Naya Diganta

পুলিশকে সহযোগিতা না করার মামলায় তাহমিদ হাসিব খানের বিরুদ্ধে রায় ৬ এপ্রিল

আদালত প্রতিবেদক

২১ মার্চ ২০১৭,মঙ্গলবার, ০০:২৯


পুলিশের নোটিশের আলোকে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা না করার অভিযোগে ভাটারা থানায় দায়ের করা মামলায় কানাডার টরেন্টো বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী তাহমিদ হাসিব খানের বিরুদ্ধে রায় দেয়া হবে ৬ এপ্রিল। গতকাল ঢাকার মহানগর হাকিম মাহমুদুল হাসানের আদালতে রাষ্ট্রপক্ষ ও আসামিপক্ষ যুক্তিতর্ক শুনানি উপস্থাপন শেষে আদালত রায়ের জন্য ওই তারিখ ধার্য করেন।
যুক্তিতর্ক শুনানিকালে তাহমিদ হাসিব খানের আইনজীবী মতিউর রহমান বলেন, কেবল হয়রানি করার জন্য এ মামলায় তাকে জড়িত করা হয়েছে। পুলিশ যে নোটিশ দিয়েছে সে নোটিশের আলোকে তথ্য দেয়ার পরেও মিথ্যা অভিযোগে নন প্রসিকিউশনের মামলা করা হয়েছে। রাষ্ট্রপক্ষ মামলা প্রমাণে ব্যর্থ হয়েছে।
গত ১৪ মার্চ তাহমিদ হাসিব খান নিজেকে মামলার অভিযোগ থেকে অব্যাহতি পাওয়ার জন্য সম্পূর্ণ নির্দোষ দাবি করেছিলেন। সেদিন আদালত ২০ মার্চ যুক্তিকর্ত শুনানির জন্য তারিখ ধার্য করেন।
মামলার নথি থেকে জানা যায়, গত বছরের ৩ আগস্ট হলি আর্টিজানে হামলার ঘটনায় সন্দেহভাজন হিসেবে ৫৪ ধারায় কানাডার একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র তাহমিদকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তাকে ৫৪ ধারা থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়। এরপরই তার বিরুদ্ধে পুলিশকে অসহযোগিতা করার অভিযোগ আনা হয়।
প্রসঙ্গত, গত বছরের ৪ আগস্ট রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার জি-ব্লকের একটি বাসা থেকে তাহমিদকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এরপর তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ডে নেয়া হয়। গত ২৮ সেপ্টেম্বর গুলশানে জঙ্গি হামলার ঘটনায় তাহমিদ হাসিব খানের বিরুদ্ধে কোনো সাক্ষ্য প্রমাণ না পাওয়ায় কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের পরিদর্শক হুমায়ুন কবির তাকে ৫৪ ধারার অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দিয়ে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন। পরে সরকারি কর্মচারীর নোটিশের জবাব না দেয়ায় একটি নন-প্রসিকিউশন মামলা করেন। তাহমিদ হাসিব খান আফতাব বহুমুখী ফার্মের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফজলে রহিম খান শাহরিয়ারের ছেলে। তিনি কানাডার স্থায়ী নাগরিক।

Logo

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,    
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫