মঙ্গলবার, ১৯ জুন ২০১৮
বেটা ভার্সন

পুলিশের ধাওয়ায় পিকআপ চাপায় দুই নারীর মৃত্যু

দুর্ঘটনায় প্রতিবাদে বিক্ষোভ - নয়া দিগন্ত

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার চান্দিনায় পুলিশের ধাওয়ায় পিকআপ চাপায় রিক্সা আরোহী দুই নারীর মৃত্যু ঘটেছে। ঘটনার পরপর পুলিশের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে মহাসড়কে বৈদ্যুতিক খুঁটি ফেলে অবরোধ করে বিক্ষুদ্ধ রিক্সা চালক ও এলাকাবাসী। তাৎক্ষণিক ভাবে নিহত দুই নারীর নাম ও পরিচয় পাওয়া যায়নি।
বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চান্দিনা পালকি সিনেমা হলের সামনে এ ঘটনা ঘটে। প্রায় এক ঘন্টা মহাসড়ক অবরোধের পর পুলিশ ফাঁকা গুলি ও লাঠিচার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে এবং যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। এসময় আবুল হোসেন (৩৮) ও কাউসার হোসেন (২২) নামে দুই অবরোধকারীকে আটক করে পুলিশ।
জানা যায়, সড়ক ও সেতু মন্ত্রী আগমনের বার্তায় মহাসড়ক যানজট মুক্ত রাখতে এবং থ্রিহুইলার চলাচল বন্ধ রাখতে দায়িত্বে ছিল হাইওয়ে পুলিশ। দুপুর সোয়া ১২টায় চান্দিনা বাস স্টেশন থেকে দুই নারী যাত্রীকে নিয়ে হাড়িখোলা যাচ্ছিল ব্যাটারী চালিত একটি রিক্সা। ওই রিকসা চান্দিনা পালকি সিনেমা হল সংলগ্ন স্থানে পৌঁছার পর হাইওয়ে পুলিশের এক সদস্য রিক্সাটিকে ধাওয়া করে। এ সময় পিছন থেকে আসা একটি বালু বোঝাই পিকআপ এর সাথে ধাক্কায় পিকআপ ও রিক্সা উল্টে ঘটনাস্থলে রিক্সা যাত্রী নারী (৪৫) নিহত হয়। অপর নারী যাত্রী (৩০) কে গুরুতর অবস্থায় চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
এসময় রিক্সা চালক, পিকাপ চালক ও তার ভাই গুরুতর আহত হয়। আহতদের কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আহতদের মধ্যে দেবিদ্বার উপজেলার আসাদনগর গ্রামের বিধান চন্দ্র দাস এর ছেলে অতিন চন্দ্র দাস (২২) এর অবস্থা আশঙ্কাজনক।


আরো সংবাদ