যুক্তরাষ্ট্রকে ইরানের হুঁশিয়ারি
যুক্তরাষ্ট্রকে ইরানের হুঁশিয়ারি

যুক্তরাষ্ট্রকে ইরানের হুঁশিয়ারি

রয়টার্স

ইরানের সাথে ছয় দেশের পারমাণবিক চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্র সরে যাওয়ার পরপরই তেহরান আবারো পুরোদমে ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ কর্মসূচি শুরু করবে বলে যে আশঙ্কা তৈরি হয়েছে সেই আশঙ্কাকেই এবার বাস্তব ভিত্তি দিলেন ইরান সরকারের মুখপাত্র মোহাম্মদ বাঘের নোবাখত। মঙ্গলবার তিনি জানিয়েছেন, চুক্তি নিয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সাথে আলোচনা ব্যর্থ হলে তার দেশ পুনরায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ কর্মসূচি চালু করবে।

ইরান সরকারের মুখপাত্র বলেন, যদি আমাদের স্বার্থ সংরতি না হয়, তাহলে আমরা চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাবো। আবারো ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ কর্মসূচি শুরু হবে। এটা ২০ শতাংশ বা যেকোনো মাত্রার হতে পারে। এর আগে শুক্রবার এক বিবৃতিতে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাবেদ জারিফ জানান, চুক্তিটি রায় তিনি আন্তর্জাতিক কূটনীতির দ্বারস্থ হবেন। একই সাথে ইরান পারমাণবিক কর্মসূচি পুনরায় চালুর জন্য প্রস্তুতি নেবে। ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী জারিফ ট্রাম্পকে অজ্ঞ বলে আখ্যায়িত করেন। তিনি দাবি করেন, মার্কিন নীতির কারণেই মধ্যপ্রাচ্য অস্থিতিশীলতায় পড়ছে। তেহরানের বিবৃতিতে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্র পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পর তেহরান এখন এ সমঝোতায় বর্ণিত ধারা অনুসারে বিষয়টি নিয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের যাবে। সেখানে ইরানের স্বার্থ রতি না হলে প্রয়োজনে তেহরানও পাল্টা পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হবে।

ইরানকে যাত্রীবাহী বিমান দিচ্ছে রাশিয়া
প্রেস টিভি

ইরানের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও তেহরানকে সুখোই সুপার জেট-১০০ বিমান সরবরাহ করবে রাশিয়া। এমনটাই জানিয়েছে রাশিয়ার সুখোই সিভিল এয়ারক্রাফট। সুখোই কোম্পানি বলেছে, তারা ইরানের এয়ারলাইন্সগুলোর সাথে সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে।
সুখোই সিভিল এয়ারক্রাফটের প্রেসিডেন্ট আলেক্সান্ডার রুবতসোভ বলেন, ইরানকে যেসব বিমান দেয়া হবে তাতে মার্কিন নির্মিত কোনো যন্ত্রাংশ কিংবা উপাদান ব্যবহার করা হবে না। এতে করে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা এড়ানো সম্ভব হবে।

গত মাসে ইউরেশিয়া এয়ার শো-তে ইরান ও সুখোই কোম্পানির মধ্যে প্রাথমিক চুক্তি সই হয়। চুক্তি অনুসারে ইরানের অসেমান এয়ারলাইন্স ও ইরান এয়ার ট্যুরস সুখোই কোম্পানির কাছ থেকে ৪০টি যাত্রীবাহী আধুনিকমানের বিমান কিনবে। এসব বিমান ১০০ যাত্রী বহন করতে সম।

ইরান এয়ার ট্যুরসের একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, তারা যেসব বিমান কিনবেন তার জন্য সুখোই কোম্পানিকে ১০০ কোটি ডলার দিতে হবে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.