২৪ জুলাই ২০১৯

তিউনিসিয়া থেকে দেশে ফিরলেন আরো ২০ জন

ভূমধ্যসাগরে ট্রলারে ভেসে থাকার পর তিউনিসিয়া উপকূল থেকে উদ্ধার ৬৪ বাংলাদেশীর মধ্যে আজও ২০ জন দেশে ফিরেছেন। বুধবার বিকেল ৫টা ২০ মিনিটে তারা কাতার এয়ারওয়েজের (কিউআর৬৩৪) একটি ফ্লাইটে ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাকি বিমানবন্দরে পৌঁছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শাহজালাল আন্তর্জাকি বিমানবন্দরে প্রবাসী কল্যাণ ডেস্কের সহকারী পরিচালক তানভীর আহমেদ। তবে বেসরকারি সংস্থা ব্র্যাক মাইগ্রেশন প্রোগ্রামের প্রধান শরীফুল হাসান জানিয়েছেন, আজ ফিরে আসাদের সংখ্যা ২৪ জন। তার তথ্যমতে, এর আগে মঙ্গলবার ১৫ জন এবং ২১ জুন ১৭ জন সহ মোট ৫৬ জন দেশে ফিরলেন। বাকীরা তিউনিসিয়াতেই আছেন।

জানা গেছে, বুধবার তিউনিসিয়া থেকে ফেরত আসা ২০ জনকে শাহজালাল আন্তর্জাকি বিমানবন্দর ইমিগ্রেশনে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। তাদের নাম ঠিকানা ভেরিফিকেশনের জন্য সংশ্লিষ্ট এলাকার থানায় বার্তা প্রেরণ করেছেন ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ। অন্যদিকে মঙ্গলবার তিউনিশিয়া থেকে ফেরত ১৫ কর্মীও এখনো (বিকেল নাগাদ তথ্য) ইমিগ্রেশনে অবস্থান করছেন।

তিউনিসিয়ায় বাংলাদেশের কোনো দূতাবাস নেই। লিবিয়াস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের কর্মকর্তারা তিউনিসিয়ায় গিয়ে সাগরে ভেসে থাকা কর্মীরা বাংলাদেশে ফিরে যাবে, এমন নিশ্চয়তা দিলে উপকূলে নামতে দেয় কর্তৃপক্ষ। ৬৪ বাংলাদেশীর মধ্যে এখনো কমপক্ষে ৮ জন তিউনিসিয়ায় রয়েছেন। তারা দেশে ফিরতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে বলে জানা গেছে। এ নিয়ে বিপাকে পড়েছেন বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষ।তবে, তাদেরকেও ফেরত পাঠানোর জন্য তিউনেশিয়া কর্তৃপক্ষ ও আইওএম-এর সাথে যোগাযোগ করছেন লিবিয়াস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস।

ব্র্যাক মাই‌গ্রেশন প্রোগ্রামের প্রধান শ‌রিফুল হাসান জানান, তিউনেশিয়া ভূমধ্যসাগর থেকে উদ্ধার হওয়া ৬৪ বাংলাদেশীর মধ্যে ২৬ জনই মাদারীপু‌রের। এছাড়া ব্রাহ্মণবা‌ড়িয়ার ১৫ জন, সিলেট ৮, শরীয়তপুর ৩,মৌলভীবাজার ৩, নোয়াখালী ২, চাঁদপুর ১, সুনামগঞ্জ ১,গাজীপুর ১, ঢাকা ১, নরসিংদী ১, ফরিদপুর ১ ও টাঙ্গাইল ১জন।


আরো সংবাদ




gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi