ থেকে এম এস এস ডিগ্রী অর্জন করেন ফারহানা হোসেন। দীর্ঘদিন কর্মরত আছেন "হোপ একাডেমি" নামক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জনসংযোগ পরিচালক পদে। এক পুত্র ও এক কন্যার জননী। স্বামী মোস্তাক হোসেন সেনাবাহিনীতে মেজর পদে কর্মরত।

মেধার বিকাশ সাধনে পড়াশোনার কোনো বিকল্প নেই, এই মতাদর্শে বিশ্বাসী তিনি। বইপড়া তার প্রিয় শখ। শরৎচন্দ্রের লেখার ভক্ত ফারহানা সামাজিক বিপ্লব ঘটাবার ক্ষেত্রে লেখাকেই প্রাধান্য দেন বেশি। তাই লেখালেখিতে যুক্ত থাকতে চান আজীবন


আরো সংবাদ

মিরপুরে বস্তির ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্য ও পুনর্বাসনের দাবী জামায়াতের গৃহবধূকে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগে স্বামী আটক হত্যার আগে শিক্ষিকা জয়ন্তীকে ধর্ষণ করে ছিলো ডিস লাইনম্যানরা ময়মনসিংহে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২ বাংলাদেশকে পরাশক্তি বানাতে চান ডোমিঙ্গো বাস-সিএনজি সংঘর্ষে একই পরিবারের ৬ জনসহ নিহত ৮ বিশ্বাস নেই, তাই ১০ কোটির প্রস্তাবে না শিল্পার পাকা না হওয়ায় রাস্তায় ধানের ‘চারা’ রোপণ করে এলাকাবাসীর প্রতিবাদ ঈদের ছুটি কাটাতে ভারতগামী যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড় বেনাপোলে বাবা-মাকে পিটিয়ে ১৩ বছরের মেয়েকে তুলে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ ‘কিছু বিষয় যেভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে, ওইভাবে আসলে কিছুই হয়নি’

সকল




bedava internet