১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

গৃহবধূকে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগে স্বামী আটক

নরসিংদীর শিবপুরে জাকিয়া সুলতানা রনি (৩৫) নামে এক গৃহবধূকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগে তার স্বামী আলমগীর (৪০) কে আটক করেছে শিবপুর মডেল থানা পুলিশ। আটককৃত আলমগীর উপজেলার কুমরাদী গ্রামের করিম মিয়ার ছেলে।

নিহত গৃহবধূ জাকিয়ার বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে রোববার (১৮ আগস্ট) সকালে পুলিশ তাকে আটক করে।

নিহতের পরিবার ও পুলিশ জানায়, গত মঙ্গলবার (১৩ আগস্ট) রাতে কুমরাদী গ্রামের আলমগীরের স্ত্রী জাকিয়া সুলতানা রনি নিজ ঘরে অগ্নিদগ্ধ হয়। গুরুতর আহতাবস্থায় ঐ রাতেই তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করা হয়। চারদিন চিকিৎসাধীন থাকার পর শনিবার (১৭ আগস্ট) সকালে ওই গৃহবধূর মৃত্যু হয়। নিহত জাকিয়া দুই শিশু সন্তানের জননী।

নিহত গৃহবধূর স্বজনদের অভিযোগ, স্বামী আলমগীর পরিকল্পিতভাবে হত্যার উদ্দেশ্যে জাকিয়ার শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয়। হাসপাতালে চারদিন মৃত্যু যন্ত্রণায় ছটফট করে সে মারা যায়। ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহল অপচেষ্টা করছে বলেও জানান স্বজনরা। এ ঘটনায় নিহত জাকিয়ার পিতা সানোয়ার মিয়া স্বামী আলমগীরকে আসামী করে শিবপুর মডেল থানায় অভিযোগ দিয়েছেন।

শিবপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্লা আজিজুর রহমান জানান, নিহতের লাশ গ্রামের বাড়ীতে আনা হলে স্বজনদের অভিযোগের ভিত্তিতে স্বামী আলমগীরকে আটক করা হয়েছে। রোববার সকালে সহকারী পুলিশ সুপার (শিবপুর সার্কেল) মেজবাহ উদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তদন্ত করে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে অভিযুক্ত স্বামীর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরো সংবাদ