২০ জুন ২০১৯

৮ মাসের প্রেম, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ, অতঃপর...

মুন্সীগঞ্জ টঙ্গীবাড়ী উপজেলায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার (৬ জুন) ধর্ষক বখাটে শরীফ ঢালীকে গ্রেফতার করে টঙ্গিবাড়ী থানা পুলিশ।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, টঙ্গিবাড়ী উপজেলার হাসাইল এলাকার দশম শ্রেণির ছাত্রীর সাথে একই এলাকার বাদল ঢালীর ছেলে বখাটে শরীফ ঢালীর সাথে দীর্ঘ ৮ মাস ধরে প্রেম ও ভালবাসা চলে আসছিল।

শুক্রবার (২৪ মে) রাত ৯টার ধর্ষিতার বাড়ীর দক্ষিণ পাশে নির্জন জায়গায় প্রেমিক শরীফ ঢালী তার সাথে কথা আছে বলে নিয়ে যায়। এরপর বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ইচ্ছার বিরুদ্ধে তাকে ধর্ষণ করে। ঘটনাটি বখাটে শরীফ ঢালীর বন্ধু আনিছ জানতে পেয়ে সবাইকে জানান। এরপর ওই স্কুল ছাত্রী মুখলজ্জার ভয়ে কোন উপায় না দেখে শরীফ ঢালীকে বিয়ের জন্য বলে। শরীফ ঢালী তাকে বিয়ে করার কথা এড়িয়ে যায়।

পরবর্তীতে অসহায় দারিদ্র কৃষকের মেয়ে স্কুল ছাত্রী এলাকার গ্রাম্য মাতাব্বরের নিকট বিষয়টি জানানোর পরও কোন সুবিচার পায়নি। অবশেষে উপায় না পেয়ে রোববার (২৬ মে) টঙ্গীবাড়ী থানায় স্কুল ছাত্রী বাদী হয়ে মামলা করেন।

ধর্ষণের শিকার মেয়েটি জানান, শরীফ ঢালী আমাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রায় ৮ মাস ধরে প্রেমের সর্ম্পক গড়ে উঠে। পরবর্তীতে আমাকে নিয়ে সে বিভিন্ন জায়গায় বেড়াতে যায়। শুক্রবার (২৪ মে) সে আমার সাথে কথা আছে বলে আমার ইচ্ছার বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করে। তার সাথে যদি আমার বিয়ে না হয় তাহলে এই জীবন রেখে লাভ কি?

টংগীবাড়ি থানা সূত্রে জানা যায়, ঈদুল ফিতরের পরের দিন ধর্ষক শরীফ ঢালীকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। বর্তমানে সে জেলা কারাগরে রয়েছে।


আরো সংবাদ