১৪ অক্টোবর ২০১৯

পাকুন্দিয়ায় স্কুলছাত্রী রিমা ধর্ষণ-হত্যার আসামিদের গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ-মানববন্ধন

-

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলার গাংধোয়ারচর গ্রামে স্কুলছাত্রী স্মৃতি আক্তার রিমার (১৪) ধর্ষক ও হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল, মানববন্ধন ও সড়ক অবরোধ কর্মসূচি পালন করেছে এলাকাবাসীসহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন।

আজ রোববার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে পিপুল ডেভেলপমেন্ট প্রসেস (পিডিপি), উপজেলা ধূমপান ও মাদক প্রতিরোধ কমিটি, উপজেলা অনার্স অ্যান্ড মাস্টার্স ছাত্র কল্যাণ সংগঠন ও এলাকাবাসীর আয়োজনে পৌরসদর ঈদগাহ গেটের সামনে পাকুন্দিয়া-ঢাকা সড়কে এসব কর্মসূচি পালন করা হয়।

সাড়ে ৯টা থেকে ঘন্টাব্যাপী অনুষ্ঠিত এ মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, পিডিপির চেয়ারম্যান আনম তানভীর হায়দার ভূঁইয়া, জনতা ব্যাংক লিমিটেড পাকুন্দিয়া শাখার ব্যবস্থাপক মো.আশরাফুল মোনায়েম, উপজেলা যুব মহিলালীগের সভাপতি সাহেরা আক্তার সাথী, নিহত রিমার মামা মুছলিম উদ্দিন, ছাত্রলীগ নেতা এমএস আল মামুন, সুজন দেওয়ান, সাকিবুল হাসান মুন্না ও মাহবুব আজাদ তন্ময় প্রমুখ। এসময় বিভিন্ন স্কুল কলেজের শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসীসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

মানববন্ধনে বক্তারা ঘটনার চার দিন পার হয়ে গেলেও এখনো কোনো আসামি গ্রেফতার না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, অবিলম্বে স্কুলছাত্রী রিমার ধর্ষক ও হত্যাকারীদের গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় আনতে হবে। অন্যথায় আরো কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে।

মানববন্ধন শেষে বিক্ষোভকারীরা কিশোরগঞ্জ-ঢাকা সড়ক অবরোধ করে রাখেন। এতে সড়কের উভয় পাশে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। পরে পাকুন্দিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: মফিজুর রহমান ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে অচিরেই আসামিদের গ্রেফতারের আশ^াস দিলে বিক্ষোভকারীরা অবরোধ তুলে নেন।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) পাকুন্দিয়া উপজেলার গাংধোয়ারচর গ্রামে স্কুলছাত্রী স্মৃতি আক্তার রীমা মায়ের সাথে অসুস্থ নানীকে দেখতে নানার বাড়িতে আসেন। বুধবার দিবাগত রাতে রিমা ঘর থেকে প্রকৃতির ডাকে টয়লেটে যায়। এসময় পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা রিমার প্রেমিক ও তার সঙ্গীরা রিমাকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণের পর হত্যা করে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে বাড়ির পশ্চিম পাশে পুকুর পাড়ের একটি বরই গাছের ডালে ঝুলিয়ে রাখে।

নিহত স্মৃতি আক্তার রীমা জেলার হোসেনপুর উপজেলার জামাইল গ্রামের মৃত আবুল হোসেনের মেয়ে। তিনি হোসেনপুর পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী ছিলো।


আরো সংবাদ




astropay bozdurmak istiyorum