৪০টি সুখোই সুপারজেট  আনছে ইরান
৪০টি সুখোই সুপারজেট আনছে ইরান

৪০টি সুখোই সুপারজেট আনছে ইরান

নয়া দিগন্ত অনলাইন

ইরানের দুটি এয়ারলাইন্স কোম্পানি রাশিয়া থেকে ৪০টি সুখোই সুপার জেট-১০০ যাত্রীবাহী বিমান কেনার জন্য মস্কোর সঙ্গে চুক্তি সই করেছে। গত কয়েক বছর ধরে রাশিয়া থেকে সুপারজেট কেনার বিষয়ে যে জল্পনা চলছিল এ চুক্তির মধ্যদিয়ে তার অবসান হলো।

চলতি বছর তুরস্কের আনাতোলিয়া শহরে অনুষ্ঠিত বিমান প্রদর্শনীর সময় ইরানের অসেমান এয়ারলাইন্স ও ইরান এয়ার ট্যুর কোম্পানি এ চুক্তি সই করে।

অসেমান এয়ারলাইন্স আরআরজে-৯৫আর শ্রেণির সুখোই সুপারজেটের অত্যাধুনিক মডেলের বিমান কিনেছে। ইরান এয়ার ট্যুর যে বিমান কিনেছে তার মূল্য পড়বে মোট ১০০ কোটি ডলার।

ইরান এয়ার ট্যুরের জনসংযোগ বিভাগের প্রধান মারজিয়া জাফারজাদেহ জানান, আগামী এক বছরের মধ্যে রাশিয়া বিমান সরবরাহের কাজ শুরু করবে। প্রতিটি বিমানে ১০০টি আসন থাকবে। ২০১৬ সালে অসেমান এয়ারলাইন্সের আমন্ত্রণে সুখোই সুপারজেটের একটি বিমান ইরানের রাজধানী তেহরান এসেছিল।

সূত্র : ইরনা 

আগ্রাসীদের শাস্তি অনিবার্য, হত্যার জবাব পাবে ইসরাইল: ইরান

সিরিয়ায় সাম্প্রতিক বিমান হামলার জন্য ইসরাইলকে শাস্তি দেয়ার হুমকি দিয়েছে ইরান। ইরানের সর্বোচ্চ জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের সচিব আলী শামখানি মঙ্গলবার রাশিয়ার উদ্দেশ্যে তেহরান ত্যাগের আগে এক সংবাদ সম্মেলনে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

সম্প্রতি সিরিয়ার একটি বিমানঘাঁটিতে হামলা চালায় ইসরাইলি বাহিনী যার ফলে সাত ইরানি সামরিক উপদেষ্টাসহ এক ডজনেরও বেশি মানুষ নিহত হয়। এ সম্পর্কে আলী শামখানি বলেন, আগ্রাসীদের শাস্তি অনিবার্য। তবে কবে কীভাবে তেল আবিবকে শাস্তি দেয়া হবে তা সময়মত ইরানই নির্ধারণ করবে।

ইরানের এ নিরাপত্তা কর্মকর্তা রাশিয়ার সোচিতে একটি নিরাপত্তা সম্মেলনে অংশগ্রহণ করবেন।আলী শামখানি বলেন, যখন একটি সরকার পরিকল্পিতভাবে অন্য দেশের আকাশসীমা লঙ্ঘন করে সন্ত্রাস বিরোধী যুদ্ধে রত সেনাদের ওপর হামলা চালায় তখন সে এর জবাব পাওয়ার বিষয়টিও বিবেচনা করে।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় গত ‌৯ এপ্রিল জানায়, ইসরাইলের দু’টি এফ-১৫ জঙ্গিবিমান লেবাননের আকাশসীমায় অনুপ্রবেশ করে সেখান থেকে সিরিয়ার টি-৪ বিমানঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায়। ওই হামলায় ইরানি সামরিক উপদেষ্টাসহ এক ডজনের বেশি মানুষ নিহত হয়।

ইসলামি জাগরণ বিষয়ক বিশ্ব সংস্থার মহাসচিব আলী আকবর বেলায়েতি বলেছেন, ফিলিস্তিনি বিজ্ঞানী ফাদি মুহাম্মাদ আল বাত্‌শ-কে হত্যার ঘটনা ইসরাইলের পতন ত্বরান্বিত করবে। আলী আকবর বেলায়েতি ইরানের সর্বোচ্চ নেতার উপদেষ্টা হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছেন।

বেলায়েতি আরো বলেছেন, মানবতাবিরোধী সব ধরণের অপরাধ অব্যাহত রাখার পরও গণতন্ত্রের দাবিদার ইউরোপ ও আমেরিকা ইসরাইলের প্রতি সমর্থন অব্যাহত রেখেছে।

তিনি বলেন, ইসরাইলি জুলুম থেকে মুক্তিলাভের সংগ্রামে তৎপর বহু নেতা-কর্মী ও ব্যক্তিত্বকে হত্যার পর ইসরাইল এবার শুধু ফিলিস্তিনি হওয়ার কারণে একজন বিজ্ঞানীকে হত্যা করেছে। মসজিদগামী ওই বিজ্ঞানীকে লক্ষ্য করে ১০টি গুলি ছোড়া হয়েছে।

শনিবার সকালে অজ্ঞাত বন্দুকধারীরা ৩৫ বছর বয়সী ফিলিস্তিনি বিজ্ঞানী ফাদি মুহাম্মাদ আল বাত্‌শ-কে মালয়েশিয়ায় তার নিজ বাড়ির সামনে গুলি করে হত্যা করেছে।

সিসি ক্যামেরার ফুটেজ থেকে দেখা যায়, বিজ্ঞানী ফাদি মুহাম্মাদের আসার জন্য সন্ত্রাসীরা ঘটনাস্থলে প্রায় ২০ মিনিট অপেক্ষা করেছে। ফাদি মুহাম্মাদ ফজরের নামাজ জামায়াতে পড়তে মসজিদে যাওয়ার জন্য বাড়িরে বাইরে বের হলে সন্ত্রাসীরা তার ওপর গুলি চালায়। তিনি মালয়েশিয়ার একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ছিলেন।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.