২০ নভেম্বর ২০১৮

এবার মুক্তিযোদ্ধা কোটায় এমপি মনোনয়ন দাবি!

সাংবাদিক সম্মেলনে আনিস উজ্জামান আনিস। - ছবি: সংগৃহীত

আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় এমপি মনোনয়ন দাবি করেছেন মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলা চেয়ারম্যান, জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আনিস-উজ-জামান আনিস।

মঙ্গলবার এক সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি এ দাবি করেন। এদিকে গত বুধবার বিকেলে মুন্সীগঞ্জ শহরের মুক্তিযাদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন সংলগ্ন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সড়কে দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে শোডাউন করেন আনিস-উজ্জামান আনিস। সেখানেও তার অনুসারীরা মুক্তিযোদ্ধা কোটায় হলেও তাকে এমপি মনোনয়ন দেয়ার দাবি জানান।

মুন্সীগঞ্জ-৩ (মুন্সীগঞ্জ-গজারিয়া) আসন থেকে এবার মনোনয়ন চান মুক্তিযোদ্ধা আনিস উজ্জামান আনিস।

বুধবার শোডাউন শেষে এক আলোচনা সভা করা হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন- মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আফসার উদ্দিন ভূইয়া। এতে আলোচনা করেন- গজারিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সোলায়মান দেওয়ান ও সাধারণ সম্পাদক আমিরুল ইসলাম।

আলোচনা সভায় আনিস-উজ-জামান বলেন, আমি ১৯৬৫ সাল থেকে ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত। ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে মুজিব বাহিনীর মহকুমা কমান্ডার হিসেবে মুক্তিযুদ্ধ করি। পরবর্তীতে একবার মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার চেয়ারম্যান ও দুইবার সদর উপজেলার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হই। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আমি মুক্তিযোদ্ধা কোটায় মনোনয়ন চাই।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, নেত্রীর নির্দেশের বাইরে আমি যাব না। আমি দলে বিশ্বাসী। দল মনোনয়ন না দিলে আমি বিদ্রোহী প্রার্থী হব না। মুন্সীগঞ্জে প্রায় ছয় হাজার মুক্তিযোদ্ধা আমার সঙ্গে আছেন। তারা আশাবাদী আমি মুক্তিযোদ্ধা কোটায় মনোনয়ন পাব। মনোনয়ন পেলে আমি মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাব।

উল্লেখ্য, আনিছ-উজ্জামান আনিছ ২০০৮ সালের নির্বাচনে তৃণমূলের ভোটে প্রথম হয়েছিলেন এবং তিনি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মহিউদ্দিনের ছোট ভাই।


আরো সংবাদ