২৮২ কোটি ৫৩ লাখ টাকার অগ্নি নির্বাপণ যন্ত্রপাতি কিনছে সরকার

বিশেষ সংবাদদাতা

দেশের ১৫৬টি উপজেলা সদরে স্থাপিত ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের আধুনিকায়নের জন্য ২৮২ কোটি ৫৩ লাখ টাকা ব্যয়ে ৩২ ধরনের অগ্নি নির্বাপণী ও উদ্ধার সাজ-সরঞ্জাম ক্রয় করছে সরকার। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরা বিভাগের এ-সংক্রান্ত একটি ক্রয় প্রস্তাবসহ মোট ছয়টি ক্রয় প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি।
গতকাল দুপুরে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সম্মেলন কে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সভাপতিত্বে সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে এসব প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে। বৈঠকে কমিটির সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিব, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মোস্তাফিজুর রহমান বৈঠকে অনুমোদিত প্রস্তাবগুলোর বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন।
তিনি বলেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরা বিভাগের আওতায় ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদফতর বাস্তবায়নাধীন ‘দেশের গুরুত্বপূর্ণ ১৫৬টি উপজেলা সদরে ফায়ার ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন স্থাপন’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় ৩২ ধরনের অগ্নি নির্বাপণী ও উদ্ধার সাজ-সরঞ্জাম ক্রয়ের একটি প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। এতে ব্যয় হবে ২৮২ কোটি ৫৯ লাখ টাকা। কয়েকটি লটে বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান এসব পণ্য সরবরাহ করবে।
তিনি বলেন, বৈঠকে সরকারের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সাত হাজার ৪৪৮ পিস তাঁবু কেনার একটি প্রস্তাবে অনুমোদন দেয়া হয়েছে। ৫৯ কোটি টাকা ব্যয়ে তিনটি লটে কম্পিউটার ওয়ার্ল্ড বিডি ও জেএসএম করপোরেশন এ তাঁবু সরবরাহ করবে।
মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, দুর্যোগ ব্যবস্থপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের ২০১৭-১৮ অর্থবছরে তিন হাজার ১৯ টন ঢেউটিন ক্রয়ের একটি প্রস্তাবেও অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। এ জন্য ব্যয় হবে ৪১ কোটি ৯৮ লাখ টাকা। তিনটি লটে জয় এন্টারপ্রাইজ, ফাউন্ডি ট্রেড ইন্টারন্যাশনাল, জেভি এন্টারপ্রাইজ এই ঢেউটিন সরবরাহ করবে।
খুলনা জোনের কুষ্টিয়া শহর বাইপাস সড়ক নির্মাণ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় ৬ দশমিক ৬০ কিলোমিটার কুষ্টিয়া শহর বাইপাস সড়ক নির্মাণ, একটি রেলওয়ে ওভারপাস. একটি পিসি গার্ডার সেতু নির্মাণ, ২১টি আরসিসি বক্স নির্মাণ ও অন্যান্য কাজের প্যাকেজের ভেরিয়েশন প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়। এ প্যাকেজের ভিত্তি মূল্য ছিল ৭১ কোটি ২৬ লাখ টাকা। এ প্রকল্পে অতিরিক্ত কাজ হওয়ায় প্রকল্পে ব্যয় আট কোটি ৬৫ লাখ টাকা বেড়েছে। ফলে প্রকল্পের মোট ব্যয় হবে ৭৯ কোটি ৯২ লাখ টাকা।
এ ছাড়া সভায় ‘বাংলাদেশ রেলওয়ের পাঁচুরিয়া-ফরিদপুর-ভাঙ্গা সেকশন পুনর্বাসন ও নির্মাণ’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় সম্পাদিত চুক্তিপত্র নম্বর-বিআর/ডব্লিউজেড/প্যাকেজ ডব্লিউডি-২/এফডিপি-ভাঙ্গা, প্যাকেজে ফরিদপুর-কুকুরিয়া-ভাঙ্গা সেকশনে বিভিন্ন কাজের দ্বিতীয় ভেরিয়েশনের একটি প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। কাজের মূল বরাদ্দ ছিল ১২৮ কোটি ৪৪ লাখ টাকা। অতিরিক্ত ৩৬ কোটি ৬৫ লাখ টাকার কাজ হওয়ায় প্রকল্পের মোট ব্যয় দাঁড়িয়েছে ১৬৫ কোটি ৯ লাখ টাকা।
এ ছাড়াও রাজউকের পূর্বাচল প্রকল্পের মাটি ভরাট কাজের একটি ভেরিয়েশন প্রস্তাবে অনুমোদন দেয়া হয়েছে বলে মোস্তাফিজুর রহমান জানান। তিনি বলেন, প্রকল্পটিতে মাটি ভরাটের জন্য ২৮৯ কোটি ৮৬ লাখ টাকা বরাদ্দ ছিল। প্রকল্পে ১৯ কোটি ৮ লাখ টাকার কাজ বেড়ে মোট ব্যয় দাঁড়িয়েছে ৩০৮ কোটি ৯৮ লাখ টাকা।
এর আগে অর্থমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অর্থনৈতিক বিষয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে চুক্তির মাধ্যমে বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশন (বিএডিসি) কর্তৃক ২০১৮-১৯ অর্থবছরে রাশিয়া, বেলারুশ ও কানাডা থেকে এমপিও এবং সৌদি আরব থেকে ডিএপি সার আমদানির লক্ষ্যে চুক্তির নবায়নসংক্রান্ত একটি প্রস্তাবে নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়। বৈঠকে শ্রম অধিদফতরের আওতায় পিপিপির মাধ্যমে চাষাঢ়ায় একটি হাসপাতাল বাস্তবায়নের নিমিত্তে শ্রম অধিদফতর এবং এএফসি হেলথ লিমিটেড ও ফর্টিস হেলথকেয়ার লিমিটেডের মধ্যে লিগ্যাল বেটিংপ্রাপ্ত চুক্তিপত্রটি অনুমোদন দেয়া হয়।

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.