বি শ্ব সা হি ত্য

বুকার পুরস্কারের ৫০ বর্ষ পূর্তিতে জুলাইয়ে লন্ডনে ‘ম্যান বুকার ফেস্টিভাল’

আহমদ মতিউর রহমান

নোবেল পুরস্কারের পর সবচেয়ে মর্যাদাবান সাহিত্য পুরস্কার বুকার পুরস্কারের ৫০ বর্ষ পূর্তি উপলক্ষে আগামী জুলাই মাসে লন্ডনে এক উৎসবের আয়োজন করা হচ্ছে। ‘ম্যান বুকার ফেস্টিভাল’ নামে এই উৎসবে বিগত ৫০ বছরে পুরস্কার পাওয়া অনেক নামকরা লেখক-লেখিকা যোগ দেবেন। বুকার পুরস্কার নামে এই পুরস্কার চালু হলেও লন্ডনে ব্যবসায়ী সংস্থা ম্যান গ্রুপ পিএলসি এর স্পন্সর হওয়ার পর এর নামকরণ করা হয় ‘ম্যান বুকার পুরস্কার’। ম্যান বুকার পুরস্কার ও ম্যান বুকার আন্তর্জাতিক পুরস্কারÑ এ দুই ক্ষেত্রেই এখন প্রতি বছর পুরস্কার দেয়া হচ্ছে। ৬ থেকে ৮ জুলাই লন্ডনে অনুষ্ঠেয় এ উৎসবে ৬০ জনেরও বেশি অতিথি বক্তা থাকবেন। তারা বিভিন্ন বিষয়ে বক্তব্য রাখবেন এবং অভিজ্ঞতার বর্ণনা দেবেন। আর পুরস্কার বিজয়ী অন্তত ১৫ জন লেখক-লেখিকা এতে যোগ দেবেন। তাদের মধ্যে রয়েছেন হিলারি ম্যান্টেল, কাজু ও ইশিগুরো, পিটার ক্যারি, অ্যানি অ্যানরাইট, ডেভিড গ্রোস ম্যান, পল বিটে, এলিনব ক্যাটন, গ্রায়েম ম্যাক্রি বার্নেট, জুলিয়ান বার্নস প্রমুখ। থাকবেন মা ও মেয়ে ভারতের অনিতা দেশাই ও কিরণ দেশাই।
এ উৎসব উপলক্ষে বিগত ৫০ বছরের সবচেয়ে সেরা বইয়ের জন্য থাকবে ‘গোল্ডেন ম্যান বুকার প্রাইজ। পাঁচ দশকের জন্য পাঁচটি বই বাছাই করবেন পাঁচজন বিচারক। এই পাঁচটি বইয়ের নাম প্রকাশ করা হবে ২৬ মে। এরপর সর্বসাধারণকে এসব বইয়ের ব্যাপারে ভোট দেয়ার আহ্বান জানানো হবে। এই পাবলিক ভোটে ‘গোল্ডেন ম্যান বুকার পুরস্কার’ বিজয়ী বইয়ের নাম নির্ধারিত হবে।
বুকার প্রাইজ ফাউন্ডেশনের চেয়ারপারসন হেলেনা কেনেডি বলেছেন, এ উৎসব হবে এই পুরস্কারের অতীত, বর্তমান ও ভবিষ্যতের স্বীকৃতি। আর এর মধ্য দিয়ে সাহিত্য জগতের নতুন কণ্ঠস্বর উঠে আসবে, এটাই আমাদের প্রত্যাশা।
এবার একটু পেছনের দিকে তাকানো যাক। বুকার পুরস্কারের সূচনা হয় ১৯৬৯ সালে। তখন এই পুরস্কারের নাম ছিল ‘বুকার-ম্যাক কনেল প্রাইজ’। তবে সাধারণভাবে বুকার পুরস্কার হিসেবেই বলা হতো। ২০০২ সালে ম্যান গ্রুপ এই পুরস্কারের স্পন্সর হয়। প্রথম বছরে এই পুরস্কারের অর্থ মূল্য ছিল ২১ হাজার পাউন্ড এবং তা দীর্ঘ দিন ধরে ছিল। ২০০২ সালে এর মূল্যমান বাড়িয়ে ৫০ হাজার পাউন্ড করা হয়। সময়ে সময়ে এই পুরস্কারের নিয়মকানুনে অনেক পরিবর্তন এসেছে। এটি এখন বিশ্বের অন্যতম সেরা ধনী সাহিত্য পুরস্কার। এ পুরস্কারের মধ্য দিয়ে বহু লেখক উঠে এসেছেন এবং বিশ্বসাহিত্য অঙ্গনে সুপরিচিত হয়েছেন, দ্যুতি ছড়িয়েছেন। তাদের বই অনূদিত হয়ে ছড়িয়ে পড়েছে দেশে দেশে। ১৯৬৯ সালে প্রথম বুকার পুরস্কার প্রাপ্ত উপন্যাসের নাম ‘সামথিং টু অ্যানসার ফর’। এটির লেখক ব্রিটেনের পিএইচনিউবি। যুক্তরাজ্য ছাড়াও বহু দেশের লেখক-লেখিকারা এ পুরস্কার পেয়েছেন। ২০১৭ সালে এ পুরস্কার পেয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের জর্জ সন্ডার্স।
এই পুরস্কারের ৫০ বছর পূর্তি আর সে উপলক্ষে ম্যান বুকার ফেস্টিভাল বিশ্বসাহিত্য অঙ্গনে নতুন ধারা সূচনা করবেÑ এমনটাই আশা সাহিত্য সমালোচকদের।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.