ঢাকা, মঙ্গলবার,২৪ এপ্রিল ২০১৮

বাংলার দিগন্ত

ধর্মপাশায় আইনশৃঙ্খলার অবনতিতে উদ্বেগ

গিয়াস উদ্দিন রানা ধর্মপাশা (সুনামগঞ্জ)

১৭ এপ্রিল ২০১৮,মঙ্গলবার, ০০:০০


প্রিন্ট

সুনামগঞ্জের ধর্মপাশায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির চরম অবনতি ঘটেছে। মদ, গাঁজা, ইয়াবা সেবন চলছে অবাধে। বখাটেদের অত্যাচারে স্কুল-কলেজের ছাত্রছাত্রীরা পথ চলতে পারছে না।
গত মাসে ধর্মপাশা থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে উপজেলা সদর ইউনিয়নের বাউহাটিয়া গ্রামের মদ ও গাঁজা কারবারি বাবুল এবং গত ১৩ এপ্রিল ধর্মপাশা গ্রামে অভিযান চালিয়ে আরেক কারবারি কামালকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে পাঠায়। পয়লা বৈশাখ উপলক্ষে ধর্মপাশা ডিগ্রি কলেজ মাঠে বৈশাখী অনুষ্ঠান চলাকালীন এক ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করার সময় ওই ছাত্রীর অভিভাবক তিন বখাটেকে হাতেনাতে ধরে পুলিশে হস্তান্তর করলে কাস্টডিতে রাখার পর বখাটেদের অভিভাবকেরা থানায় এসে মুচলেকা দিয়ে তাদের ছাড়িয়ে নিয়ে যায়।
উপজেলা সদর জনতা মডেল উচ্চবিদ্যালয়ের গেট থেকে কলেজ রোড, কলেজ রোড মোড় থেকে আইডিয়াল স্কুল হয়ে বিশ্বরোড, কলেজ থেকে নতুর পাড়া হয়ে বালিকা উচ্চবিদ্যালয় পর্যন্ত রাস্তার মোড় বখাটে যুবকদের আড্ডার কেন্দ্রস্থল। এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের চার দিকে প্রাইভেট কোচিং সেন্টার থাকায় প্রতিদিন সকাল ৬টা থেকে ১০টা পর্যন্ত ওই রাস্তা দিয়ে চলাচলের সময় বখাটে যুবকদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে ওঠে ছাত্রীরা। বখাটে যুবকরা ইয়াবা, গাঁজাসহ বিভিন্ন নেশাদ্রব্য সেবন করে রাস্তার ওপর আড্ডা দেয়। মেয়েরা চলাচলের সময় তাদের হাতে থাকা মোবাইলে আপত্তিকর ভিডিও গান বাজিয়ে তাদের উত্যক্ত করে। এ ছাড়া তাদের ছবি তুলে বেনামে ফেসবুক আইডিতে আপত্তিকর মন্তব্য করা তো রয়েছেই।
ধর্মপাশা থানার ওসি সুরঞ্জিত তালুকদার বলেন, মদ,গাঁজা ও জুয়ার বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। ইতোমধ্যে কয়েকজন মাদককারবারি ও একাধিক জুয়াড়িকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫