মোহাম্মদ আমির
মোহাম্মদ আমির

পাকিস্তানকে এভাবে টক্কর দিচ্ছে আয়ারল্যান্ড!

নয়া দিগন্ত অনলাইন

টেস্ট ইতিহাসের প্রথম সেঞ্চুরি করে রেকর্ড গড়েছেন আয়ারল্যান্ডের কেভিন ও'ব্রায়ান। আর তার সেঞ্চুরিতে ঘুরে দাড়িয়েছে আইরিশরা। তাতে বিপদে পড়েছে পাকিস্তান। তৃতীয় দিনে যে আয়ারল্যান্ড ফলোঅনে পড়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ৬৪ রান করে লড়ছিল। তারাই চতুর্থদিন ভিন্নরুপে সামনে এলো। কেভিনের সেঞ্চুরিই শক্তিই যুগিয়েছে তাদের। পাকিস্তানের মতো দলকে টক্কর দিচ্ছে তারা। দ্বিতীয় ইনিংসে ৭ উইকেটে তাদের সংগ্রহ ৩১৯ রান! ১৩৯ রানের লিড নিয়েছে তারা।

চতুর্থ দিন শেষে ক্রিজে ১১৮ রান নিয়ে দলের শক্তি বাড়িয়ে যাচ্ছেন কেভিন ও'ব্রায়ান। আর ৮ রান নিয়ে আছেন টাইরন কেন।

এর আগে প্রথম দিন বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ ছিল। দ্বিতীয় দিন ব্যাট করতে নেমে পাকিস্তান ৯ উইকেটে ৩১০ রানে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে। পরে ব্যাট করতে নেমে ১৩০ রানে সব উইকেট হারিয়ে ফলোঅনে পড়ে আইরিশরা। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে তৃতীয় দিন বেলা শেষে কোনো উইকেট না হারিয়ে তারা ৬৪ রান সংগ্রহ করে।

দ্বিতীয় ইনিংসে সর্বোচ্চ তিনটি উইকেট শিকার করেন মোহাম্মদ আমির। হাটুর পুরনো ব্যাথা জেগে উঠায় তৃতীয় দিন তিন ওভার বল করে মাঠ ছাড়লেও চতুর্থ দিন ঠিকই বল হাতে নামেন তিনি। ২৫ ওভার বল করে আটটি মেডেন ওভার দিয়েছেন তিনি। আর রান দিয়েছেন ৫৭। আর দুটি উইকেট শিকার করেছেন মোহাম্মদ আব্বাস।

 

কেভিনের রেকর্ড

আয়ারল্যান্ডের হয়ে টেস্ট ইতিহাসের প্রথম সেঞ্চুরি করার রেকর্ড গড়েছেন কেভিন ও’ব্রায়ান। পাকিস্তানের বিপক্ষে ডাবলিনে অনুষ্ঠিত চলমান অভিষেক টেস্টের চতুর্থ দিনে ও’ব্রায়ান এই অনন্য কৃতিত্ব অর্জন করেন।

১৮৬ বলে ১০টি বাউন্ডারির সহযোগিতায় পাকিস্তানী বাঁ-হাতি পেসার মোহাম্মদ আমিরের বলে দুই রান নিয়ে কেভিন ও’ব্রায়ান ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি পূরণ করেন।

আয়ারল্যান্ডের হয়ে প্রথম সেঞ্চুরি করার রেকর্ডের আগে ৩৪ বছর বয়সী অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান ও’ব্রায়ানের নামের পাশে আরেকটি রেকর্ড এখনও জ্বলজ্বল করছে। ২০১১ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ব্যাঙ্গালুরুতে করা ৫০ বলে ওয়ানডে সেঞ্চুরিটি এখনও বিশ্বকাপের দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ড ধরে রেখেছে।

 

আমিরকে নিয়ে দুশ্চিন্তায় পাকিস্তান

আয়ারল্যান্ডের টেস্ট ইতিহাসের সাথে যুক্ত হয়ে গেছে পাকিস্তান। ডাবলিনে আইরশদের প্রথম টেস্টের প্রতিপক্ষ তারা। খুব শক্ত করেই তাদের চেপে ধরেছে সরফরাজরা। কিন্তু বিপত্তি শুরু হলো যখন দলের সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য পেসার মোহাম্মদ আমির ইনজুরিতে পড়লেন। বাম হাটুর পুরনো চোট নতুন করে জেগে উঠায় মাঠ ছাড়লেন তিনি। তার অনুপস্থিতি দলের দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দেখা দিয়েছে।

ডাবলিন টেস্টের প্রথম দিন বৃষ্টির কারণে বসেই কাটাতে হয়েছে দুই দলকে। দ্বিতীয় দিন ব্যাট করতে নেমে ৬ উইকেটে ২৬৮ রান করে পাকিস্তান। তৃতীয় দিন ৩১০ রানে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে পাকিস্তান।

এরপর ব্যাট করতে নেমে হিমশিম খায় আইরিশরা। ৭ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বসে স্বাগতিকরা। পরে অবশ্য ফলোঅনে পড়ে প্রতিরোধ গড়ে উইলিয়াম পোর্টারফিল্ডের দল। কোনো উইকেট না হারিয়ে তৃতীয় দিন শেষে ৬৪ রান করে।

এই দিন গুরুত্বপূর্ণ দুটি উইকেট শিকার করেন মোহাম্মদ আমির। আয়ারল্যান্ডের প্রথম ইনিংসে তিন ওভার বল করে সাজঘরে ফেরান ওপেনার পোর্টারফিল্ড ও কেভিন ও'ব্রায়ানকে। জ্বলে উঠা এই মুহূর্তেই জেগে উঠে পুরনো চোট। চতুর্থ ওভারে দুই বল করেই অধিনায়ককে সমস্যার কথা বলেন। তাকে নিয়ে কোনো ঝুঁকি নেননি অধিনায়ক। সাথে সাথেই অনুমতি দিয়ে দেন মাঠা ছাড়ার।

এদিকে দলের এই গুরুত্বপূর্ণ সময়ে তাকে হারিয়ে হতাশ দলটির বোলিং কোচ আজহার মাহমুদ। কারণ এক সপ্তাহ পরেই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ খেলতে নামবে পাকিস্তান। তার আগে আমিরের এই চোট দুশ্চিন্তায় ফেলে দিয়েছে দলকে।

এ ব্যাপারে আজহার মাহমুদ বলেন, 'পাঁচ বছরের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফিরে আসেন তিনি। এরপর তির ফরম্যাটেই খেলেন তিনি। এখন তার অনুপস্থিতিতে কাজের ভারটি নিতে হবে। আমাদের সব ম্যানেজ করে নিতে হবে। আশা করছি, আমরা সেটি ভালো ভাবেই করতে পারব।'

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.