২২ এপ্রিল ২০১৯

রাজবাড়ীতে নাশকতা মামলায় ৭ বিএনপি নেতা গ্রেফতার

-

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি ও সরকারকে বেকায়দায় ফেলানোর লক্ষে নাশকতার পরিকল্পনার গোপন বৈঠক করছিল। এ সংবাদের ভিত্তিতে রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি থানা পুলিশ অভিযান চালায়। অভিযানে ককটেল ও পেট্রোল বোমাসহ বাংলাদেশ জামায়াত ইসলামীর ৪ নেতাকে গত ১৩ সেপ্টেম্বর গ্রেফতার করে। এ মামলায় বৃহস্পতিবার বিএনপির ৭ জন নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করে।

বালিয়াকান্দি থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) ওবায়দুল হক জানান, বালিয়াকান্দি উপজেলার বহরপুর ইউনিয়নের চরফরিদপুর গ্রামের মোঃ মফিজ উদ্দিন আহম্মেদের বসতবাড়ীতে গত ১৩ সেপ্টেম্বর বিকাল ৫টার দিকে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সরকারকে বেকায়দায় ফেলানোর উদ্দেশ্যে ও ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন করা, নাশকতামূলক কর্মকান্ড করার প্রতিশ্রুতি মুলক জামায়াত ইসলামির ২০-২৫জন সদস্যরা গোপন বৈঠকে সরকারী স্থাপনা, সড়কে, যানবাহনে হামলা করে দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করার লক্ষে গোপন বৈঠক করছিল। এ বৈঠক চলাকালে বালিয়াকান্দি থানার এস,আই নুর মোহাম্মদের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল অভিযান পরিচালনা করে।

অভিযান চালিয়ে ৩টি কসটেপ দিয়ে মোড়ানো ককটেল, ২৫০ এমএল পেট্রোল ( দাহ পদার্থ) কাচের বোতল ৪টি, বাঁশের লাঠি ৭টি উদ্ধার করে। বালিয়াকান্দি উপজেলা জামায়াত ইসলামীর সেক্রেটারী ও রাজবাড়ী জজ কোর্টের এ্যাডভোকেট মোঃ আব্দুর রাজ্জাক (৪২), চরবহরপুর গ্রামের আঃ রহমানের ছেলে বহরপুর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের জামায়াত ইসলামীর সেক্রেটারী মোঃ আল হেলাল (২৫), চরফরিদপুর গ্রামের মৃত জয়দার মন্ডলের ছেলে বহরপুর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড জামায়াত ইসলামীর আমির মোঃ মফিজ উদ্দিন আহম্মেদ (৬০) এবং গোহাইলবাড়ী গ্রামের মৃত শামসুল ইসলাম মোল্যার ছেলে বহরপুর ইউনিয়ন জামায়াত ইসলামীর সেক্রেটারী মোঃ হেদায়েত হোসেন মোল্যা (৫৩) কে গ্রেফতার করে। পুলিশের অভিযান টের পেয়ে অজ্ঞাতনামা ১৫-২০জন পালিয়ে যায়।

এব্যাপারে বালিয়াকান্দি থানার এস,আই নুর মোহাম্মদ বাদী হয়ে গ্রেফতারকৃত ৪জনসহ অজ্ঞাতনামা ১৫-২০জনকে আসামী করে বিস্ফোরক উপাদানাবলী আইন ১৯০৮ এর ৪/৬ তৎসহ বিশেষ ক্ষমতা আইন ১৫/২৫(ডি) ধারায় মামলা দায়ের করেছেন। এ মামলার সন্দিগ্ধ আসামী হিসেবে বৃহস্পতিবার উপজেলার বালিয়াকান্দি ইউনিয়নের চরআড়কান্দি গ্রামের পাচু মৃধার ছেলে ব্যবসায়ী শাহজাহান মৃধা (৪০), নবাবপুর ইউনিয়নের দুবলাবাড়ীয়া গ্রামের শহিদুল্লাহ মিয়ার ছেলে ব্যবসায়ী ও যুবদল নেতা শাহজাহান মিয়া (৪২), জামালপুর ইউনিয়নের লক্ষণদিয়া গ্রামের আজমল হোসেন মন্ডলের ছেলে ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর মন্ডল (৪৮), বালিয়াকান্দি গ্রামের ইয়াকুব আলী মোল্যার ছেলে ব্যবসায়ী ও উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি আক্তারুজ্জামান (৪২), পাইককান্দি গ্রামের দ্বীন মোহাম্মদের ছেলে কাজল শিকদার (৪০), খন্দকার সাহেব আলীর ছেলে খন্দকার বিপু (৪৫), নবাবপুর ইউনিয়নের দক্ষিণবাড়ী গ্রামের মোশারী মল্লিকের ছেলে মানিক মল্লিক (৩০) কে গ্রেফতার করা হয়। এরা সকলেই বিএনপির নেতাকর্মী।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস,আই জাকির হোসেন শুক্রবার সকালে গ্রেফতারকৃতদেরকে রাজবাড়ী আদালতে প্রেরণ করেছে।


আরো সংবাদ

শ্রীলঙ্কা হামলা সম্পর্কে চাঞ্চল্যকর তথ্য : বিস্ফোরণের আগে কী করছিল আত্মঘাতীরা! প্রেমিকের পরকীয়া : স্ত্রীর স্বীকৃতি না পেয়ে তরুণীর কেরোসিন ঢেলে আত্মহত্যা যে কোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় নিরাপত্তা বাহিনী সজাগ রয়েছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজবাড়ীতে বিকাশ প্রতারক চক্রের ৩ সদস্য গ্রেফতার শ্রীলঙ্কায় এবার মসজিদে হামলা ব্রুনাইয়ের সাথে বাংলাদেশের ৭টি চুক্তি স্বাক্ষর মানিকছড়ি বাজারে সিসি ক্যামেরা স্থাপনে সেনাবাহিনীর অনুদান শবেবরাতের নামাজের জন্য বেরিয়ে সহপাঠীদের হাতে খুন স্কুলছাত্র কলম্বিয়ায় ভূমিধসে ১৯ জনের প্রাণহানি উজিরপুরে লঞ্চচাপায় ডাব বিক্রেতার মৃত্যু : আটক ২ অভিনন্দনকে একটা বীর চক্র দিলেই সত্য পাল্টে যাবে না : পাকিস্তান

সকল




iptv al Epoksi boya epoksi zemin kaplama Daftar Situs Agen Judi Bola Net Online Terpercaya Resmi

Hacklink

Bursa evden eve nakliyat
arsa fiyatları tesettür giyim
Canlı Radyo Dinle hd film izle instagram takipçi satın al ofis taşıma Instagram Web Viewer

canli radyo dinle

Yabanci Dil Seslendirme

instagram takipçi satın al
hd film izle
gebze evden eve nakliyat