২১ আগস্ট ২০১৮

ফখরুল বেপরোয়া গাড়ী চালকের মতো হয়ে গেছেন : ওবায়দুল কাদের

ওবায়দুল কাদের - সংগৃহীত

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি এবং ফখরুল বেপরোয়া গাড়ি চালকের মত বেপরোয়া হয়ে গেছেন। তারা গত ৯ বছরে ৯ মিনিটের আন্দোলন করতে পারেনি। তারা কোটা আন্দোলনের উপর ভর করে ব্যর্থ হয়েছে। ছাত্র-ছাত্রীদের আন্দোলনেও ভর করে ব্যর্থ হয়েছে, নিরাপদ সড়কের আন্দোলনের উপর ভর করেও সফলতার মুখ দেখেনি। তাই আন্দোলনে হতাশ বিএনপি নেতাকর্মীদের চাঙ্গা করার জন্য সরকারের বিরুদ্ধে বিষোদগার করছে।
মন্ত্রী শুক্রবার বিকালে গাজীপুরের চন্দ্রা ত্রিমোড় এলাকায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ ও চালকদের গাড়ির কাগজপত্র পরীক্ষার অভিযান শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।
মন্ত্রী আরো বলেন বিআরটিএতে লাইসেন্স গ্রহণ ও লাইসেন্স নবায়নসহ বিভিন্ন সেবা গ্রহনের জন্য মানুষের ভিড় বেড়েছে। বিআরটিএ'র সেবা গ্রহণের সুবিধার্থে টাকা জমা দেয়ার দুর্ভোগ লাঘবের জন্য মোবাইল ব্যাংকিং চালু করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।
এ সময় মন্ত্রীর সঙ্গে ঢাকা বিভাগীয় তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী সবুজ উদ্দিন খান, সাসেক প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মো. ইসহাকসহ সড়ক বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

‘শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে বিশৃঙ্খলাকারী চিহ্নিত হয়েছে’
পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বলেছেন, নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের আড়ালে যারা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করেছে তাদের অনেকেই চিহ্নিত হয়েছে।
তিনি বলেন, এই অনুপ্রবেশকারীদের কোন ছাড় দেয়া হবে না। তাদের প্রত্যেককেই আইনের আওতায় আনা হবে।
তিনি আজ শুক্রবার দুপুরে চাঁদপুরে পুলিশ লাইনস মসজিদ, মহিলা পুলিশ ব্যারাক এবং নতুনবাজার পুলিশ ফাঁড়ি ভবনের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন। বাসস
এসময় চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজ খন্দকার গোলাম ফারুক, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ওচমান গনি পাটওয়ারী, চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক মো. মাজেদুর রহমান, পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার, প্রেসক্লাব সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটওয়ারীসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
আইজিপি বলেন, যারা বিশৃঙ্খলা করেছে তাদেরকে আমরা নিশ্চিতভাবে চিহ্নিত করেছি। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এছাড়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়ানোর দায়ে বেশ কয়েকটি মামলা করা হয়েছে।
তিনি বলেন, এসব ঘটনায় বেশ কয়েকজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং অনেককে পুলিশ হেফাজতে আনা হয়েছে।
পুলিশ প্রধান বলেন ,যারা অরাজকতা করেছে তাদের প্রত্যেককে চিহ্নিত করা হচ্ছে। এছাড়া যারা উস্কানিদাতা তাদেরকেও চিহ্নিত করা হচ্ছে।

‘নির্বাচন কমিশনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার অপচেষ্টা করছে বিএনপি’
আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, ‘আগামী ডিসেম্বর মাসে জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন সুষ্ঠু হবেনা এমন অবান্তর অভিযোগ তুলে এখন থেকেই বিএনপি ও তার দোসররা নির্বাচন কমিশনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার অপচেষ্টা চালাচ্ছে।’
জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আজ শুক্রবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা মূলগ্রাম ইউনিয়নের চারগাছ কলেজ মাঠে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ আয়োজিত শোক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আনিসুল হক একথা বলেন। বাসস
বিএনপি-জামায়াতকে দেশের মানুষ প্রত্যাখ্যান করেছে উল্লেখ করে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘সম্প্রতি বাস চাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ায় ছাত্ররা আন্দোলন করেছে। তারা নিরাপদ সড়ক পরিবহন আইনের দাবি তুলেছে। তাদের যৌক্তিক আন্দোলনকে আমরা সমর্থন দিয়েছি এবং দাবি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ইতোমধ্যেই সড়ক পরিবহন আইন মন্ত্রীসভায় অনুমোদন দেয়া হয়েছে।’
আনিসুল হক বলেন, ‘বিএনপি-জামায়াত ও তাদের দোসররা ছাত্রদের ওই আন্দোলনে উত্তাপ দিয়ে সরকার পতন করার অপচেষ্টা করেছিলো।’
বঙ্গবন্ধু বিশাল হৃদয়ের মানুষ ছিলেন উল্লেখ করে আইনমন্ত্রী বলেন, “আমার বাবা ছিলেন বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ বন্ধু। ষাটের দশকে এক মামলায় বিচারক বঙ্গবন্ধুকে উদ্দেশ্য করে বিভিন্ন ফৌজদারী অপরাধের ফিরিস্তি গেয়েছেন। আমার বাবা তাঁকে শেখালেন ওই সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে নিজেকে নির্দোষ দাবি করতে। বিচারক আবার তাঁকে জিজ্ঞেস করায় তিনি বলেন, যা করেছি বেশ করেছি। আমার বাংলার মানুষের জন্য আমি আরো করবো। এই হলো বঙ্গবন্ধু। কখনো অন্যায়ের সঙ্গে আপোষ করেননি।”
বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনাও কোনো অন্যায়ের সঙ্গে আপস করবেন না উল্লেখ করে আনিসুল হক বলেন, ‘তিনি বাংলাদেশকে একটি উন্নত জাতি হিসেবে সারা বিশ্বে পরিচয় করিয়েছেন। ইনশাআল্লাহ তাঁর নেতৃত্বেই ২০৪১ সালে বাংলাদেশ হবে পৃথিবীর একটি উন্নত রাষ্ট্র।’
মূলগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মো.শাহ আলমের সভাপতিত্বে শোক সভায় উত্তরা গ্রুপের চেয়ারম্যান মতিউর রহমান, উপজেলা চেয়ারম্যান আনিসুল হক, আওয়ামী লীগের যুগ্ন-আহবায়ক এমজি হাক্কানী, কাজী আজহারুল ইসলাম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহীন সুলতানা, মূলগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান মো.মাইনুল ইসলাম, কসবা পৌর কাউন্সিলর আবু জাহের, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মনির হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক আফজাল হোসেন রিমন।

 


আরো সংবাদ