চুয়াডাঙ্গায় স্কুলছাত্রকে গলাকেটে হত্যার কারণ উদঘাটন : আটক ২

চুয়াডাঙ্গা সংবাদদাতা

চুয়াডাঙ্গার আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র সাকিবকে গলাকেটে হত্যার ঘটনায় পুলিশ দুইজনকে আটক করেছে।

আজ মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানানো হয়।

ব্রিফিংয়ে জানানো হয়, হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত ব্লেডসহ সাকিবের কাছে থাকা ক্যামেরা, মোটরসাইকেল ও মোবাইল ফোন আসামিদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার মাহাবুবুর রহমান প্রেস ব্রিফিংয়ে আরো জানান, প্রেমঘটিত কারণে সাকিবের বন্ধু তৌফিকুল ইসলাম তপু ও পাভেল তাকে হত্যা করে। তপুর এক বান্ধবীর সাথে সাকিবের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। তপু সাকিবকে তার বান্ধবীর সাথে মোবাইলে কথা বলতে নিষেধ করতো। এই নিয়ে কয়েক মাস আগে সাকিব তপুকে মারধর করে।

উক্ত ঘটনার জের ধরে গতকাল সোমবার সাকিবকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। বিকালে দামুড়হুদা উপজেলার গোপিনাথপুর ভাইমারা খালের ধারে নিয়ে প্রথমে প্যান্টের বেল্ট দিয়ে শ্বাসরোধ করে। পরে ব্লেড দিকে গলা কেটে হত্যা করে। আসামিরা দুজন চুয়াডাঙ্গা ভোকেশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের নবম শ্রেণির ছাত্র।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.