১৯ নভেম্বর ২০১৮

ব্যতিক্রমী ‘ভেলারবাইচে’ মুগ্ধ 

ব্যতিক্রমী এই প্রতিযোগিতা দেখতে শত শত মানুষ খালের দুই পাশে ভিড় করে। - ছবি: নয়া দিগন্ত

মাদারীপুরে হয়ে গেল কলাগাছের ভেলার ব্যতিক্রমী বাইচ প্রতিযোগিতা। বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজৈর উপজেলার বাজিতপুর ইউনিয়নের সাধুর খালে স্থানীয় যুবসমাজের উদ্যোগে এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

বৃহস্পতিবার দুপুর থেকেই সাধুর খালের পাড়ে ব্যতিক্রমী এই ভেলা বাইচের প্রতিযোগিতা দেখতে জড়ো হয় দূরদূরান্ত থেকে আসা শিশু-কিশোরসহ সব বয়সের বিপুলসংখ্যক মানুষ। দর্শকেরা নৌকায় চড়ে, খালের পাড়ে ও ব্রিজের ওপরে দাঁড়িয়ে উপভোগ করেন আনন্দঘন এই প্রতিযোগিতা। তাছাড়া এই বাইচ উপলক্ষে খালের পাশে বসে গ্রাম্য মেলা।

আয়োজক সংগঠন সূত্রে জানা গেছে, এলাকাবাসীর মধ্যে ভিন্নমাত্রার আনন্দ দিতে তারা কলাগাছের তৈরি ভেলার ব্যতিক্রমী এই বাইচের আয়োজন করে। এই প্রতিযোগিতায় অংশ নেন আশপাশের গ্রাম ও জেলার প্রতিযোগীরা। বাইচে ৫ ভাগে ৫৩টি দল অংশ নেয়।

চূড়ান্ত পর্বে কার্তিক বৈদ্য ভেলা প্রথম হয়। এছাড়া উপজেলার আমগ্রাম থেকে আসা কৃষ্ণ করাতির ভেলা দ্বিতীয় ও তৃতীয় হয় জগদীশ ভক্তের ভেলা। প্রতিযোগিতায় পুরস্কার হিসেবে প্রথম দলকে ২১ ইঞ্চি রঙিন টেলিভিশন ও বাকি দুই দলকে পুরস্কার হিসেবে মোবাইল ফোন দেয়া হয়।

ভেলাবাইচে প্রথম হওয়া কার্তিক বৈদ্য বলেন, প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে আমি চারটি কলাগাছ কেটে একটি ভেলা তৈরি করেছি। ভেলায় আমরা পাঁচজন ছিলাম। প্রতিযোগিতায় প্রথম হতে পেরে খুব আনন্দ লাগছে।

চৌরাশি যুবসমাজের আহ্বায়ক ও ভেলাবাইচ প্রতিযোগিতার উদ্যোক্তা প্রশান্ত মন্ডল বলেন, আমরা আগে এই এলাকায় নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতার আয়োজন করতাম। এখানকার বিলে ও খালে আগের মতো পানি নেই। কম পানিতে নৌকাবাইচের আয়োজন করা সম্ভব নয়। তাই এবারই এই খালে ব্যতিক্রমী ভিন্ন আয়োজন করেছি। দর্শনার্থীদের ভিড় আমাদের মুগ্ধ করেছে। ভবিষ্যতে এই আয়োজনকে আরও বড় পরিসরে করতে চাই।

 


আরো সংবাদ