আন্তর্জাতিক আদালত নিয়ে মিয়ানমারের গভীর উদ্বেগ

কূটনৈতিক প্রতিবেদক
রোহিঙ্গাদের দেশ ছাড়তে বাধ্য করায় মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপ নেয়ার এখতিয়ার চেয়ে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে (আইসিসি) করা আবেদনে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে মিয়ানমার। প্রসিকিউটর বানসুদা আইসিসির রুল চেয়ে এই আবেদন করেছেন।
মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় কাউন্সিলরের কার্যালয় থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, মিয়ানমার আইসিসি সনদে স্বাক্ষরকারী দেশ নয়। সনদের কোথাও বলা নেই স্বাক্ষর করেনি এমন কোনো দেশের ওপর আইসিসির এখতিয়ার রয়েছে। জাতিসঙ্ঘের ১৯৬৯ সালের ভিয়েনা সনদে বলা হয়েছে অনুস্বাক্ষর করেনি এমন কোনো দেশের ওপর আন্তর্জাতিক চুক্তি চাপিয়ে দেয়া যাবে না। সনদের অংশীদার নয় এমন কোনো পক্ষের ওপর এখতিয়ার সম্প্রসারণ করা হলে তা অন্যান্য দেশের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে। 
বিবৃতিতে বলা হয়, মিয়ানমার কাউকেই দেশ ছাড়তে বাধ্য করেনি। বাস্তুচ্যুত মানুষদের নিজ ঘরে ফিরিয়ে আনতে বাংলাদেশের সাথে মিয়ানমার কাজ করে যাচ্ছে। এ ব্যাপারে বাংলাদেশের সাথে বেশ কয়েকটি চুক্তি সই হয়েছে। প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া এগিয়ে চলছে। মিয়ানমারের সমাজকল্যাণ, ত্রাণ ও পুনর্বাসন মন্ত্রী বাংলাদেশ সফর করে বাস্তুচ্যুত মানুষদের সাথে কথা বলেছেন। তিনি প্রত্যাবাসনের ক্ষেত্রে মিয়ানমারের প্রস্তুতির কথা জানিয়েছেন।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.