গোল করার পর সেজদাহেরত মোহাম্মদ সালাহ
গোল করার পর সেজদাহেরত মোহাম্মদ সালাহ

খেলার আগে ওজু করে নেন তারা

বিবিসি

প্রতি গোলের পরই তার উদযাপনটা এখন সবার জানা। প্রতিপক্ষের জালে বল ছুঁড়েই মহান আল্লাহর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে সিজদাহ করেন। দুই হাত তুলে করেন মোনাজাত। মাঠে লিভারপুল ফরওয়ার্ড মোহাম্মদ সালাহ'র এই ধর্ম পালনে মুগ্ধ ভক্তরাও। শুধু সালাহ নয় ক্লাবটিতে আছেন আরো দু'জন মুসলিম তারকা। তারা সবাই ধর্মপ্রাণ এবং মাঠে প্রবশে করার আগে ওজু করে নেন। দলের জার্মান ম্যানেজার ইয়ুর্গেন ক্লপ সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেছেন।

সালাহ ছাড়াও লিভারপুলের বাকি দুই মুসলিম খেলোয়াড় হলেন সাদিও মানে এবং এমরে চ্যান। কিভাবে এই তিন খেলোয়াড় ম্যাচের আগে ইসলামী প্রথা অনুযায়ী ওজু করে খেলার জন্য প্রস্তত হন সে কথা জানিয়ে বস ক্লপ বলেন, অন্য খেলোয়াড়রা তাদের ওজু করার এই সময়টুকু দেন, তাদের কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করেন।

উল্লেখ্য, সামনেই রমজান মাস। পবিত্র এই মাসে রোজা রেখেই খেলা চালিয়ে যাবেন বলে জানিয়েছেন সালাহসহ আরো কয়েকজন মুসলিম ফুটবলার।

 

সৌদি আরবে সালাহ'র নামে মসজিদ!

চলতি মৌসুমে ৪৭ ম্যাচে ইতোমধ্যেই ৪৩ গোল করে দারুণভাবে ফুটবলবিশ্বে আলোচনায় এসেছেন মিসরের মোহাম্মদ সালাহ। মৌসুম জুড়ে অসাধারণ পারফরম্যান্সে কয়েকদিন আগেই প্রফেশনাল ফুটবলার অ্যাসোসিয়েশনের (পিএফএ) ২০১৭-১৮ মৌসুমের বর্ষসেরার পুরস্কার জেতেন লিভারপুলের এ ফরোয়ার্ড। আনফিল্ডের ক্লাবটিতে নিজের প্রথম মৌসুমেই এই পুরস্কার জেতেন তিনি। দুর্দান্ত পারফরমেন্সের পাশাপাশি তার নিয়ন্ত্রিত জীবনযাপন মন জয় করে নিয়েছেন সৌদি আরবের।

মিসরীয় এই লিভারপুল তারকাকে সৌদি আরব কর্তৃপক্ষ মক্কায় জমি উপহার হিসেবে দেবে বলে সংবাদমাধ্যমে জানানো হচ্ছে। সালাহর পারফরম্যান্সে মুগ্ধ হয়েছেন মক্কা মিউনিসিপ্যালিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট ফাহাদ আল রওকি। তিনি সালাহকে মক্কায় মসজিদুল হারামের বাইরে জমি উপহার হিসেবে দেবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন।

সৌদি পত্রিকা সাবক’কে নিজের এই প্রতিশ্রুতির কথা জানিয়ে ফাহাদ রওকি বলেন, ‘এই মিসরীয় যুক্তরাজ্যে ইসলামের একজন অসাধারণ দূত। তার জন্য আমাদের এই অবস্থান তরুণ প্রতিভাদের এগিয়ে আসার ক্ষেত্রে অনুপ্রেরণা সৃষ্টি করবে।’

সম্প্রতি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালে ইতালিয়ান ক্লাব এএস রোমার বিপক্ষে দুই গোল করার পাশাপাশি দুটি গোলে সহায়তাও করেছেন সালাহ। লিভারপুল ৫-২ গোলে সেমির প্রথম লেগে রোমাকে হারিয়েছে।

লিভারপুলের তারকা এই ফরোয়ার্ড ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ৩১ গোল করে ইতোমধ্যেই ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ও লুইস সুয়ারেজদের সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড ছুঁয়ে ফেলেছেন। চলতি মৌসুমে ইংলিশ ক্লাব ফুটবলের সেরাদের সেরা হিসেবে পিএফএ সালাহকে বেছে নেয়। শীর্ষে থাকার এই দৌড়ে লিভারপুলের ২৫ বছর বয়সী সালাহ পেছনে ফেলেন ম্যানচেস্টার সিটির কেভিন ডি ব্রুইন, টটেনহামের হ্যারি কেইন, ম্যানচেস্টার সিটির লিরোই সেইন, ডেভিড সিলভা ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ডেভিড ডি গিয়াকে। লিভারপুলের সপ্তম খেলোয়াড় হিসেবে এ পুরস্কার জেতেন সালাহ। ২০১৪ সালে লুইস সুয়ারেজের পর লিভারপুলের কোনো ফুটবলার প্রথম এ পুরস্কার জেতেন।

সালাহ কী ধরনের জমি উপহার হিসেবে পাবেন সেটা নিয়েও আলোচনা হচ্ছে। ফাহাদ জানান, ‘জমির ধরন নিয়ে পছন্দ-অপছন্দের বিষয় রয়েছে। সৌদি সরকারের নিয়ম মেনে যদি জমি দেয়া যায় তাহলে সালাহকে মসজিদুল হারামের ঠিক বাইরেই একখণ্ড জমির স্থান নির্ধারণ করে দেয়া হবে। আর যদি জমি দেয়ার কোনো নিয়ম না থাকে তাহলে সালাহের নামে একটি মসজিদ নির্মাণ করা হবে। যদি সেটাও নিয়মের মধ্যে না থাকে, তাহলে সালাহ নিজে থেকে জমির জন্য আবেদন করতে পারবেন। আমি সেটার ব্যবস্থা করে দেব। তিনি জমি বিক্রি করে টাকা নিতে পারবেন অথবা জমিতে নিজের নামে কোনো দাতব্য প্রতিষ্ঠান তৈরি করে দিতে পারবেন।’

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.