বেসরকারি প্রতিষ্ঠানপ্রধানদের সাথে মাউশির বৈঠক

বন্ধ থাকা শিক্ষক নিয়োগকার্যক্রম অবিলম্বে চালুর দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক

বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষরে (এনটিআরসিএ) মাধ্যমে এবং মানসম্পন্ন শিক্ষক নিয়োগ নিশ্চিত করতে প্রতিষ্ঠানের গভর্নিং কমিটির মাধ্যমে নিয়োগপদ্ধতি ও বিধিমালা স্থগিত রয়েছে। এর ফলে দেশের বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক নিয়োগ বন্ধ রয়েছে গত প্রায় দু’বছর। এতে করে সর্বত্র শিক্ষক সঙ্কট বিরাজ করছে। ফলে বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষাকার্যক্রমই বন্ধ হওয়ার মুখে। তাই মানসম্মত শিাদান অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। এই অবস্থায় অবিলম্বে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগকার্যক্রমের বিধিনিষেধ তুলে দেয়ার সুপারিশ করেছেন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রধানরা। এ ছাড়া বেসরকারি শিাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগে পিএসসির আদলে স্বতন্ত্র কর্মকমিশন প্রতিষ্ঠার পরামর্শ দেন তারা।
বেসরকারি স্কুল-কলেজ-মাদরাসার শিক্ষার মানোন্নয়নে করণীয় নিয়ে গতকাল মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর (মাউশি), রাজধানীর ৪৯ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ এবং প্রধান শিক্ষকরা বৈঠক ডাকেন। ওই বৈঠকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রধানরা উপরোক্ত মত ব্যক্ত করেন। গতকাল বিকেল ৪টা সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত এ বৈঠক চলে বলে সংশ্লিষ্টরা জানান। এতে সভাপতিত্ব করেন মাউশির মহাপরিচালক অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান। মাউশিতে শিক্ষার মানোন্নয়নে এ ধরনের বৈঠক বর্তমান সরকারের আমলে এই প্রথম।
সভায় বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা কমিটি প্রথা বাতিলের দাবি তোলা হয়। বক্তারা সরকারি প্রতিষ্ঠানের মতো পরিচালনা কমিটি অথবা সরকারি কর্মকর্তাদের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠান পরিচালনার পরামর্শ দেন। জানা গেছে, অধ্য ও প্রধানরা এমপিওভুক্ত শিক্ষকদেরকে অবিলম্বে বৈশাখী ভাতা ও বার্ষিক ৫ শতাংশ হারে বর্ধিত বেতন দেয়ার দাবি জানান।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.