২১ জুলাই ২০১৯

‘ওয়াটার ল্যান্ডে’ সাঁতার কাটছে কুকুর! (ভিডিও)

ভিডিও থেকে নেয়া ছবি -

নারায়নগঞ্জের ফতুল্লার পঞ্চবটিতে অবস্থিত বিনোদন কেন্দ্র অ্যাডভেঞ্চার ল্যান্ড পার্কের ‘ওয়াটার ল্যান্ডে’র পানিতে কয়েকটি কুকুরকে সাঁতার কাটতে দেখা গেছে। এই ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে বেশ সমালোচনা সৃষ্টি হয়।

গত বছরের ঈদ-উল-আযহার সময় অ্যাডভেঞ্চার ল্যান্ড পার্কে ‘ওয়াটার ল্যান্ড’ ইউনিটটি সংযুক্ত করা হয়। আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন নারায়নগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এএফএম এহতেশামূল হক। প্রায় সাড়ে সাত কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত এই ওয়াটার ল্যান্ডে তথা সুইমিং পুলে ছোট বড় মিলিয়ে একসাথে তিন থেকে চার হাজার মানুষ গোসল করতে পারবে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা।

এই ওয়াটার ল্যান্ডের প্রবেশ ফি নির্ধারণ করা হয় জন প্রতি ৩০০ টাকা। উদ্বোধনের দিন পার্কের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফজর আলী জানান, বাচ্চাদের জন্য রয়েছে আলাদা গোসল করার সু-ব্যবস্থা। সম্পূর্ণ নতুন আঙ্গিকে এ সুইমিং পুল বাংলাদেশের আর কোনো পার্কে নেই বলে দাবি কর্তৃপক্ষে। তবে উদ্বোধন পরপরই পার্কের এই নতুন সংযোজনটির ব্যবস্থাপনার বিষয়ে সমালোচনার মুখে পড়েন তারা।

গত ঈদে উপলক্ষে পার্কটিতে ভিড় করেন অনেকেই; কিন্তু বাড়তি এই চাপ সামলাতে গিয়ে অব্যবস্থাপনার পরিচয় দেয় পার্ক কর্তৃপক্ষ এমন অভিযোগ ওঠে। ওয়াটার ল্যান্ডের পানি ‘ময়লা, কালো ও দূর্গন্ধযুক্ত’ এমন অভিযোগ তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অনেকেই স্ট্যাটাস দিতে থাকেন। ওয়াটার ল্যান্ডের পানি নিয়মিত পরিবর্তন করা হয় না বলেও অভিযোগ তোলেন অনেকে।

এরই মধ্যে এবার নতুন করে সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে ওয়াটার ল্যান্ডের পানিতে কুকুর গোসল করার ঘটনায়। যা দর্শণার্থীদের জন্য তৈরি করবে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ। এই ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন অনেকে। আর এ বিষয়টির জন্য পার্ক কর্তৃপক্ষের অব্যবস্থাপনা ও উদাসীনতাকেই দায়ী করছেন সবাই।

তবে এ বিষয়ে পার্কটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. জসিম বলেন, ‘আসলে সুইমিং পুলের ওই অংশটা বাইরের দিকে। বাউন্ডারি দেওয়ালের ওইদিকে একটা পাইপ ছিল, ওই পাইপ দিয়ে বাইরে থেকে দুই-তিনটা কুকুর ভেতরে ঢুকে যায়। পরবর্তীতে আমাদের গার্ডরা দেখে কুকুরগুলোকে তাড়িয়ে দেয়। এটাই আবার কেউ ভিডিও করে ফেসবুকে ছড়িয়ে দিয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘এ ঘটনার পর আমি নিজে দাঁড়িয়ে থেকে পুলের পানি পরিবর্তন করেছি।’

 


আরো সংবাদ




gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi