জেরুজালেমে যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস স্থানান্তর নিয়ে গাজায় ব্যাপক বিক্ষোভ

বিবিসি ও এএফপি

তেলাবিব থেকে ইসরাইলের নতুন ঘোষিত বিতর্কিত রাজধানী জেরুজালেমে যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস স্থানান্তর অনুষ্ঠানে যোগ দিতে স্বামীসহ ইসরাইলে পৌছেঁছেন যুক্তরাষ্টের প্রেসিডেন্ট ডোনান্ড ট্রাম্পের কন্যা ইভাঙ্কা ট্রাম্প। ইভাঙ্কার স্বামী জ্যারেড কুশনার। তিনি ডোনান্ড ট্রাম্পের অন্যতম উপদেষ্টা। বিবিসি ওয়ার্ল্ড

সোমবার সীমিত পরিসরে যুক্তরাষ্ট্র তেলআবিব থেকে জেরুজালেমে তাদের দূতাবাস স্থানান্তরের কথা। ইসরাইল রাষ্ট্রের ৭০ তম বার্ষিকী পালন উপলক্ষে যুক্তরাষ্ট্র তেলআবিব থেকে জেরুজালেমে তাদের দূতাবাস সরিয়ে নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেবার সম্ভাবনা রয়েছে।

এদিকে বার্তাসংস্থা এএফপি জানায়, দূতাবাস স্থানান্তরের প্রতিবাদে গাজায় ব্যাপক বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামী ও ইসরাইলী দখলদাররা মুখোমুখি অবস্থান নিয়েছে। এতে কমপক্ষে ১২ জন ফিলিস্তিনি আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বলে জানিয়েছে গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

গত বছর ৬ ডিসেম্বর যুক্তরাষ্টের প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দিলে এ নিয়ে মধ্যপ্রাচ্যসহ সারা বিশ্বে ব্যাপক নিন্দার ঝড় উঠে। ফিলিস্তিনিরা পূর্ব জেরুজালেমকে তাদের ভবিষ্যৎ রাষ্ট্রের রাজধানী মনে করে। অন্যদিকে ইসরাইল জেরুজালেমকে তাদের দেশের রাজধানী হিসেবে মনে করে আসছে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া শতাব্দীর সেরা চপেটাঘাত বলে অভিহিত করেছেন ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস। আর ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ বিশ্বের নেতৃবৃন্দ প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের এ সিদ্ধান্তের নিন্দা জানিয়েছেন।

অন্যদিকে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার মাধ্যমে যুক্তরাষ্ট্রের কয়েক দশক ধরে চলে আসা নিরপেক্ষতার লঙ্ঘন বলে মনে করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, ১৯৬৭ সালে আরব-ইসরাইল যুদ্ধে ইসরাইল জেরুজালেম দখল করে নেয়। এরপর এ নিয়ে উভয় দেশের সহিংসতায় বহু ফিলিস্তিনি মারা যান।

জেরুজালেমকে ইসরাইল ও ফিলিস্তিনিরা উভয়েই তাদের মর্যাদার স্থান বলে মনে করেন। অন্যদিকে জেরুজালেমে ইসরাইলের দখলদারিত্বকে বিশ্ব সম্প্রদায় প্রতিবাদ করে আসছিলো । ১৯৯৩ সালে ইসরাইল-ফিলিস্তিন শান্তি চুক্তির আওতায় জেরুজালেমকে আলোচনার মাধ্যমে সমাধানের কথা থাকলেও ইসরাইল তা মেনে নেয়নি।

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.