Naya Diganta

ইবির ভর্তি পরীক্ষার ফল ‘কাঠবিড়ালে’

ইবি সংবাদদাতা

০৭ ডিসেম্বর ২০১৭,বৃহস্পতিবার, ১৪:৩৮


কাঠবিড়াল লিংক

কাঠবিড়াল লিংক

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার ফলাফল কাঠবিড়ালে (iu.kathbiral.company) ক্লিক করে দেখা যাচ্ছে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েব সাইটের সার্ভারে সমস্যা দেখা দেয়। বিকল্প হিসেবে উক্ত লিঙ্কটি ব্যবহারের জন্য ইবি কম্পিউটার সেন্টারের বরাত দিয়ে ফেসবুকে পোস্ট করে বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন কর্তাব্যক্তি। তবে এখন iu.ac.bd থেকে সকল তথ্য পাওয়া যাচ্ছে বলে দাবি করেছেন কম্পিউটার সেন্টারের পরিচালক প্রফেসর ড. পরেশ চন্দ্র বর্ম্মন।

২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের প্রথমবর্ষ ভর্তি পরীক্ষা ভালোভাবেই শেষ হচ্ছিল। তবে শেষ হয়েও হইল না শেষ। শেষ দিনে মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভূক্ত ‘সি’ ইউনিটের পরীক্ষায় প্রশ্ন পত্রে সমস্যায় মর্মাহত ইবি পরিবার। চলছে নানা ধরণের সমালোচনা। প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ‘সি’ ইউনিটের ঘটনা অনুসন্ধানে কোন তদন্ত কমিটি গঠিত হয়নি। এনিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও মন্তব্য করছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের দায়িত্বশীল শিক্ষকেরা। ঘটনার সঠিক তদন্ত চান তারা।

‘সি’ ইউনিট নিয়ে সমালোচনার মধ্যেই বিশ্ববিদ্যালয়ের বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই ইবির ওয়েব সাইটে সমস্যা দেখা দেয়। কোন ভাবেই ওয়েব সাইটে প্রবেশ করা যাচ্ছিল না। রেজাল্টসহ গুরুত্বপূর্ণ তথ্যের জন্য ওয়েব সাইটকে ব্যবহার করতে না পেরে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে কর্তপক্ষের কাছে অভিযোগ আসেত থাকে। এরপর রেজাল্ট দেখার সমস্যা তাৎক্ষণিক সমাধানের জন্য (iu.kathbiral.company) লিঙ্কটি ব্যবহারের কথা জানায় প্রশাসন। এ সংক্রান্ত একটি পোস্ট ফেসবুকে নিজের টাইম লাইনে দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনফরমেশন এন্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোঃ জসিম উদ্দিন। তিনি পোস্টটি বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ শিক্ষককে ট্যাগ করেন।

কম্পিউটার সেন্টারের পরিচালক প্রফেসর ড. পরেশ চন্দ্র বর্ম্মন বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েব সাইটের সাময়িক সমস্যা দেখা দিয়েছিল। আমারা তাৎক্ষণিক একটি কম্পানির সাথে যোগাযোগ করে (iu.kathbiral.company) এই লিঙ্কটি ভাড়া করেছিলাম। তবে এখন iu.ac.bd থেকে সকল কাজ স্বাভাবিকভাবে করা যাচ্ছে।

Logo

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,    
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫