২৩ জুলাই ২০১৯

ট্রাক টার্মিনালে পুত্র সন্তান প্রসব করলেন মানসিক ভারসাম্যহীন যুবতী

-

রাতের অন্ধকার কাটিয়ে ভোরের সূর্য্য যখন উকি দিচ্ছিল ঠিক সেই মুহূর্তে মানসিক ভারসাম্যহীন মা’ খোলা আকাশের নিচে এক ফুটফুটে পুত্র সন্তান প্রসব করেছেন। শিবালয়ের আরিচা ট্রাক টার্মিনাল অভ্যন্তরে বুধবার রাতে প্রসব বেদনায় কাতর এ পাগলীর আত্মচিৎকারে এগিয়ে আসেন এক পরিচ্ছন্নকর্মী। তিনি তাৎক্ষনিক কয়েক নারীকে ডেকে নিয়ে তাকে প্রসব করান।

প্রসবের পরে নব জাতককে দত্তক নিতে স্থানীয় অনেকেই আগ্রহ দেখালেও দীর্ঘদিন যাবৎ এ অঞ্চলে থাকা প্রায় ২২ বছর বয়সী মানসিক ভারসাম্যহীন অজ্ঞাত এ মা’য়ের পরিচয় কেউ জানে না। সন্তান প্রসবের পর প্রশাসনের সহায়তায় পাগলীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নবজাতককে পরিচর্যার জন্য রাখা হয়েছে ঐ পরিচ্ছন্ন কর্মীর কাছে।

পরিচ্ছন্নকর্মী জাহানারা বেগম জানান, নিয়মিত কাজের অংশ হিসেবে বাজার-ঘাট ঝাঁড়ু দিতে শেষ রাতে বাহির হই। ঐরাতে টারমিনাল ঢুকতেই পাগলীর কান্নার শব্দ শুনে এগিয়ে যাই। খোলা আকাশের নিচে সন্তান সম্ভাবনা পাগলী প্রসব বেদনায় কাঁদা মাটিতে গড়া-গড়ি দিতে দেখে ধাত্রী মেহেরুনসহ পাশের বাড়ির দু’মহিলাকে ডেকে নেই। অনেক চেষ্টার পর পাগলী একটি পুত্র সন্তান প্রসব করে। সকালে উৎসুক লোকজন তা দেখতে ভীড় জমায়।

এমন খবরে শিবালয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এএফএম ফিরোজ মাহমুদ ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। অসুস্থ্ পাগলীকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি ও নবজাতককে পরিচর্যার জন্য আর্থিক সহায়তা করে একটি সুন্দর নাম দেয়।

ফিরোজ মাহমুদ বলেন, রাতের অন্ধকার কাটিয়ে ভোরের সূর্য্য উকি দেয়ার সময় এ নবজাতকের জন্ম হওয়ায় তার নাম ‘সূর্য্য’ রাখা হয়েছে। সমাজসেবা অধিদপ্তরের মাধ্যমে এ শিশুকে ঢাকায় ছোট্রমনি নবজাতক সেইফ-হোমে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এ দিকে ‘সুর্য্য’ কে দত্তক নিতে আগ্রহ পোষনকারীদের আইনী প্রক্রিয়ার মাধ্যমে অগ্রসর হওয়ার জন্য পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

স্থানীয়দের দাবী, যে নরপশু মানসিক ভারসাম্য এ যুবতীর এহেন অবস্থা করেছে তাকে চিহ্নিত করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা নিতে হবে।


আরো সংবাদ

সকল




gebze evden eve nakliyat instagram takipçi hilesi