১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

হল-মার্কের বর্তমান হালচাল

হল-মার্কের বর্তমান হালচাল - সংগৃহীত

হলমার্ক গ্রুপের চেয়ারম্যান জেসমিন ইসলামের অসুস্থতার বিষয়ে কারা কৃর্তৃপক্ষের কাছে তার চিকিৎসা সনদ (মেডিকেল রিপোর্ট) চেয়েছেন হাইকোর্ট। মঙ্গলবার বিচারপতি  মোঃ  নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলম সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ তাকে কেন জামিন দেয়া হবেনা মর্মে জানতে চেয়ে জারি করা রুলের শুনানিতে এ আদেশ দেন।

আদালতে জেসমিন ইসলামের পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী আব্দুল মতিন খসরু। সরকার পক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল রুনা নাহরীন ও এ কে এ আমিন উদ্দিন। দুদকের পক্ষে ছিলেন খুরশীদ আলম খান।

শুনানিতে জেসমিন ইসলামের আইনজীবী জানান, তিনি (জেসমিন ইসলাম) অসুস্থ। এরপর আদালত কাশিমপুর কারা কর্তৃপক্ষের কাছে দুই সপ্তাহের মধ্যে তার মেডিকেল রিপোর্ট চেয়েছেন।

২০১৬ সালের ১ নভেম্বর জেসমিন ইসলামসহ ১৬ জনের বিরুদ্ধে রাজধানীর মতিঝিল থানায় মামলা করেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) উপ-সহকারী পরিচালক জয়নাল আবেদিন। ওইদিন বিকেলে তাকে দুদকের একটি দল রাজধানীর বংশাল থেকে গ্রেফতার করে। সোনালী ব্যাংক থেকে আনোয়ারা স্পিনিং মিলস ও ম্যাক্স স্পিনিং মিলসের হিসাবে বিলের সমপরিমাণ মূল্য ৮৫ কোটি ৮৭ লাখ ৩৩ হাজার ৬১৬ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে মামলাটি করা হয়।

এ মামলায় গত বছরের ১৭ আগস্ট বিচারিক আদালতে তার জামিন নামঞ্জুর হয়। এরপর তিনি হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেন। একই বছরের ৫ নভেম্বর এ মামলায় কেন তাকে জামিন দেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট। এ রুলের চূড়ান্ত শুনানিতে গতকাল হাইকোর্ট তার মেডিকেল রিপোর্ট চাইলেন।

উল্লেখ্য, সম্পদের হিসাব বিবরণী দাখিল না করার করার মামলায় গত ১১ জুলাই জেসমিন ইসলামকে তিন বছরের কারাদন্ড ও ২০ লাখ টাকা জরিমানা করে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত।


আরো সংবাদ