ঢাকা, সোমবার,২৩ এপ্রিল ২০১৮

আরো খবর

সাভারে নিখোঁজের ১৫ দিন পর কলেজছাত্রের লাশ উদ্ধার : আটক ২

সাভার (ঢাকা) সংবাদদাতা

২১ মার্চ ২০১৮,বুধবার, ০০:৩৭


প্রিন্ট

সাভারে নিখোঁজের ১৫ দিন পর গতকাল মঙ্গলবার জয়নাবাড়ি এলাকার বৈদ্যনাথের ইটভাটার পাশে হোসেন আলীর বালুর মাঠের বালুর নিচ থেকে এক কলেজছাত্রের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত কলেজছাত্রের নাম ফয়সাল আহমেদ (১৭)। তিনি সাভারের হেমায়েতপুরের জয়নাবাড়ির এলাকার ফকির চান ওরফে মাসুদ রানার ছেলে। ফয়সাল সাভার ব্যাংক কলোনির রাজালাক ফার্মসংলগ্ন কলেজের একাদশ শ্রেণীর ব্যবসায়শিক্ষা শাখার ছাত্র ছিল। এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে দু’জনকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃতরা হলোÑ রাজু ও আকাশ।
নিহতের পরিবার ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত ৫ মার্চ রাজু ও আকাশ কলেজছাত্র ফয়সালকে কৌশলে বাসা থেকে ডেকে নিলে রাত ১০টার পর থেকে ফয়সালের মোবাইলটি বন্ধ পাওয়া যায়। পরে তাকে আটকে রেখে পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয় ফয়সালের বাবা ফকির চানের কাছে। এ ঘটনায় ফকির চান বিষয়টি জানিয়ে সাভার মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। পরে থানা পুলিশ প্রযুক্তির ব্যবহার করে অভিযুক্ত রাজু ও আকাশের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন ট্র্যাকিং করে তাদের অবস্থান সম্পর্কে নিশ্চিত হয়ে গতকাল ভোরে দিনাজপুর জেলার বিরামপুর এলাকা থেকে আকাশ ও রাজুকে গ্রেফতার করে। পরে তাদের দেয়া তথ্য মতে, সাভারের জোরপুল এলাকার বৈদ্যনাথের ইটভাটার পাশে হোসেন আলীর বালুর মাঠ থেকে বালুচাপা অবস্থায় নিহত ফয়সালের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করা হয়।
নিহত কলেজছাত্র ফয়সাল আহমেদের চাচা কোহিনুর হোসেন জানান, অভিযুক্ত রাজু ও আকাশ পূর্বপরিকল্পিত আমার ভাতিজাকে অপহরণ করে পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। আমার ভাই ফকির চান গাড়ি ব্যবসা ও পার্সের দোকান করেন।
সাভার মডেল থানার ডিউটি অফিসার (এসআই) আবুল কাশেম জানানÑ নিহতের লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় আটককৃত দু’জনকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫