ভারত ‘স্বার্থপর’
ভারত ‘স্বার্থপর’

ভারত ‘স্বার্থপর’

বাসস

দিবা-রাত্রির ম্যাচ খেলতে রাজি না হওয়ায় ভারতকে ‘স্বার্থপর’ বললেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক খেলোয়াড় ও জাতীয় দলের নির্বাচক মার্ক ওয়াহ। বছরের শেষ দিকে অস্ট্রেলিয়া সফরে ভারতকে দিবা-রাত্রির টেস্ট খেলার প্রস্তাব দেয় ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)। কিন্তু সেই প্রস্তাবে রাজি হয়নি ভারত ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। তাই ভারতকে ‘স্বার্থপর’ বলে উপাধি দিলেন ওয়াহ।

তিনি বলেন, ‘এটা ভারতের স্বার্থপর দৃষ্টিকোণ। কারণ, টেস্ট ক্রিকেটকে পুনরুজ্জীবিত করতে হবে আমাদের। কিছু দেশে দিবা-রাত্রির টেস্ট ক্রিকেট তাদের প্রধান উপাদানগুলোর মতেই হতেই যাচ্ছে, এটি টেস্ট ক্রিকেটকে নতুন মাত্রা দিতে পারবে।’

আগামী নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়া সফরে যাবে ভারত। অ্যাডিলেডে সিরিজের প্রথম টেস্ট শুরু হবে আগামী ৬ ডিসেম্বর থেকে। আর ওই টেস্টটি ফ্লাডলাইটের নিচে গোলাপি বলে খেলতে চেয়েছিল সিএ। কিন্তু এখনো দিবা-রাত্রির কোন টেস্ট না খেলা ভারত জানায়, বড় সিরিজে দিবা-রাত্রির টেস্ট নিয়ে পরীক্ষা করতে আগ্রহী নয় তারা।

২০১৫ সাল থেকে চারটি দিবা-রাত্রির টেস্ট খেলেছে অস্ট্রেলিয়া। সবক’টিই জিতেছে অসিরা। এরমধ্যে তিনটিই ছিলো অ্যাডিলেডে।

অস্ট্রেলিয়ার আগ্রহ থাকলেও, দিবা-রাত্রির টেস্ট খেলতে রাজি নয় ভারত। আগামী ৩১ আগস্ট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাচকের মেয়াদ শেষ করতে যাওয়া ওয়াহ বলেন, ‘ভারতের সিদ্বান্তে আমি হতাশ। কিন্তু স্বার্থপরতায় টেস্ট ক্রিকেটের জনপ্রিয়তা কমছে।’

সিএ বিশ্বাস করে, দিবা-রাত্রির টেস্ট ম্যাচ টেলিভিশন বান্ধব ফরম্যাট এবং টি-২০ ফরম্যাটের আগমনে বিশ্বব্যাপি পাঁচ দিনের ভার্সনের পুনরুজ্জীবিত একান্তই প্রয়োজন।

ওয়াহ মনে করেন, অস্ট্রেলিয়া-ভারত ও ইংল্যান্ডেই শুধুমাত্র টেস্ট ক্রিকেট বেঁচে আছে এবং ভালো আছে। তিনি আরও বলেন, ‘ভারতীয় ক্রিকেট দিবা-রাত্রির ফরম্যাটের উপযোগি। তাদের পেস বোলাররা ভালো করতে পারবে, তাই তারা স্পিনারদের উপর নির্ভর করে না। তাদের ব্যাটসম্যানরা টেকনিক্যালি খুবই ভালো। তাই দিবা-রাত্রির খেলার জন্যই তা ভালো হতো। দুই দলের মধ্যে আমি গোলিাপি বলের টেস্ট প্রত্যাশা করছিলাম।’

এ মাসের শুরুতেই নিজেদের সিদ্বান্ত জানিয়েছিল বিসিসিআই। বিসিসিআই’র প্রশাসক বিনোদ রায় বলেন, ‘কেউ আমাদের মাথায় বন্দুক রেখে বলতে পারবে না দিবা-রাত্রির টেস্ট খেলার জন্য। তাদের ডিউক ও কোকাবুরা বলের ব্যাপারে সন্দেহ আছে।’

গোলাপি বলে খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে ভারতের। তবে সেটি নিজেদের ঘরোয়া আসরে। ২০১৬ সালে ঘরোয়া আসরে দুলীপ ট্রফিতে গোলাপি বলে খেলেছে ভারত। কিন্তু প্রশাসক ও শীর্ষস্থানীয় খেলোয়াড়রা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে খেলার ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী নয়।

আগামী ২১ নভেম্বর থেকে ১৯ জানুয়ারি অস্ট্রেলিয়া সফর করবে ভারত। ওই সফরে চারটি টেস্ট, তিনটি করে টি-২০ ও ওয়ানডে ম্যাচ খেলবে ভারত।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.