২২ নভেম্বর ২০১৯

অধিকার

-

পৃথিবীর ক্ষুদ্রতম কণাকে ভাঙলেও শব্দ হয়
কিন্তু আমাদের কান তা শোনে না।
শোনে না অনেক কিছু
অভিযোগের ঝোলাও পাহাড় আকার ধারণ করে
তবুও শোনে না কেউ নাগরিক ক্রন্দন!
আমার কবিতা কোনো সময়কে ধারণ করে না।
যা শনাক্ত করেছে তা কেবলই বলির পাঁঠা
ঘৃণার ঘোড়দৌড় বিপন্ন মানব জীবন
স্তূপকৃত হয় অযথা রাজাদের ভাষণে,
চৈতন্যের গান খিলান এঁটে বসে থাকে
মরুভূর বালিয়াড়ির অবচেতন বুকে।
তবু আমি বলতে চাই
ভালোভাবে বাঁচার অধিকার আমাদেরও আছে
নতুবা আমার অধিকারযুক্ত উচ্চারণটুকু
সশব্দে বাতাসে ভাসার অধিকার!


আরো সংবাদ

আজানের মধুর আওয়াজ শুনতে ভিড় অমুসলিমদের (২৫৪৫৭)ধর্মঘট প্রত্যাহার : কী কী দাবি মেনে নিয়েছে সরকার (২০৯৩৪)মানবতাকে জয়ী করেছে পাকিস্তান : রাবিনা ট্যান্ডন (১৯৪৬৭)কম্বোডিয়ায় কাশ্মির ইস্যুতে বক্তব্য, প্রতিবাদ করায় ঘাড় ধাক্কা দিয়ে বের করা হলো বিজেপি নেতাকে (১৯১৮৮)ব্যাংকে ফোন দিয়ে তদবির করে ‘ছাত্রলীগ সভাপতি’ আটক (৯৮৭১)আবারো রুশ-চীনা অস্ত্র কিনবে ইরান, আশঙ্কা যুক্তরাষ্ট্রের (৯৭৬৩)৪ ভারতীয়কে জাতিসঙ্ঘের সন্ত্রাসী তালিকাভূক্ত করবে পাকিস্তান (৯৫৮৪)৩৫ বর্গ কিলোমিটার এলাকা নিয়ে নেপাল-ভারত তুমুল বিরোধ (৯৩৪৩)গৃহশিক্ষক বিয়েতে বাধা দেয়ায় ছাত্রীর আত্মহত্যা (৯০৫০)ইলিয়াস কাঞ্চনকে যে কারণে সহ্য করতে পারেন না বাস-ট্রাক শ্রমিকরা (৯০১৪)