২১ আগস্ট ২০১৯

সখীপুরে ফেসবুকে প্রশ্নপত্র ফাঁস : দুই শিক্ষকের কারাদণ্ড

প্রশ্নপত্রের ছবি তুলে ফেইসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে -

টাঙ্গাইলের সখীপুরে মোবাইল ফোনে এসএসসি পরীক্ষা চলাকালে প্রশ্নপত্রের ছবি তুলে ফেইসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে অভিযুক্ত পরীক্ষার্থীকে তথ্য প্রযুক্তি আইনে নিয়মিত মামলা, দায়িত্বে অবহেলার দায়ে দুই কক্ষ পরিদর্শককে ১ মাস করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও কেন্দ্রে মোবাইল ফোন রাখার দায়ে অপর পাঁচ শিক্ষককে ২০০ টাকা করে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সোমবার ইসলাম ও নৈতিক শিক্ষা পরীক্ষা চলাকালে সখীপুর পিএম পাইলট মডেল গভ. স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্রের ১নম্বর ভেন্যু সখীপুর পিএম পাইলট বালিকা বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সোমবার বিকেল তিনটায় ইউএনও কার্যালয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও ইউএনও মো. আমিনুর রহমান এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত দুই শিক্ষক হলেন, সখীপুর পিএম পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মোশারফ হোসেন ও ছোট মৌশা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিলুফা ইয়াসমিন। ওই দুই শিক্ষক সখীপুর পিএম পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ১নং ভেন্যুর ১৩নং কক্ষে পরিদর্শকের দায়িত্বে ছিলেন। অপরদিকে একই ভেন্যুতে মোবাইল ফোন রাখার দায়ে আরও পাঁচ শিক্ষককে ২০০ টাকা করে জরিমানা করে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এক্ষেত্রে দণ্ডপ্রাপ্ত হলেন, সাড়াসিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আবু তাহের, ইছাদিঘী উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ওয়াদুদ হোসেন, ঢনঢনিয়া ছোটচওনা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আবু সাঈদ তালুকদার, রাজাবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের দুই সহকারী শিক্ষক আবদুর রউফ ও আহসান হাবিব।

অন্যদিকে পরীক্ষা কেন্দ্রে মোবাইল ফোনে প্রশ্নপত্র ফাঁসে অভিযুক্ত সখীপুর পিএম পাইলট মডেল গভ: স্কুল এন্ড কলেজের পরীক্ষার্থী সাব্বির আহমেদ সজিবের বিরুদ্ধে ওই ভেন্যুর সহকারী সচিব মো. আনোয়ার হোসেন বাদী হয়ে সখীপুর থানায় তথ্য প্রযুক্তি আইনে নিয়মিত মামলা করেছেন।

সখীপুরের ইউএনও মো. আমিনুর রহমান জানান, প্রশ্নপত্র ফাঁস ও দায়িত্বে অবহেলার দায়ে দুই শিক্ষককে কারাদণ্ড অপর পাঁচ শিক্ষককে অর্থদণ্ড ও অভিযুক্ত পরীক্ষার্থীর বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা নেওয়া হয়েছে।


আরো সংবাদ




mp3 indir bedava internet