ঢাকা, বৃহস্পতিবার,২৬ এপ্রিল ২০১৮

যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডা

কাতারের আমিরকে স্বাগত জানালেন ট্রাম্প

নয়া দিগন্ত অনলাইন

১১ এপ্রিল ২০১৮,বুধবার, ১৪:৫৩


প্রিন্ট

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসে কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল-থানিকে স্বাগত জানিয়েছেন। সন্ত্রাসবাদে অর্থায়ন নিয়ে তার সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠার মাত্র এক বছরের মাথায় তাকে স্বাগত জানালেন তিনি। খবর এএফপি’র।

ট্রাম্প আবেগাপ্লুত হয়ে বলেন, ‘তিনি আমার বন্ধু এবং পুরোদস্তুর একজন ভদ্রলোক।’

পরে হোয়াইট হাউসের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘এ দুই নেতা নতুন বাণিজ্য চুক্তি চূড়ান্ত করার যৌথ প্রচেষ্টা নিয়ে আলোচনা করেন। আর এই বাণিজ্য চুক্তির আওতায় ৫০ হাজারের বেশি মার্কিন নাগরিকের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হবে। তারা সিরিয়া এবং সেখানে ইরান ও রাশিয়ার ক্ষতিকর প্রভাব নিয়েও আলোচনা করেন।

বিবৃতিতে নতুন এ বাণিজ্য চুক্তি কি ধরণের সে বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি।

উল্লেখ্য, এক বছর আগেও কাতারের ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান সম্পূর্ণ ভিন্ন ছিল। কাতারের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিতে সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব-আমিরাতের নেতৃত্বকে সমর্থন জানিয়ে ট্রাম্প বলেছিলেন, কাতারকে ইরানের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন এবং সন্ত্রাসবাদে অর্থায়ন বন্ধ করতে হবে।

ট্রাম্প প্রাথমিকভাবে কাতারের বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞাকে সমর্থন জানিয়েছিল। কিন্তু পরে মার্কিন মিত্ররা দোহার বাইরে আল ইউদিদ বিমান ঘাঁটির কথা ট্রাম্পকে স্মরণ করিয়ে কাতারের প্রতি আরো উদার হওয়ার কথা বলেন। মধ্যপ্রাচ্যে যুক্তরাষ্ট্রের অভিযানে এই বিমান ঘাঁটির ভূমিকা ছিল মূখ্য।

এদিকে হোয়াইট হাউসে কাতারের আমির বলেন, এই নিষেধাজ্ঞা চলাকালে ট্রাম্প জোরালোভাবে আমাদের পক্ষে ছিলেন। এভাবে সমর্থন জানানোয় আমেরিকার জনগণকে তিনি ধন্যবাদ জানান।

ট্রাম্প কাতারের সামরিক অস্ত্র ক্রয়ের প্রশংসা করে বলেন, তারা আমাদের কাছ থেকে প্রচুর সামরিক সরঞ্জামাদি ক্রয় করেছে।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, গালফ কো-অপারেশন কাউন্সিলের মধ্যে পুনরায় ঐক্য গড়ে তোলার প্রধান বাধা নিয়েও এ দুই নেতা আলোচনা করেন।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫