ঢাকা, সোমবার,২৩ এপ্রিল ২০১৮

দেশ

তিন নাতির সাথে মারা গেলেন দাদিও

নিয়াজ কওছার তুহিন, কালিগঞ্জ (সাতক্ষীরা)

২১ মার্চ ২০১৮,বুধবার, ১৮:১০


প্রিন্ট
তিন নাতির সাথে মারা গেলেন দাদিও

তিন নাতির সাথে মারা গেলেন দাদিও

বাড়ির আঙ্গিনায় পাশাপাশি খাটিয়ায় রাখা হয়েছে চারটি লাশ। পাশে বসে শোকে পাথর হয়ে গেছেন মনিরুজ্জামান (৩৮) ও তার স্ত্রী রেজিনা খাতুন (৩০)। কোন কষ্টটার জন্য চোখ থেকে পানি ফেলবেন, সেটাই হয়তো ভেবে পাচ্ছেন না তারা। কারণ নিহতদের মধ্যে রয়েছে তাদের অতি আদরের দুই সন্তান আশিকুজ্জামান (১২) ও মীম (৩) এর লাশ। পাশেই রয়েছে ভাতিজা সাব্বির হোসেন (৮) ও নিহদের দাদী আকলিমা বেগম (৬০) এর লাশ।

সাতক্ষীরার কালিগঞ্জের কুশলিয়া ইউনিয়নের বাজারগ্রামের শোকাতুর বাড়িটিতে অশ্রুসজল নয়নে সেখানে ভিড় করে আছেন আত্মীয়স্বজন, প্রতিবেশী ও বিভিন্ন স্থান থেকে শোক প্রকাশ করতে আসা বিপুল সংখ্যক নারী, শিশুসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ।

পরিবারের সদস্যদের মাঝে এখন শুধুই হাহাকার। মমতাময়ী মা ও দু’ভাতিজাকে শেষবারের মতো দেখার জন্য ছুটে এসেছেন সৈয়দপুর সেনানিবাসে কর্মরত সেনাসদস্য নাসিরুজ্জামান বাবু (৩২)। তিনি আসার পরপরই বাদ আসর জানাজা শেষে মহৎপুর সরকারি কবরস্থানে তিনজনের দাফন সম্পন্ন হয়। এর আগে দুর্ঘটনায় নিহতদের দেখতে সেখানে ছুটে যান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান যুদ্ধকালীন কমান্ডার আলহাজ্জ্ব শেখ ওয়াহেদুজ্জামান, কুশলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার শেখ মেহেদী হাসান সুমন, জেলা পরিষদ সদস্য নুরুজ্জামান জামু ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

স্থানীয় ইউপি সদস্য শেখ খায়রুল আলম ও নিহতদের স্বজন এড. সালাউদ্দীন আহম্মেদ নিহতদের পরিবারের সদস্যদের উদ্ধৃতি দিয়ে জানান, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে মনিরুজ্জামানের চাচা আলহাজ্জ্ব এলাহী বক্সের (৮০) জানাজা শেষে খুলনা থেকে পিকআপে বাড়ি আসার সময় পাটকেলঘাটার আসাননগর এলাকায় পৌছানোর পর বিপরীতমূখী মালবাহী ট্রাকের ধাক্কায় নিহত হন ৬ জন। অন্তত ৭ জন আহত হন। তবে ওই পিকআপে থাকলেও অক্ষত থাকেন আশিকুজ্জামান ও মীম এর মা রোজিনা খাতুন।

তারা জানান, নিহত অপর ৩ জনও মনিরুজ্জামানের স্বজন। তারা হলেন মনিরুজ্জামানের ভাতিজা সাব্বির হোসেন (৮), নিকটাত্মীয় কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের কালিকাপুর গ্রামের ইউসুফ ঢালীর ছেলে সাঈদুর রহমান (৩৫) ও আলহাজ্জ্ব মোহাম্মদ আলী বিশ্বাসের স্ত্রী নূরবানু (৪৫)। এর মধ্যে শাহিন হোসেনের ছেলে সাব্বির হোসেনকে জানাজা শেষে বুধবার দুপুরে সাতক্ষীরার আমতলা মোড় এলাকায় দাফন করা হয়েছে।

বুধবার বাদ জোহর জানাজা শেষে সাঈদুর রহমান ঢালী ও নূর বানুকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। সড়ক দুর্ঘটনায় একইসাথে নারী ও শিশুসহ ৬ জনের মর্মান্তিক মৃত্যু হওয়ায় উপজেলা জুড়ে সৃষ্টি হয়েছে শোকাবহ পরিবেশ।

 

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫