২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯

রাস্তায় ধান ফেলে আগুন দিল কৃষকরা

ধানের ন্যায্য দাম না থাকায় কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর উপজেলার কৃষকেরা তাদের উৎপাদিত ধান রাস্তায় ফেলে আগুন দিয়েছে। রোববার (১৯ মে) সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত উপজেলার গোবিন্দপুর চৌরাস্তায় গোবিন্দপুর কৃষক অধিকার রক্ষা সংগ্রাম কমিটির আহ্বায়ক আলাল মিয়ার নেতৃত্বে এ এলাকার কৃষকরা এই কর্মসূচি পালন করেন।

এ সময় কৃষকেরা বিক্ষোভ মিছিলও করেন। বিক্ষোভ কর্মসূচি থেকে ন্যায্য মূল্য নিশ্চিতের লক্ষ্যে সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকে সরকারের প্রতি ধান কেনার দাবি জানান কৃষকেরা।

‘কৃষক বাঁচাও, দেশ বাঁচাও’ স্লোগানে অনুষ্ঠিত এই কর্মসূচিতে বক্তৃতার সময় কৃষকেরা জানান, প্রতি মণ ধান উৎপাদন করতে তাদের খরচ হয় ৮৫০ টাকা থেকে ৯০০ টাকা। সে চিন্তা করে সরকার প্রতি মণ ধানের বাজার মূল্য ১০৪০ টাকা নির্ধারণ করে দিলেও বাজারে প্রতি মণ ধান ৫০০ টাকা থেকে ৫৫০ টাকা দরে বিক্রি করতে হচ্ছে। এতে কৃষকের লোকসান দিতে দিতে তাদের মেরদণ্ড ভেঙ্গে যাচ্ছে।

স্থানীয় কৃষক আলী হোসেন বলেন, ‘আমরা যা উৎপাদন করি বিক্রি করতে গেলেই লোকসান দিতে হয়। আমাদের হাত থেকে তা চলে গেলে সেটিই কিনতে গেলে বেশি দামে কিনতে হয়।’

কৃষক গিয়াস উদ্দিন বলেন, সরকার ধানের দাম ১০৪০ টাকা নির্ধারণ করলেও আমরা সে দামে কোন ধান বিক্রি করতে পারছি না। সরকারের কাছে ধান বিক্রি করছে মিল মালিকরা। এ রকম হলে আমরা কার কাছে যাব?

কৃষকেরা জানিয়েছেন, কৃষকদের কাছ থেকে ধান কেনার কথা থাকলেও এ এলাকার ৬টি মিলের মালিকরা তা মানছেন না। তারা কৃষকদের কাছ থেকে ধান না কিনে ফড়িয়াদের মাধ্যমে ধান কিনছেন। এতে লাভবান হচ্ছেন মধ্যস্বত্বভোগীরা।

হোসেনপুর উপজেলা ধান-চাল সংগ্রহ কমিটির সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কমল কুমার ঘোষ জানান, বস্তার অভাবে এখনও ধান সংগ্রহ করা যাচ্ছে না, তবে মিলারদের মাধ্যমে চাল সংগ্রহ শুরু হয়েছে।


আরো সংবাদ

সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট মিজানুরের জামিন চেম্বারে স্থগিত মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলার আসামির জামিন বিদ্যালয় মাঠে বাণিজ্যিক স্থাপনা নয় : শিক্ষা উপমন্ত্রী খুলনায় ওসিসহ ৫ পুলিশের বিরুদ্ধে গণধর্ষণ মামলা আদালতে গৃহীত খাদ্য প্রক্রিয়াজাত কারখানা করতে চায় চীনা প্রতিষ্ঠান ভূমিসেবার হটলাইন উদ্বোধন ১০ অক্টোবর শুহাদায়ে কারবালা স্মরণে নূরানী রহমতি মাহফিল সৌদি আরবের জাতীয় দিবস উদযাপন টিভি উপস্থাপক ফারুকী হত্যা মামলায় তদন্ত প্রতিবেদন ৫ নভেম্বর বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশ সফল করতে ত্যাগ স্বীকারে প্রস্তুত থাকুন : এমরান সালেহ প্রিন্স ছাত্রলীগের দাবির মুখে ইবির প্রক্টর অপসারণ দায়িত্বে ড. পরেশ

সকল