১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

গোয়ালন্দে সিমেন্ট ভর্তি কার্গো জাহাজ ডুবি

উদ্ধার হওয়া ৪ শ্রমিক -

রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দে পদ্মা নদীর দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটের কাছে সিমেন্ট ভর্তি একটি কার্গো জাহাজ ডুবির ঘটনা ঘটেছে। দৌলতদিয়া ইউনিয়নের ধল্লাপাড়া এলাকায় ২ হাজার ৬০ ব্যাগ বোঝাই একটি বলগ্রেড কার্গো (ছোট) জাহাজ ডুবে যায়। রোববার দুপুরের দিকে এ দূর্ঘটনা ঘটে। তবে এতে হতাহতের কোন ঘটনা ঘটেনি। জাহাজে থাকা ৪ জন শ্রমিক তীরে উঠতে সক্ষম হয়েছেন।

জানা যায়, নারায়নগঞ্জ থেকে আল্লাহর দান নামক কার্গো জাহাজটি ২ হাজার ৬০ ব্যাগ সিমেন্ট নিয়ে রাজবাড়ী শহরের দিকে যাচ্ছিল। জাহাজ ডুবির সঠিক কারণ জানা যায়নি। তবে একটি বিশেষ সূত্রে জানা যায়, ওই কার্গোটি ধীর গতিতে চলছিল। এ সময় পিছন থেকে আসা দ্রুত গতির অপর একটি জাহাজ তার পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় ধাক্কা লাগলে চালক জাহাজের নিয়ন্ত্রণ ঠিক রাখতে ব্যর্থ হলে এটি ডুবে যায়। ধাক্কা দেয়া জাহাজটি এ সময় দ্রুত গতিতে চলে যায়।

অপর একটি সূত্র জানায়, জাহাজটি দৌলতদিয়ার ঢল্লাপাড়া এলাকায় পৌছুলে তীব্র স্রোতে চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে এ দূর্ঘটনা ঘটে। তবে জাহাজে থাকা মো. সিরাজ মিয়া, মো. আ. জলিল, মো. ইব্রাহিম মিয়া ও মো. সিরাজুল ইসলাম স্থানীয়দের সহযোগীতায় পাড়ে উঠে আসলেও তারা জাহাজ ডুবির কারণ বলতে পারেনি।

জাহাজ ডুবির খবর পেয়ে দৌলতদিয়া নৌ-পুলিশ ও গোয়ালন্দ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে জাহাজটি উদ্ধারের চেষ্টা করেন। এ ব্যাপারে ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন ইনচার্জ আব্দুর রহমান জানান, সিমেন্ট বোঝাই কার্গোটি ডুবির ঘটনায় জাহাজে থাকা লোকজন তীরে উঠে এলেও জাহাজটি উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।

দৌলতদিয়া নৌপুলিশ ফাঁড়ির ওসি মো. লাবু মিয়া বলেন, জাহাজ ডুবির ঘটনায় কোন হতাহত হয়নি। তবে সিমেন্ট বোঝাই জাহাজটির এখনো কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি।


আরো সংবাদ