রোহিঙ্গাদের জন্য সৌদি আরবের ৫ মিলিয়ন ডলার অনুদানে দুটি চুক্তি স্বাক্ষর

গোলাম আজম খান, কক্সবাজার (দক্ষিণ)

বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গারা যাতে সম্মান ও নিরাপদে নিজ দেশে ফিরে যেতে পারে সেজন্য বিশ্ব সম্প্রদায়ের ভূমিকা প্রত্যাশা করে সৌদি আরব। এব্যাপারে মিয়ানমারের উপর চাপ সৃষ্টি করতে আন্তর্জাতিক মহলের প্রতি আহবান জানিয়েছেন সৌদি সরকারের কিং সালমান রিলিফ সেন্টারের সুপারভাইজার জেনারেল ও সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ড. আবদুল্লাহ আল রাবিয়াহ।

তিনি আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে কক্সবাজারের একটি হোটেলে এইএনএইচসিআর’ এর সাথে এক চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের একথা বলেন।

রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জরুরি সহায়তা প্রদানের জন্য ইউএনএইচসিআরকে ৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার প্রদান করেছে কিং সালমান রিলিফ সেন্টার। ইউএনএইচসিআর’র গালফ দেশসমূহের আঞ্চলিক প্রতিনিধি খালিদ খালিফা চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। এসময় তিনিও বিশ্ব সম্প্রদায়কে রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়ানোর আহবান জানিয়ে বলেন, রোহিঙ্গাদের সম্মানজনক, নিরাপদ ও স্থায়ীভাবে নিজ ভূমিতে প্রত্যাবাসন প্রত্যাশা করে ইউএনএইচসিআর।

এর আগে সৌদি প্রতিনিধি দল কক্সবাজার সদর হাসপাতাল পরিদর্শন করেন। এসময় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মাধ্যমে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের সক্ষমতা বাড়াতে ২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার প্রদান করেন। এই অনুদান দিয়ে ২৫০ শয্যার কক্সবাজার সদর হাসপাতালকে ৫০০ শয্যায় উন্নীত করা হবে এবং প্রযুক্তিগত উন্নয়ন করা হবে।

পরিদর্শনকালে সৌদি প্রতিনিধি দল চিকিৎসাধীন রোহিঙ্গা রোগীদের স্বাস্থ্যের খোঁজ খবর নেন। পরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ও চিকিৎসকদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় মিলিত হন। এতে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা: পু চ নু, আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মো: শাহীন আবদুর রহমান চৌধুরী ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.